ইস্টার্ন হাউজিংয়ের ১৩৫ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন

প্রকাশ: মে ০৭, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

গত সপ্তাহের তিন কার্যদিবসে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত আবাসন খাতের কোম্পানি ইস্টার্ন হাউজিং লিমিটেডের প্রায় ১৩৪ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এ লেনেদন নিয়ে আলোচ্য সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সর্বোচ্চ লেনদেন তালিকায় শীর্ষে অবস্থান করছে কোম্পানিটি। স্টক এক্সচেঞ্জে সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

তথ্য অনুসারে, গত সপ্তাহে ইস্টার্ন হাউজিংয়ের মোট ১ কোটি ৯ লাখ ২৩ হাজার ৯১৫টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যার আর্থিক মূল্য ১৩৪ কোটি ৭২ লাখ ৭৪ হাজার টাকা। গত সপ্তাহে ডিএসইর মোট লেনদেনে কোম্পানিটির অবদান ছিল ৫ দশমিক ৫৯ শতাংশ। আলোচ্য সপ্তাহে কোম্পানিটির শেয়ারদর বেড়েছে ২ দশমিক ৫৪ শতাংশ। গত বুধবার লেনদেন শেষে ডিএসইতে ইস্টার্ন হাউজিংয়ের শেয়ারের সর্বশেষ ও সমাপনী দর দাঁড়িয়েছে ১২১ টাকায়। গত এক বছরে শেয়ারটির দর ৫১ টাকা ৮০ থেকে ১৪৭ টাকা ৯০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করেছে।

সর্বশেষ অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদ অনুসারে, চলতি ২০২২-২৩ হিসাব বছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে (জুলাই-মার্চ) ইস্টার্ন হাউজিংয়ের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ৮১ পয়সা, আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল ৩ টাকা ৯৩ পয়সা। আর সর্বশেষ তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৬৮ পয়সা, আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ৩০ পয়সা। এ বছরের ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৭৭ টাকা ৫২ পয়সায়।

৩০ জুন সমাপ্ত ২০২১-২২ হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের ২০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে ইস্টার্ন হাউজিং। আলোচ্য হিসাব বছরে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৫ টাকা ৮৮ পয়সা, আগের হিসাব বছরে যা ছিল ৩ টাকা ৯৮ পয়সা। সে হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ১ টাকা ৯০ পয়সা বা ৪৭ দশমিক ৭৪ শতাংশ। গত বছরের ৩০ জুন শেষে কোম্পানিটির এনএভিপিএস দাঁড়ায় ৭৪ টাকা ৭১ পয়সায়, আগের হিসাব বছর শেষে যা ছিল ৭০ টাকা ৩৩ পয়সায়।

২০২০-২১ সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে কোম্পানিটি। আলোচ্য হিসাব বছরে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৩ টাকা ৯৮ পয়সা, আগের হিসাব বছরে যা ছিল ৩ টাকা ১২ পয়সা। ৩০ জুন ২০১৯-২০ সমাপ্ত হিসাব বছরেও শেয়ারহোল্ডারদের ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল কোম্পানিটি। ২০১৮-১৯ হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের ২০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ লভ্যাংশ দেয় তারা। ২০১৮ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের ২৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল কোম্পানিটি।

১৯৯৪ সালে শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ইস্টার্ন হাউজিংয়ের অনুমোদিত মূলধন ২০০ কোটি ও পরিশোধিত মূলধন ৯৩ কোটি ৩৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা। রিজার্ভে রয়েছে ৬০৪ কোটি ৩ লাখ টাকা। মোট শেয়ার সংখ্যা ৯ কোটি ৩৩ লাখ ৪৫ হাজার ১৫৩। এর মধ্যে উদ্যোক্তা পরিচালকদের কাছে ৫০ দশমিক ৩৬, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ২২ দশমিক ৩১, বিদেশী বিনিয়োগকারীদের কাছে দশমিক শূন্য ১ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর হাতে বাকি ২৭ দশমিক ৩২ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।


সম্পাদক ও প্রকাশক: দেওয়ান হানিফ মাহমুদ

বিডিবিএল ভবন (লেভেল ১৭), ১২ কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫

বার্তা ও সম্পাদকীয় বিভাগ: পিএবিএক্স: ৫৫০১৪৩০১-০৬, ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন বিভাগ: ফোন: ৫৫০১৪৩০৮-১৪, ফ্যাক্স: ৫৫০১৪৩১৫