আন্তর্জাতিক ব্যবসা

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মাহাথিরের ১০০ দিন

মালয়েশিয়ার প্রবৃদ্ধি পূর্বাভাস কমাল কেন্দ্রীয় ব্যাংক

বণিক বার্তা ডেস্ক | ১৯:১৩:০০ মিনিট, আগস্ট ১৯, ২০১৮

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ১০০ দিন পার করেছেন মাহাথির মোহাম্মদ। দেশটির অর্থনীতির সামনে পাহাড়সম ঝুঁকির মুখেই ক্ষমতা গ্রহণের শততম দিন পার করলেন তিনি। দ্বিতীয় প্রান্তিকে দেশটির অর্থনীতি এক বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে সবচেয়ে শ্লথগতিতে সম্প্রসারিত হয়েছে। এ সময় দেশটির জিডিপি প্রবৃদ্ধি প্রত্যাশার চেয়ে কম হওয়ার কারণে পুরো বছরের প্রবৃদ্ধি পূর্বাভাস কমিয়ে ৫ শতাংশ নির্ধারণ করেছে মালয়েশিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংক। চলতি হিসাবে উদ্বৃত্তও উল্লেখযোগ্যহারে কমে গেছে। খবর ব্লুমবার্গ ও সিনহুয়া।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর জিডিপি নিয়ে প্রথম ব্রিফিংয়ে নূর শামসিয়াহ মোহম্মদ ইউনূস বলেন, বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে জিডিপি প্রবৃদ্ধি হয়েছে সাড়ে ৪ শতাংশ; যা প্রত্যাশার চেয়ে কম। এ কারণেই পুরো বছরের প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস কমিয়ে ৫ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আগের পূর্বাভাসে অর্থনীতি সাড়ে ৫ থেকে ৬ শতাংশ হারে সম্প্রসারণ হবে বলে আভাস দেয়া হয়েছিল।

দ্বিতীয় প্রান্তিকে দেশটির সেবা, ম্যানুফ্যাকচারিং এবং নির্মাণ খাত যথাক্রমে সাড়ে ৬, ৪ দশমিক ৯ শতাংশ এবং ৪ দশমিক ৭ শতাংশ হারে সম্প্রসারিত হয়েছে। তবে কৃষি এবং খনি খাতের প্রবৃদ্ধি কমে আড়াই এবং ২ দশমিক ২ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকপ্রধানের মতে, জুন থেকে আগস্ট পর্যন্ত কর মওকুফ সুবিধার কারণে বেসরকারি খাতের ব্যয়ই মূলত চলতি বছর মালয়েশিয়ার প্রবৃদ্ধির অন্যতম পরিচালক হবে। প্রসঙ্গত, গত জুন থেকে গুডস অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্যাক্স (জিএসটি) বাতিল করেছে মালয়েশিয়া সরকার। সেপ্টেম্বর থেকে দেশটিতে নতুন বিক্রয় এবং সেবা কর চালু হবে।

এদিকে মালয়েশিয়ার চলতি হিসাবে উদ্বৃত্তও বেশ কমেছে এবং উদীয়মান বাজারের অস্থিরতা বেড়ে যাওয়ায় দেশটির মুদ্রাও চাপের মধ্যে রয়েছে। গত মে মাসে জাতীয় নির্বাচনে আকস্মিকভাবে জয়লাভ করেন ৯৩ বছর বয়সী মাহাথির। দায়িত্ব গ্রহণের পরপরই তিনি ভোক্তা কর বাতিল, চীনের সঙ্গে স্বাক্ষরিত শীর্ষ প্রকল্পগুলো পুনঃযাচাই এবং কিছু অবকাঠামো প্রকল্প বাতিলের মতো সিদ্ধান্ত নেন। রাজনীতির এ পটপরিবর্তন সর্বশেষ প্রান্তিকে দেশটির অর্থনীতিতে ব্যাপক প্রভাব ফেলে। এক বছর আগের তুলনায় সরকারি খাতের বিনিয়োগ ৯ দশমিক ৮ শতাংশ সংকুচিত হয়েছে। দেশটির চলতি হিসাবে উদ্বৃত্ত কমে ৩৯০ কোটি রিঙ্গিতে দাঁড়িয়েছে, যা প্রথম প্রান্তিকে ছিল দেড় হাজার রিঙ্গিত।

তবে সরকারি খাতে ব্যয় হ্রাস সাময়িক হবে বলে জানিয়েছেন নমুরা হোল্ডিংসের অর্থনীতিবিদ ব্রায়ান ট্যান।