টকিজ

প্রসঙ্গ ‘এক যে ছিল রাজা’

জয়ার ‘রাজ্যজয়’...

ফিচার প্রতিবেদক | ২১:১৭:০০ মিনিট, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮

চমত্কার বললে ভুল হবে, কোনো বিশেষণের ফাঁদেও ফেলা যাবে না গত সোমবারের বিশেষ কিছু মুহূর্তের কথা। এদিন সৃজিত মুখার্জি পরিচালিত ‘এক যে ছিল রাজা’র ট্রেইলার প্রকাশ উপলক্ষে একসঙ্গে একই ছাদের নিচে হাজির হয়েছিলেন এ ছবির কলাকুশলীরা। নিজের অভিনীত ছবি বলে কথা! তাই কোনো দেরি না করে বাংলাদেশ থেকে উড়াল দিয়ে যথাসময়ে অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছে গিয়েছিলেন অভিনেত্রী জয়া আহসান। সবচেয়ে বড় কথা, ছবিটির ট্রেইলার দেখে হলুদরঙা পোশাকে হাস্যোজ্জ্বল জয়ার চোখে-মুখে যেন লেগেছিল তৃপ্তির ছোঁয়া। শুধু কি তাই! এ ছবির গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে যারা অভিনয় করেছেন, তাদের কাছ থেকেও জয়া পেয়েছেন ভূয়সী প্রশংসা। এছাড়া অপর্ণা সেন, অঞ্জন দত্তের মতো ব্যক্তিত্বদের সান্নিধ্যও কম উপভোগ্য ছিল না জয়ার কাছে।

সৃজিতের আগে একই বিষয় নিয়ে ১৯৭৫ সালে চলচ্চিত্র নির্মাণ হয়েছিল বাংলা সিনেমায়। ‘সন্ন্যাসী রাজা’ নামের ওই ছবিতে অভিনয় করেছিলেন মহানায়ক উত্তম কুমার। এ চরিত্রটিকে উত্তম কুমারের ক্যারিয়ারের অন্যতম অমর চরিত্র বলে ধরে নেয়া হয়। এদিকে সৃজিত বলছেন, তিনি বিখ্যাত ভাওয়াল সন্ন্যাসীকে অন্য দৃষ্টিকোণ থেকে তুলে আনার চেষ্টা করেছেন। একটি মামলাকে ঘিরে এগিয়েছে তার ছবির গল্প। যেখানে দেখা যায়, মৃত ঘোষণার ১২ বছর পর ফিরে আসেন ভাওয়াল রাজা। যিশু সেনগুপ্ত এ চরিত্রকে ধারণ করেছেন। এতে তার স্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় করবেন কলকাতার আরেক অভিনেত্রী রাজনন্দিনী পাল। দুই আইনজীবীর চরিত্রে থাকবেন অঞ্জন দত্ত ও অপর্ণা সেন। আর জমিদারের বোনের চরিত্রে অভিনয় করছেন জয়া আহসান। আসছে অক্টোবরের ১২ তারিখ কলকাতার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস প্রযোজিত এক যে ছিল রাজা মুক্তি পাবে। এ লক্ষ্যে এরই মধ্যে প্রচার-প্রচারণার কৌশল বাস্তবায়ন শুরু হয়ে গেছে।

জয়া টকিজকে আগেই বলেছিলেন, তার অভিনীত ঐতিহাসিক গল্পের পটভূমিকায় নির্মিত এ ছবি ও তার চরিত্র দর্শক গ্রহণ করবে একটু অন্য রকমভাবেই। যার প্রমাণ ছবিটির ২ মিনিট ১৩ সেকেন্ডের ট্রেইলারেও মিলেছে। অভিনয়ের শতভাগ মুন্সিয়ানা দিয়ে তরুণী থেকে বৃদ্ধা— এ দুই রূপে জয়া যথেষ্ট পারঙ্গমতার পরিচয় দিয়েছেন বলে দর্শক রায় দিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন জায়গায়। এদিকে জয়ার কাছে টকিজের প্রশ্ন ছিল, ‘এক যে ছিল রাজা’য় আপনার চরিত্রকে কীভাবে বিশ্লেষণ করবেন? জয়ার উত্তর: ‘আমি শুধু আমাকে ওই চরিত্রে ধারণ করার চেষ্টাটুকু করেছি, বিশ্লেষণ করবেন দর্শক, তাদের চোখে যে রায় ধরা দেবে, তা-ই মেনে নেব।’ সৃজিত কেমন পরিচালনা করলেন? সহকর্মীদের অভিনয় নিয়ে কিছু বলবেন? ‘সৃজিতের পরিচালনা নিয়ে আর বলার কিছু নেই। যেমন চান তেমনভাবেই তিনি গল্পকে ভিজুয়ালি দাঁড় করতে পারেন, এক্ষেত্রেও এর ব্যত্যয় ঘটেনি। আর আমার সহশিল্পীরা এক কথায় অতুলনীয়’— বলেন জয়া। এখন দেখার অপেক্ষা এক যে ছিল রাজার অফিশিয়াল ট্রেইলার যেভাবে বাজিমাত করেছে, এর কলাকুশলীরা যেভাবে প্রশংসা পাচ্ছেন, সেসবের প্রমাণ কতটুকু দিতে পারে আজ থেকে ঠিক এক মাস পর বড় পর্দায় মুক্তি পেতে যাওয়া এ ছবিটি। তবে যা-ই হোক, জয়া ভক্তদের প্রত্যাশা, এক যে ছিল রাজা এ অভিনেত্রীর চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারের আরেকটি মাইলফলক হয়ে ধরা দেবে, রাজ্য জয় করবেন এ অভিনেত্রী।

উল্লেখ্য, এক যে ছিল রাজা ছাড়াও জয়া আহসান অভিনীত কলকাতার আরো কয়েকটি ছবি রয়েছে মুক্তির অপেক্ষায়। সেগুলোর মধ্যে অন্যতম ‘বিসর্জন’ ছবির সিক্যুয়াল ‘বিজয়া’, ‘কণ্ঠ’, কবি জীবনানন্দ দাশের বায়োপিক অবলম্বনে নির্মিত ‘ঝরা পালক’ (এ ছবির শুটিং এখনো খানিকটা বাকি আছে)। এছাড়া রয়েছে ‘বৃষ্টি তোমাকে দিলাম’ নামে একটি থ্রিলারধর্মী ছবি।