শুক্রবার | সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০ | ৯ আশ্বিন ১৪২৭

বিশেষ সংখ্যা

মাইক্যাশ

মার্কেন্টাইল ব্যাংক ব্যাংকিং সুবিধাবঞ্চিত জনসাধারণের মধ্যে মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সেবা দেয়ার লক্ষ্য নিয়ে ২০১২ সালে মোবাইল ব্যাংকিং কার্যক্রম শুরু করে। পরবর্তী সময়ে জনসাধারণকে অধিকতর মোবাইল ব্যাংকিং সুবিধা প্রদানের জন্য মাইক্যাশ নামে রিব্র্যান্ডিং করে দেশব্যাপী এর সেবা বিস্তৃত করেছে। এখানে উল্লেখ্য, মাইক্যাশ বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক অনুমোদিত মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস, যার প্রতিটি টেলিকম অপারেটরের সঙ্গে সংযোগ রয়েছে।

বর্তমানে মাইক্যাশ বাংলাদেশের জনগণের কাছে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আর্থিক পরিষেবা প্রদান করে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ক্যাশ ইন, ক্যাশ আউট, অর্থ প্রেরণ, মাই টপ আপ, ইউটিলিটি বিল পেমেন্ট মার্চেন্ট পেমেন্ট। সেই সঙ্গে মাইক্যাশ মোবাইল নেটওয়ার্কের মাধ্যমে বাংলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে আর্থিক লেনদেনের সুযোগ সৃষ্টির প্রত্যয়ে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে। এরই মধ্যে মাইক্যাশ বাংলাদেশের মানুষের কাছে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে দেশব্যাপী বিস্তৃত পরিষেবা প্রদান করে যাচ্ছে। এখানে উল্লেখ্য, মাইক্যাশ পরিষেবা প্রতিটি চ্যানেলের মাধ্যমে পাওয়া যায়, যার মধ্যে ইউএসএসডি, অ্যাপ এসএমএস রয়েছে।

মাইক্যাশ ধারাবাহিকভাবে উদ্ভাবনী আর্থিক পরিষেবা চালু করার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ, যার ফলে সুবিধাজনক সুরক্ষিত পরিষেবার মাধ্যমে গ্রাহক আরো সহজে লেনদেন করতে পারে। মাইক্যাশ অর্থ প্রেরণ গ্রহণ করা ছাড়াও মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসের একটি সম্পূর্ণ ইকো সিস্টেম, যেখানে গ্রাহক বিভিন্ন খাতে মাইক্যাশের মাধ্যমে অর্থের ব্যবহার করতে পারে। বর্তমানে মাইক্যাশের ৩৩ হাজারেরও বেশি এজেন্ট পয়েন্ট রয়েছে, যেখান থেকে গ্রাহক মাইক্যাশ সেবা গ্রহণ করতে পারে। প্রচলিত ক্যাশ ইন, ক্যাশ আউট সেবার পাশাপাশি মাইক্যাশ ইউটিলিটি বিল পেমেন্ট কালেকশন করপোরেট ফান্ড কালেকশন (ই২ই) সেবা দিয়ে যাচ্ছে। এখানে লক্ষণীয় যে ২০১৪ সালে শুরু হওয়া মাইক্যাশের মাধ্যমে লেনদেন ধারাবাহিকভাবে উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

সর্বস্তরের গ্রাহকদের মধ্যে মাইক্যাশের ব্যাপক জনপ্রিয়তা সৃষ্টির লক্ষ্যে মাইক্যাশ বর্তমানে ইউটিলিটি বিল পেমেন্ট কালেকশন সেবাটি প্রসারের কাজ করছে। মুহূর্তে মাইক্যাশ বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড, ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড (ডিপিডিসি), ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি (ডেসকো), ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, ঢাকা ওয়াসা কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের মাসিক বিল সাফল্যের সঙ্গে সংগ্রহের মাধ্যমে গ্রাহকদের কাছ থেকে আস্থা অর্জন করেছে।

এখানে উল্লেখ্য, বর্তমানে বেশির ভাগ ইউটিলিটি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান প্রিপেইড বিলিং সিস্টেম চালু করেছে। বিভিন্ন ইউটিলিটি সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের অনলাইন অফলাইন প্রিপেইড বিল প্রদানের ক্ষেত্রে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। মাইক্যাশের মাধ্যমে ডিপিডিসি ডেসকো প্রিপেইড বিল খুব সহজেই রিচার্জ করা যায়। সেবাটি চালু হওয়ার ফলে গ্রাহকের পাশাপাশি সেবাটির মাধ্যমে ইউটিলিটি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানও উপকৃত হচ্ছে। যেহেতু বিল পেমেন্ট প্রক্রিয়াটি খুব সহজ গ্রাহকরা ব্যাংক শাখার কাতারে না দাঁড়িয়েই তাদের মূল্যবান সময় বাঁচাতে পারে, তাই গ্রাহকের কাছ থেকে ইতিবাচক সাড়া অংশগ্রহণ প্রতি মাসে বাড়ছে।

তদুপরি ২০২০ সালে মাইক্যাশ নতুন গ্রাহক এজেন্ট তৈরির পাশাপাশি পুরনো গ্রাহক এজেন্ট সক্রিয় করার মাধ্যমে লেনদেন বৃদ্ধি করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। জীবনটাকে সহজ করুন প্রতিপাদ্য নিয়ে মাইক্যাশ গ্রাহকদের মধ্যে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে নিরাপদ সহজ আর্থিক লেনদেনের ব্যবস্থা প্রতিনিয়ত প্রসারিত করে যাচ্ছে। আমরা আশা করছি, খুব দ্রুত আরো কিছু সেবা আমরা মাইক্যাশের সাথে সম্পৃক্ত করার মাধ্যমে গ্রাহকের জীবনকে সহজ করতে পারব।