বার্ষিক মুনাফার পূর্বাভাস বাড়িয়েছে ম্যাসি’স

বণিক বার্তা ডেস্ক

বার্ষিক মুনাফার পূর্বাভাস বাড়িয়েছে মার্কিন রিটেইল চেইন ম্যাসিস। উচ্চ দামের জামাকাপড় সৌন্দর্য পণ্যগুলোর চাহিদায় স্থিতিশীল থাকায় মুনাফা বাড়ছে প্রতিষ্ঠানটির। যদিও মূল্যস্ফীতির কারণে নিম্ন আয়ের পরিবারগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় মুনাফার পূর্বাভাস বাতিল করেছে কোহলস। ম্যাসি মূলত ধনী এবং কোহল নিম্ন আয়ের পরিবারগুলোকে লক্ষ্য করে পণ্য বিক্রি করে থাকে।

সিএনবিসির একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ধনী ক্রেতারা সামাজিক অনুষ্ঠানগুলোয় ফিরে আসার কারণে বিলাসপণ্যের খুচরা বিক্রেতা ম্যাসিসের দামি হ্যান্ডব্যাগ, পারফিউম, পোশাক উপহার বিক্রি বেড়ে গিয়েছে। অন্যদিকে নিম্ন আয়ের ভোক্তাদের চাহিদা পূরণ করা কোহল বার্ষিক মুনাফার পূর্বাভাস প্রত্যাহার করে নিয়েছে। ক্রমবর্ধমান দামের কারণে চাহিদা কমে যাওয়ায় এমন পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

পরামর্শক প্রতিষ্ঠান জেন হ্যালি অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েটসের বিশ্লেষক জেসিকা র্যামিরেজ বলেন, কোহলসের গ্রাহকরা ম্যাসিসের গ্রাহকদের থেকে অনেক বেশি মূল্যস্ফীতির মুখোমুখি হচ্ছেন। ক্রেতারাও এখন অনেক বেশি ভ্রমণ অফিস করছেন এবং ম্যাসিসের কাছে সেই পণ্যগুলোর ভালো সংগ্রহ রয়েছে।

খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানগুলো চলতি বছর অতিরিক্ত মজুদ নিয়েও সমস্যায় পড়েছে। চার দশকের সর্বোচ্চ মূল্যস্ফীতির কারণে অতিপ্রয়োজনীয় নয়, এমন পণ্যে ব্যয় কমিয়ে দিয়েছেন ভোক্তারা। ফলে পোশাক গৃহস্থালি সামগ্রীর বিক্রি ব্যাপকভাবে কমে গিয়েছে। অন্যদিকে বেড়ে গিয়েছে সংস্থাগুলোর মজুদ। অবস্থায় মজুদ কমাতে মূল্যছাড় দিয়ে পণ্য বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছে প্রতিষ্ঠানগুলো।

তৃতীয় প্রান্তিকে ম্যাসিসের মজুদ গত বছরের একই সময়ের তুলনায় মাত্র শতাংশ বেড়েছে। যেখানে কোহলসের মজুদ বাড়ার হার ৩৪ শতাংশ। ম্যাসি ছুটির কেনাকাটার প্রচার নিয়ে সতর্ক করে জানিয়েছে, বড়দিনের কেনাকাটা আগেভাগেই শুরু হতে পারে। যেখানে এর আগে উল্টো বক্তব্য দিয়েছিল খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানটি।

এদিকে সম্প্রতি প্রকাশিত সরকারি এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অক্টোবরে যুক্তরাষ্ট্রের খুচরা বিক্রি সেপ্টেম্বরের তুলনায় দশমিক শতাংশ বেড়েছে। গত মাসে দেশটিতে গাড়ি গ্যাসের উচ্চমূল্যের কারণে খুচরা বিক্রি বেড়েছে। সেপ্টেম্বর শেষে যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত হানা হারিকেন ইয়ানের কারণে ৭০ হাজার গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় অক্টোবরে গাড়ির দাম ঊর্ধ্বমুখী থাকা খুচরা বিক্রি বাড়াতে ভূমিকা রেখেছে। আবার একই সময় অটো গ্যাস ব্যতীত খুচরা ব্যয় দশমিক শতাংশ বেড়েছে।

ওয়ালমার্ট এক প্রতিবেদনে জানায়, প্রত্যাশার চেয়ে সংস্থাটির আয় বেড়েছে। গত মাসে ওয়ালমার্টের মোট আয়ের ৫০ শতাংশের বেশি এসেছে মুদি ব্যবসা থেকে। যেখানে টার্গেটের হার ২০ শতাংশ। চলতি বছর তৃতীয় প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) খুচরা বিপণন প্রতিষ্ঠান টার্গেটের মুনাফা কমেছিল ৫২ শতাংশ।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন