আন্তর্জাতিক ব্যবসা

চারটি তুর্কি ব্যাংকের ঋণমান কমাল ফিচ

বণিক বার্তা ডেস্ক | ২১:০২:০০ মিনিট, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৮

তুরস্কের চারটি ব্যাংকের ঋণমান অবনমন করেছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ফিচ রেটিংস। স্থানীয় মুদ্রা লিরার অবনমনের পর সৃষ্ট ঝুঁকি এবং তুর্কি অর্থনীতির মুখ থুবড়ে পড়ার উচ্চ সম্ভাবনা দেখে ঋণমান কমিয়েছে ফিচ। খবর এএফপি।

আনাদোলুব্যাংক, ফিবাব্যাঙ্কা (ফিবা), সেকারব্যাংক এবং ওদেয়াব্যাংক— এ চারটি ব্যাংকের ঋণমান অবনমন করেছে ফিচ। ঋণমান নির্ধারণকারী সংস্থাটি আরো জানায়, ঋণমান অবনমনের মাধ্যমে বোঝা যাচ্ছে, ‘সাম্প্রতিক অস্থিরতার পর ব্যাংকের পারফরম্যান্স, সম্পদের মান, মূলধন, তারল্য এবং তহবিলায়ন প্রোফাইলে ঝুঁকি বেড়েছে।’ এর আগে গত মাসে ‘তহবিলায়ন পরিস্থিতি নেতিবাচক’ হওয়ার ঝুঁকি বৃদ্ধির কারণে তুরস্কের ২০টি আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ঋণমান কমিয়ে দিয়েছিল মুডি’স। এ সময় আরেক ঋণমান নির্ধারণকারী সংস্থা স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড পুওর’সকে (এসঅ্যান্ডপি) অনুসরণ করে তুর্কি সরকারের ঋণমান কমিয়ে জাঙ্ক স্তরে নিয়ে আসে মুডি’স।

ফিচের পক্ষ থেকে আরো বলা হয়েছে, চারটি ব্যাংকের ঋণমান অবনমনের সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীদের আস্থা ‘পতনের’ বিষয়টিও বিবেচনা করা হয়েছে। ঋণমানে অবনমন ঘটা ব্যাংকগুলোর মধ্যে আনাদোলু এবং ফিবাব্যাঙ্কার ঋণমান বিবি মাইনাস থেকে বি প্লাসে নেমেছে, সেকারব্যাংকের ঋণমান বি প্লাস থেকে বি এবং ওদেয়াব্যাংকের ঋণমান বিবি মাইনাস থেকে বি করা হয়েছে।

সোমবার প্রকাশিত সরকারি উপাত্তে দেখা গেছে, জুনে শেষ হওয়া দ্বিতীয় প্রান্তিকে তুরস্কের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি শ্লথ হয়ে ৫ দশমিক ২ শতাংশে নেমে এসেছে; যা প্রথম প্রান্তিকে ছিল ৭ দশমিক ৩ শতাংশ। তুরস্কের অর্থনীতির পরিস্থিতিসহ দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের অধীনে মুদ্রানীতির পরিচালনা নিয়ে এখনো উদ্বেগ বিরাজ করছে।

ন্যাটোর দুই মিত্র দেশ যুক্তরাষ্ট্র ও তুরস্কের তিক্ত বিতণ্ডার পর গত মাসে দুজন তুর্কি মন্ত্রীর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র। এ ঘটনার পাশাপাশি দেশের অর্থমন্ত্রী হিসেবে এরদোগান নিজের জামাতাকে নিয়োগ দিলে ডলারের বিপরীতে লিরার মানে মারাত্মক অবনমন হয়।

একদিকে মুদ্রা সংকট এবং অন্যদিকে উচ্চ মূল্যস্ফীতি সত্ত্বেও নামমাত্র স্বাধীন তুর্কি কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুদের হার বৃদ্ধি করতে পারেনি।