পর্যটন সম্প্রসারণে নতুন লক্ষ্যমাত্রা থাইল্যান্ডের

ছবি : বণিক বার্তা

পর্যটন খাতের সম্প্রসারণে নতুন পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছেদ্য ট্যুরিজম অথরিটি অব থাইল্যান্ড (টিএটি)’ পরিকল্পনায় ঘোষিত লক্ষ্যমাত্রা অনুসারে, ২০২৫ সালে দেশটি পর্যটন খাতে চার কোটি বিদেশী পর্যটক দশমিক ট্রিলিয়ন বাথ আয় করতে চায়। সম্প্রতি সরকার নিয়ন্ত্রিত পর্যটন কর্তৃপক্ষটির চেয়ারম্যান নাতথ্রিয়া থাউয়ি উং তথ্য জানিয়েছেন। টিএটি চেযারম্যানের ঘোষণা অনুসারে, থাইল্যান্ড সরকার দেশটিকে পর্যটন গন্তব্য হিসেবে আন্তর্জাতিকভাবে প্রতিষ্ঠিত করতে সব ধরনের সহযোগিতা করতে রাজি। সম্প্রসারণ কৌশলের মধ্যে রয়েছে বৈশ্বিকভাবে বড় ইভেন্টগুলোর কেন্দ্র হিসেবে থাইল্যান্ডকে প্রতিষ্ঠা করা। তার জন্য ঘোষণা করা বিভিন্ন মেয়াদের প্যাকেজ। পর্যটকদের সুবিধা মাথায় রেখে মেডিকেল সুবিধার মতো বিভিন্ন মাত্রার সেবার কথাও বলা হয়। টিএটি প্রকাশিত প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, ‘থাইল্যান্ডের অর্থনীতির জন্য ট্যুরিজম অন্যতম প্রধান শক্তি। ফলে টিএটি বিষয়টি নিয়ে গভীরভাবে কাজ করে যাচ্ছে। চেয়ারম্যান নাতথ্রিয়া নিশ্চয়তা দিয়েছেন, পর্যটন খাত থেকে চলতি বছরের আয় ট্রিলিয়ন বাথ অতিক্রম করবে। আর সেটা হলে তা আগের করা লক্ষ্যমাত্রা অতিক্রম করে যাবে। তিনি বলেন, ‘চলতি বছরে কোটি ৯০ লাখ বিদেশী পর্যটক আকর্ষণ করা সম্ভব। তবে আমরা মুহূর্তে পর্যটক বাড়ানোর চেষ্টা করে যাচ্ছি। ২০২৫ সালে চলতি বছরের তুলনায় -১০ শতাংশ বেশি আয় করতে চায় টিএটি। এর মধ্যে প্রতিষ্ঠানটি পর্যটন খাত থেকে আয় ২০২৫ সালে দশমিক ট্রিলিয়ন বাথে উন্নীত করার লক্ষ্যমাত্রা হাতে নিয়েছে। তবে লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করতে হলে চার কোটি বিদেশী পর্যটক অভ্যন্তরীণভাবে ২২ কোটি পর্যটকের নিশ্চয়তা থাকতে হবে। খবর দ্য নেশন

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন