রাশিয়ার শাস্তি ও ভেটো ক্ষমতা কেড়ে নেয়ার দাবি জেলেনস্কির

বণিক বার্তা অনলাইন

ছবি : বিবিসি

আগ্রাসনের জন্য জাতিসংঘের কাছে রাশিয়ার ‘ন্যায্য শাস্তি’ দাবি করেছেন ইউক্রেনের রাষ্ট্রপতি ভলোদিমির জেলেনস্কি। রাশিয়াকে শাস্তির আওতায় আনতে একটি বিশেষ যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল গঠন করার আহ্বান জানান তিনি। আর্থিক ক্ষতিপূরণ এবং নিরাপত্তা পরিষদে মস্কোর ভেটো ক্ষমতা কেড়ে নেয়ারও দাবি জানান ইউক্রেনীয় নেতা। খবর বিবিসি ও রয়টার্স।

বুধবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৭তম অধিবেশনে এক ভিডিও ভাষণে এসব দাবি জানান জেলেনস্কি।

এছাড়া ইউক্রেনের জন্য আরো সামরিক সহায়তা এবং বিশ্ব মঞ্চে রাশিয়াকে শাস্তি দেয়ার জন্য একটি শান্তি ‘ফর্মুলা’ নির্ধারণ করে দেন তিনি। 

বক্তব্যের শুরুতেই এ যুদ্ধকে অবৈধ উল্লেখ করে বিপর্যয়কর অশান্তি সৃষ্টির জন্য রাশিয়াকে দায়ী করেন ইউক্রেনের রাষ্ট্রপতি। ভাষণের একপর্যায়ে অধিবেশনে থাকা অনেক বিশ্ব নেতা দাঁড়িয়ে জেলেনস্কিকে অভিবাদন জানান।

নিজের এই ভাষণে ভ্লাদিমির পুতিনের ‘মাতৃভূমিকে রক্ষার’ জন্য রাশিয়ায় আংশিক সেনা সমাবেশের ঘোষণার কথা উল্লেখ করে ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট বলেন, এই পদক্ষেপটি আমাদের দেখিয়ে দিয়েছে যে, মস্কো শান্তি আলোচনার বিষয়ে আগ্রহী নয়।

এদিকে ইউক্রেনে রুশ অধিকৃত কয়েকটি এলাকা মস্কোর সঙ্গে অন্তর্ভুক্ত করে নিতে গণভোট আয়োজনের ডাক দিয়েছে রুশপন্থী বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতারা। এ ঘটনারও নিন্দা জানান তিনি। চলতি সপ্তাহেই গণভোটের আয়োজনের কথা জানিয়েছে তারা।

জেলেনস্কি বলেন, ইউক্রেনের ভূখণ্ড অবৈধভাবে দখল ও হাজার হাজার মানুষকে হত্যার জন্য রাশিয়াকে শাস্তি দিতে একটি বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠন করতে হবে। একইসঙ্গে নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য হিসাবে রাশিয়ার কাছে থাকা ‘ভেটো’ ক্ষমতা প্রত্যাহার করার জন্যও জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন