বাংলাদেশের সামনে ১১৪ রানের টার্গেট

প্রকাশ: জুন ১০, ২০২৪

ক্রীড়া প্রতিবেদক

টি-২০ ফরম্যাটে আটবারের মুখোমুখিতে কখনই দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারাতে পারেনি বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও তিনবারের দেখায় ফল যায় প্রোটিয়াদের পক্ষেই। আজ প্রথমবারের মতো প্রোটিয়াদের হারানোর অপূর্ব সুযোগ এসেছে। এজন্য বাংলাদেশকে করতে হবে ২০ ওভারে ১১৪ রান।

 

তবে টার্গেট ১১৪ হলেও কাজটি খুব সহজ না-ও হতে পারে। কারণ ভেন্যুটি যে নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়াম। চলতি বিশ্বকাপের সবচেয়ে আলোচিত ও বিতর্কিত পিচ এই মাঠের। এখানে আগের ম্যাচগুলোতে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে আগে ব্যাটিং করা দলগুলো। ব্যতিক্রম শুধু ভারত, যারা ১১৯ রানের পুঁজি নিয়েও পাকিস্তানকে হারিয়েছে।

 

শুরুতে ব্যাটিং করলে বিপদ, এটা জেনেও আজ টস জিতে আগে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেয়ার কারণ হিসেবে দলটির অধিনায়ক এইডেন মার্করাম বলেছেন, ব্যবহৃত উইকেটে খেলা হবে বলেই তারা এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

 

মার্করাম যে চিন্তা করেই ব্যাটিং নেন না কেন, সেই পরিকল্পনা তিনি কাজে লাগাতে পারেননি। বরং বাংলাদেশের বোলাররা মাঠের কন্ডিশনের পুরো সুবিধা আদায় করে নিয়েছে। বিশেষ করে, তরুণ পেসার তানজিম হাসান সাকিব শুরুতেই আগ্রাসী বোলিংয়ে নাস্তানাবুদ করেন প্রোটিয়াদের টপ অর্ডারে। সঙ্গে তাসকিন আহমেদও আগুন ঝরানো বোলিং করেন। এ দুজন নেন ৫টি উইকেট।

 

তানজিম ও তাসকিনের আগুণে বোলিংয়ে ২৩ রানে ৪ উইকেট হারায় প্রোটিয়ারা। যদিও এরপর ডেভিড মিলার ও হেনরিখ ক্লাসেন পঞ্চম উইকেট জুটিতে ৭৯ বলে ৭৯ রান করেন বিপর্যয় সামাল দিয়ে দলকে ভালো সংগ্রহের দিকে নিয়ে যান। শেষটা অবশ্য ভালো হয়নি তাদের। এই জুটি ভাঙার পরের ১৬ বলে উঠেছে মাত্র ১১ রান, এ সময় পতন হয় আরো দুটি উইকেটের।

 

তানজিম সাকিব ১৮ রানে তিনটি, তাসকিন ১৯ রানে দুটি ও রিশাদ হোসেন ৩২ রানে একটি উইকেট নেন। 


সম্পাদক ও প্রকাশক: দেওয়ান হানিফ মাহমুদ

বিডিবিএল ভবন (লেভেল ১৭), ১২ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫

বার্তা ও সম্পাদকীয় বিভাগ: পিএবিএক্স: ৫৫০১৪৩০১-০৬, ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন বিভাগ: ফোন: ৫৫০১৪৩০৮-১৪, ফ্যাক্স: ৫৫০১৪৩১৫