মঙ্গলবার | জুন ২৮, ২০২২ | ১৪ আষাঢ় ১৪২৯  

খবর

আমার পরিবারের কেউ দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত নয়: দীপু মনি

নিজস্ব প্রতিবেদক

চাঁদপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চাঁবিপ্রবি) জমি অধিগ্রহণে পরিবারের বিরুদ্ধে ওঠা দুর্নীতির অভিযোগ সত্য নয় বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। তিনি বলেন, আমার পরিবারের কেউ কোনো ধরনের দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত নয়। তবে অন্য কেউ দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত থাকলে তা তদন্ত করে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া উচিত বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন তিনি।

আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর হেয়ার রোডে সরকারি বাসভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী।

সম্প্রতি চাঁবিপ্রবির জন্য জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়ায় দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছেন চাঁদপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ। যেখানে শিক্ষামন্ত্রীর নিকটাত্মীয় জড়িত বলে অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে তা অসত্য, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, জমি অধিগ্রহণের সঙ্গে আমার বা আমার পরিবারের আর্থিক কোনো সম্পর্ক নেই।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমাকে বা আমার পরিবার সম্পর্কে যদি কোথাও তথ্য প্রকাশ হয় সেই বিষয়ে আমার যেমন নিজের বক্তব্য তুলে ধরার অধিকার আছে। আবার তেমনি আমাকে নিয়ে যদি অসত্য তথ্য প্রকাশ হয় তাহলে সঠিক তথ্য দিয়ে সেই বিভ্রান্তি দূর করার দায়িত্বও রয়েছে।

তিনি বলেন, চাঁদপুরে কোথাও আমার ক্রয় সূত্রে কোনো জমি নেই। উত্তরাধিকার সূত্রে হয়তো বা পৈত্রিক ভিটায় আমার অধিকার থাকতে পারে। কিন্তু আমি চাঁদপুরে কোথাও ক্রয় সূত্রে কোনো জমির মালিক নই।

ডা. দীপু মনি বলেন, দুর্নীতিতে জড়িতদের মধ্যে আমার ভাইয়ের ব্যাপারে কথা বলা হচ্ছে। আমার ভাই একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি। তিনি লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নে একটি হাসপাতাল ও একটি বৃদ্ধাশ্রম করার জন্য কিছু জায়গা কিনেছিলেন।

তিনি বলেন, যখন অধিগ্রহণের প্রক্রিয়াটি শুরু হয়, যেহেতু এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্যই অধিগ্রহণ করা হচ্ছে এবং আমি শিক্ষামন্ত্রী, সেই কারণে তিনি জমিটি বিক্রি করে দেন, হস্তান্তর করে দেন। অর্থাৎ, এই অধিগ্রহণের জন্য নির্ধারিত যে জমিটি আছে চাঁবিপ্রবির, সেখানে আমার বা আমার পরিবারের কারো কোনো জমি নেই।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন


×