শনিবার | আগস্ট ১৩, ২০২২ | ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯  

খবর

দূরপাল্লায় ২২ শতাংশ, মহানগরীতে ১৬ শতাংশ ভাড়া বাড়ল

নিজস্ব প্রতিবেদক

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে সারাদেশে নতুন ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, দূরপাল্লার পথে ভাড়া ২২ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। এছাড়া ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরীতে চলাচলরত গণপরিবহনে ভাড়া বাড়ানো হয়েছে ১৬ দশমিক ২৭ শতাংশ। এর ফলে মহানগরে প্রতি কিলোমিটারে বাস ও মিনিবাসে ভাড়া ৩৫ পয়সা এবং দূরপাল্লায় বাসভাড়া বাড়ল ৪০ পয়সা।

আজ শনিবার বনানীতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) কার্যালয়ে অংশীজনের সঙ্গে বাসভাড়া পুনঃনির্ধারণী বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন বিআরটিএ চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার। উপস্থিত ছিলেন সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী, সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্লাহসহ অংশীজন।

বিকাল ৫টায় শুরু হওয়া বৈঠক চলে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত। পরে ব্রিফ করেন সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী এবং বিআরটিএ চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার।

বিআরটিএ চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার বলেন, জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির ফলে আমরা আজ বাসভাড়া পুনঃনির্ধারণী বৈঠক করেছি। পাশাপাশি আমদানি ব্যয় বাড়ায় বাসের বিভিন্ন সামগ্রীর মূল্যবৃদ্ধির কারণেও বাস মালিকদের কিছু দাবি ছিল। বৈঠকে সবার আলোচনা পর্যালোচনার ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছি যে, এখন থেকে মহানগর পর্যায়ে কিলোমিটারে বাসে ২.৫০ টাকা, মিনিবাসে ২.৪০ টাকা ভাড়া হবে। দূরপাল্লার বাসে ভাড়া হবে কিলোমিটারপ্রতি ২.২০ টাকা।

আগে ভাড়া ছিল মহানগর পর্যায়ে কিলোমিটারে বাসে ২.১৫ টাকা, মিনিবাসে ২.১০ টাকা। দূরপাল্লার বাসে ভাড়া কিলোমিটারপ্রতি ১.৮০ টাকা ছিল। সর্বনিম্ন ভাড়া বাসে ১০ টাকা, মিনিবাসে ৮ টাকা।

প্রতিবার ভাড়া নির্ধারণ করে দেয়া হলেও তা কার্যকর হয়না, এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান বলেন, গতবার আমরা ভাড়া নির্ধারণ করার পরে যৌথ অভিযান চলেছে কয়েকমাস। যারা অতিরিক্ত ভাড়া নিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি। 

এবারো আগামী এক সপ্তাহ ভাড়ার বিষয়টি মনিটরিং করা হবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। কোথাও কোনো অনিয়ম পেলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন