আন্তর্জাতিক খবর

‘আন্তর্জাতিক আদালতও আমাকে থামাতে পারবে না’

বণিক বার্তা অনলাইন | ১৬:৩৩:০০ মিনিট, মার্চ ২০, ২০১৭

দেশব্যাপী চলমান দুর্নীতি ও মাদক বিরোধী যুদ্ধের জেরে চরম আকারে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ রয়েছে ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তের বিরুদ্ধে। দেশে-বিদেশে চলছে প্রতিবাদ। প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে অভিশংসন প্রস্তাব আনতে চান বিরোধীরা। এর পরিপ্রেক্ষিতে দুতার্তের মন্তব্য ‘আন্তর্জাতিক আদালতও আমাকে থামাতে পারবে না’।

স্থানীয় সময় রোববার (১৯ মার্চ) মায়ানমার সফরের আগে দুতার্তে বলেন, ‘আমি কোনো কিছুতেই ভীত নই এবং আমি এত সহজেই থামছি না। আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইইসিসি), অভিশংসন যদি আমার নিয়তি হয়ে থাকে, তবে আমি তা মেনে নেব। এসব কোনো কিছুই আমাকে থামাতে পারকে না।’

দুর্নীতি, অপরাধ ও মাদকের বিরুদ্ধে চলমান অভিযান চলবে এবং এটা সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরো ‘নিষ্ঠুর’ হবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন। চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে মৃতের সংখ্যা ৮ হাজার ছাড়িয়ে যাওয়ার পরেই এমন মন্তব্য করলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, গত বছর জুনে ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকেই মাদকবিরোধী অভিযানের নামে অবাধে হত্যাযজ্ঞ চালিয়ে আসছেন দুতার্তে। মাদকবিরোধী অভিযানে এ পর্যন্ত পুলিশের হাতে নিহত হয়েছেন ৮ হাজারের বেশি মানুষ।

এ ইস্যুতে মানবাধিকার সংগঠন ও পশ্চিমা দেশগুলোর তীব্র সমালোচনার শিকার হয়েছেন তিনি। বিরোধে জড়িয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গেও। ওয়াশিংটনের বদলে বেইজিংয়ের প্রতি ঝুঁকেছেন তিনি। সমালোচনা চলছে দেশের ভেতরেও।

দুতার্তের সমালোচনা করে গ্রেফতার হয়েছেন দেশটির প্রভাবশালী সিনেটর ও সাবেক মন্ত্রী লেইলা দে লিমা। অভিযোগ প্রমাণ হলে তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। দুতার্তের বিরুদ্ধে ফিলিপিনো কংগ্রেসের নিম্ন কক্ষে অভিশংসনের প্রস্তাব এনেছেন বিরোধীদলীয় কংগ্রেসম্যান গ্যারি আলেজানো।

সূত্র: আল জাজিরা ও আরটি