শনিবার| ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০| ৯ফাল্গুন১৪২৬

বিশেষ সংখ্যা

ওকে ওয়ালেট

দীর্ঘ ২০ বছর ধরে ওয়ান ব্যাংক সুনামের সঙ্গে গ্রাহকসেবায় নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। নিরবচ্ছিন্ন গ্রাহকসেবা নিশ্চিত করতে ওয়ান ব্যাংক বরাবরই আধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর ব্যাংকিং সলিউশনে বিশ্বাসী। তারই ধারাবাহিকতায় ওয়ান ব্যাংক তার গ্রাহকদের জন্য এনেছে মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সেবা ওকে ওয়ালেট। ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থাকুক আর না থাকুক একজন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তি তার মোবাইল ফোনে ওকে ওয়ালেটের ব্যাংকিং সেবা নিতে পারবেন। ওকে ওয়ালেটের মাধ্যমে ব্যাংক তার সেবা দেশের সব প্রান্তে, সব শ্রেণী-পেশার গ্রাহকের কাছে ছড়িয়ে দিতে বদ্ধপরিকর।

ওকে ওয়ালেটের উদ্দেশ্য ব্যাংকিং সেবা দেশের সব প্রান্তে ছড়িয়ে দেয়া। অনলাইন-অফলাইন কেনাকাটা, পানি-বিদ্যুত্সহ বিভিন্ন পরিষেবার বিল পরিশোধ, নিরাপদে দেশের যেকোনো প্রান্তে টাকা পাঠানো, মোবাইল রিচার্জ, ক্রেডিট কার্ডের বিল পরিশোধ, ডিপিএস জমাসহ নানা রকম ফিচার নিয়ে এক বছর ধরে সফলভাবে কাজ করে চলেছে ওয়ান ব্যাংকের মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস সেবা ওকে ওয়ালেট। ইউএসএসডি হোক বা অ্যাপ, একজন গ্রাহক যেকোনো মাধ্যমেই ব্যবহার করতে পারবে ওকে ওয়ালেট।

ওকে ওয়ালেট বিভিন্ন কারণে বাজারে প্রচলিত অন্যান্য মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসের চেয়ে আলাদা। বহির্বিশ্বের বিভিন্ন নামকরা মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসের মতোই ওকে ওয়ালেটে রয়েছে বিভিন্ন আধুনিক সেবা। একজন গ্রাহক ঘরে বসেই অ্যাপ ডাউনলোডের মাধ্যমে অনলাইনে ওকে ওয়ালেটে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে। ওয়ালেটের অন্যতম আকর্ষণীয় ফিচার হলো এর সহজ ক্যাশ-ইন সেবা। একজন গ্রাহক Mastercard বা Visa লোগোসংবলিত যেকোনো ডেবিট ক্রেডিট কার্ড থেকে মুহূর্তেই ওকে ওয়ালেটে ক্যাশ-ইন/অ্যাড মানি করতে পারবে। পাশাপাশি গ্রাহক পেয়ে যাবে ব্র্যাক ব্যাংক যমুনা ব্যাংক অ্যাকাউন্টে অ্যাড মানি, পিয়ার টু পিয়ার ট্রান্সফার করার সুবিধা। ওকে ওয়ালেট অ্যাপ দিয়ে একজন গ্রাহক দেশের সব মোবাইল অপারেটরে রিচার্জ করতে পারবে। শুধু তা- নয়, ওকে ওয়ালেটের গ্রাহকরা পাচ্ছে মাত্র শতাংশ হারে ATM ক্যাশ-আউটের সেবা। ওকে ওয়ালেটই প্রথম মোবাইল ওয়ালেট, যেটা এজেন্ট, ডিস্ট্রিবিউটর, মার্চেন্ট অর্থাত্ সব চ্যানেল পার্টনারকে USSD অ্যাপ দুই মাধ্যমেই সেবা দিয়ে আসছে।

দেশের ব্যবসা খাতে অবদান রাখতে এফএমসিজি প্রতিষ্ঠানগুলোকে ডিজিটাল পেমেন্টের সুবিধা দেয়ার জন্য ওকে ওয়ালেট খুচরা বিক্রেতাদের মধ্যে নতুন বি টু বি পেমেন্ট সলিউশনও চালু করেছে।

ওকে ওয়ালেটের মূল উদ্দেশ্য হলো লাইফস্টাইল পেমেন্ট ওয়ালেট হিসেবে নিজেকে তুলে ধরা। তাই ওকে ওয়ালেটের সেবা শুধু দেশের যেকোনো প্রান্তে নিরাপদে টাকা পাঠানোর মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়, গ্রাহকের জীবনকে স্বাচ্ছন্দ্যময় করতে ওকে ওয়ালেট সবসময় নতুন নতুন ফিচার নিয়ে আসে।

ওকে ওয়ালেটের সেবাগুলোর মধ্যে আছে

দেশব্যাপী এজেন্ট-ডিস্ট্রিবিউটর নেটওয়ার্ক, Mastercard বা Visa লোগোসংবলিত যেকোনো ডেবিট ক্রেডিট কার্ড থেকে ক্যাশ-ইন সুবিধা, ATM ক্যাশ-আউটের সুবিধা, অনলাইন-অফলাইনে কেনাকাটা, যেকোনো অপারেটরে মোবাইল রিচার্জ, পানি-বিদ্যুত্সহ বিভিন্ন পরিষেবার বিল পরিশোধ, ইন্টারনেট ডিরেক্ট টু হোম (ডিটিএইচ) টিভির বিল পরিশোধ, বিভিন্ন ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা আনা অ্যাকাউন্টে টাকা জমা দেয়ার সুব্যবস্থা, ক্রেডিট কার্ডের বিল পরিশোধ, ডিপিএস জমা, রাইডশেয়ারিং ফুড ডেলিভারির মূল্য পরিশোধ, এছাড়া পাঠাও, সেবা XYZ, চালডাল.কম, যান্ত্রিক, আকাশ ডিটিএইচ, সহজ, ইজিট্যাক্স, টনিকের মতো জনপ্রিয় সেবাগুলোর মূল্য পরিশোধের সুযোগ।

অ্যাপ ডাউনলোডের মাধ্যমে একজন গ্রাহক অনলাইনে ওকে ওয়ালেটে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে। পাশাপাশি ওকে এজেন্ট পয়েন্ট আর ওয়ান ব্যাংক লিমিটেডের যেকোনো শাখা থেকে গ্রাহকরা পেয়ে যাবে ওকে ওয়ালেটে রেজিস্ট্রেশন, ক্যাশ-ইন/আউটের সুবিধা। ওকে ওয়ালেটের অন্যতম আকর্ষণীয় ফিচার হলো এর সহজ ক্যাশ-ইন সেবা। Mastercard বা Visa লোগোসংবলিত যেকোনো ডেবিট ক্রেডিট কার্ড থেকে মুহূর্তেই ওকে ওয়ালেটে ক্যাশ-ইন/অ্যাড মানি করা যায়।

ওকে ওয়ালেটের গ্রাহকরা পেয়ে যাবে ব্র্যাক ব্যাংক যমুনা ব্যাংক অ্যাকাউন্টে অ্যাড মানি, পিয়ার টু পিয়ার ট্রান্সফার করার সুবিধা। ওকে ওয়ালেট অ্যাপ দিয়ে একজন গ্রাহক দেশের সব মোবাইল অপারেটরে রিচার্জ করতে পারবে। এছাড়া MyGP, My Robi, My Airtel অ্যাপ থেকে মোবাইল ডাটাসহ বিভিন্ন বান্ডেল অফার কিনতে পারবে।

ওয়ালেট দিয়ে পরিশোধ করা যাবে ঢাকা ওয়াসা, ডিপিডিসি, ডেসকো, নেসকোর মতো জরুরি ইউটিলিটি বিল। করা যাবে লংকাবাংলা ফিন্যান্স লিমিটেডের ক্রেডিট কার্ড আর ডিপিএসের কিস্তি পেমেন্ট। এছাড়া ন্যাশনাল আইডি কার্ডের সংশোধনের ফিও ওকে ওয়ালেটের মাধ্যমে পরিশোধ করা যাবে।

মুহূর্তে চার হাজারেরও বেশি অনলাইন অফলাইন মার্চেন্ট আউটলেটে ওকে ওয়ালেট দিয়ে কেনাকাটা করা যাবে। এর মধ্যে আছে ডেইলি শপিং, মীনা বাজার, বেস্ট বাই, এলজি বাটারফ্লাই, সিঙ্গারের মতো চেইন আউটলেট। আরো আছে আড়ং, রকমারি আর বাগডুমের মতো জনপ্রিয় অনলাইন শপগুলো।

ওকে ওয়ালেটে ATM ক্যাশ-আউটে একজন গ্রাহকের চার্জ মাত্র শতাংশ। এছাড়া পাঠাও, সেবা XYZ, চালডাল. কম, যান্ত্রিক, আকাশ ডিটিএইচ, সহজ, ইজিট্র্যাক্স, টনিকের মতো জনপ্রিয় সেবাগুলোর মূল্য পরিশোধ করা যাবে ওয়ালেট দিয়ে। ওকে ওয়ালেট দেশের এফএমসিজি প্রতিষ্ঠানগুলিকে ডিজিটাল পেমেন্টের সুবিধা দেয়ার জন্য খুচরা বিক্রেতাদের মধ্যে নতুন বি টু বি পেমেন্ট সলিউশনও চালু করেছে।

অল্প দিনের মধ্যেই ওকে ওয়ালেট অ্যাপ থেকে সরাসরি বাস, এয়ার, ট্রেন, লঞ্চ, মুভি টিকিট কেনা যাবে, করা যাবে হোটেল বুকিং, পরিশোধ করা যাবে ইন্স্যুরেন্স প্রিমিয়াম। ডি-মানি, পে-ওয়েল, এসএসডিটেকের মতো প্রতিষ্ঠানের সঙ্গেও ওকে ওয়ালেট ভবিষ্যতে যৌথভাবে গ্রাহকদের বিভিন্ন সেবা দেবে।

দেশের সব স্থানে সমানভাবে ব্যাংকিং সেবা পৌঁছে দেয়া এখনো সম্ভব হয়নি। তাছাড়া অনেক শ্রেণী পেশার মানুষই আছে, যারা বিভিন্ন কারণে নিয়মিত ব্যাংকিং সেবার আওতায় আসেনি। তাদের সবার কথা মাথায় রেখেই ওকে ওয়ালেট দেশের সব জেলায় এজেন্ট-ডিস্ট্রিবিউটর নিয়োগ করেছে। বি টু বি পেমেন্ট সলিউশনের মাধ্যমে ওকে ওয়ালেট খুচরা বিক্রেতাদেরও -মানি সলিউশনের অন্তর্ভুক্ত করেছে। ওকে ওয়ালেটের মাধ্যমে ওয়ান ব্যাংক দেশের সব প্রাপ্তবয়স্কের জন্য ব্যাংকের বিভিন্ন সেবা উন্মুক্ত করতে চায়।

অনলাইন জালিয়াতি ঠেকাতে ওকে ওয়ালেট নিয়মিত এসএমএস, -মেইল, সোস্যাল মিডিয়ায় জনসচেতনতামূলক প্রচারণা চালায়। ওয়ান ব্যাংকের ব্রাঞ্চ, এজেন্ট-ডিস্ট্রিবিউটর পয়েন্টগুলোও এই প্রচারণায় সমানভাবে অংশ নিয়ে থাকে।

এছাড়া 2FA (Two Factor Authentication)-এর মাধ্যমে গ্রাহকদের আর্থিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়।

ওকে ওয়ালেটের সলিউশনটি তথ্য অর্থ সুরক্ষার সব আধুনিক ব্যবস্থাসংবলিত একটি সিস্টেম। প্রতিটি ওকে ওয়ালেট অ্যাকাউন্ট রেজিস্ট্রেশনের সময় গ্রাহকের তথ্য সঠিকভাবে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী যাচাই করা হয়। নিরাপত্তার পাশাপাশি ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড ( টি পি), ডিভাইস ব্লক, অ্যাকাউন্ট ব্লকের মতো মেকানিজমগুলো ওকে ওয়ালেটে তথ্য অর্থ সুরক্ষা নিশ্চিত করে।

ভবিষ্যতে ওকে ওয়ালেট আরো সহজ আধুনিক সেবা নিয়ে গ্রাহকের কাছে পৌঁছতে চায়। এছাড়া কৃষক, গার্মেন্ট কর্মী, ক্ষুদ্র মাঝারি ব্যবসায়ীদের জন্য ওকে ওয়ালেট বিভিন্ন ব্যাংকিং সেবা পরিকল্পনা করছে, যা দ্রুতই বাজারে আসবে। স্কুল ব্যাংকিং, ক্ষুদ্র ঋণ, সঞ্চয়, রেমিট্যান্সের মতো সেবাগুলো নিয়েও ওকে ওয়ালেট কাজ করছে।