শনিবার | আগস্ট ১৩, ২০২২ | ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯  

টকিজ

৭ মুক্তিযোদ্ধার গল্প নিয়ে ‘ওরা ৭ জন’

সাবিহা জামান শশী

‘ওরা ৭ জন’ সিনেমার শ্যুটিং

স্বাধীনতার অর্ধশত বছর পার করেছে বাংলাদেশে। কয়েক বছরে স্বাধীনতার গল্প নিয়ে একাধিক সিনেমা নির্মাণ হয়েছে। চলতি বছরের ডিসেম্বরে আসছে খিজির হায়াত খান পরিচালিত মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সিনেমা ওরা জন সম্প্রতি সিনেমাটি বাংলাদেশ ফিল্ম সেন্সর বোর্ড থেকে বিনা কর্তনে ছাড়পত্র পেয়েছে।

নিয়ে খিজির হায়াত খান বলেন, ওরা জন মুক্তিযোদ্ধাদের গল্প নিয়ে নির্মিত একটি চলচ্চিত্র। আমাদের স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম চলচ্চিত্রের নাম ছিল ওরা ১১ জন যেটা ছিল স্বাধীনতার গল্প নিয়ে নির্মিত। স্বাধীনতার ৫০ বছর পর আমরা চেষ্টা করেছি মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে আর একটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে। সে সময়ে যে মানুষগুলো পরিবার-পরিজন সব ফেলে দেশের টানে রণাঙ্গনে যুদ্ধে গিয়েছে, এমন সাতজন বীর মুক্তিযোদ্ধার বীরগাথা গল্প এখানে দেখানো হয়েছে। আমরা দেখাতে চেয়েছি তারা কী চিন্তা করত। যে মানুষগুলো সৈনিক ছিল না তারা কিছুদিনের ট্রেনিং নিয়ে সুসজ্জিত বাহিনী তৈরি করে গেরিলা যুদ্ধ করে বিজয় নিয়ে এসেছে। তাদের ভাবনা আমরা ওরা জনের মাধ্যমে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি।

সিনেমাটার শুটিংয়ের বিষয়ে জানতে চাইলে খিজির হায়াত জানান, সিনেমাটার শুটিং আমরা শুরু করেছিলাম গত বছরের ২৭ সেপ্টেম্বর। ৪৫ দিনে আমরা সিনেমাটার শুটিং শেষ করেছি। মুক্তিযুদ্ধের সময়ে নম্বর সেক্টর উত্তর সিলেটের সিলেট-তামাবিল রোড থেকে পশ্চিমে ময়মনসিংহ এবং জকিগঞ্জ করিমগঞ্জ সীমান্ত পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল। আমরা ওই অঞ্চলের জাফলং, গোয়াইন ঘাট, লালাখালে শুটিং করেছি।

ছবিতে সাতজন মুক্তিযোদ্ধা এবং অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইন্তেখাব দিনার, মম, ইমতিয়াজ বর্ষণ, সাইফ খান, খালিদ মাহবুব তুর্য, শাহরিয়ার ফেরদৌস সজীব, শিবা সানু, তাসনিম তাসফি, জয় রাজ, নাফিস আহমেদ, হামিদুর রহমান। সিনেমায় যে সাতজন মুক্তিযোদ্ধাদের দেখানো হবে তাদের একজনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন নির্মাতা খিজির হায়াত খান। নিয়ে পরিচালক বলেন, সিনেমায় আমি একজন এক্স পাকিস্তানি মেজর। সে সময়ে তো বাংলাদেশের সেনাবাহিনী গঠিত হয়নি। মেজর লুত্ফরের ভূমিকায় আমি অভিনয় করেছি। সিনেমায় দেখানো হবে আমি একজন পাকিস্তানি আর্মি অফিসার, যে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর যুদ্ধে যুক্ত হয়। অনেকটা আমাদের বীর মুক্তিযোদ্ধা খালেদ মোশাররফ আর মোহম্মদ আবদুর রবের মতো। এমনিতে আমি ক্যাডেট কলেজে পড়েছি। সেনাবাহিনীতেও যুক্ত ছিলাম, যদিও আমি সেটা ছেড়ে এসেছি। আমার ব্যাকগ্রাউন্ডের সঙ্গে চরিত্রটা মিলে যায়। আমি তখনই অভিনয় আর নির্দেশনা একসঙ্গে দিই, যখন তা সিনেমার জন্য প্রয়োজনীয় মনে হয়। সিনেমার জন্য এটা দরকার ছিল। আশা করি দর্শক যখন সিনেমাটা দেখবে তারা বিষয়টি বুঝবেন।

নভেম্বরে আসবে ওরা জনের ট্রেলার। তবে এর আগেই সিনেমার গান প্রকাশিত হবে। ওয়েস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের প্রযোজনায় সিনেমাটির সংগীতের দায়িত্বে ছিলেন নাজমুল আবেদীন আবির। এতে গান গেয়েছেন ব্যান্ড অসমাপ্ত।

খিজির হায়াত খান পরিচালিত প্রথম সিনেমা অস্তিত্বে আমার দেশ ২০০৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমাটিতে বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমানকে নিয়ে নির্মিত। অন্যদিকে ২০১০ সালে নির্মাতা নির্মাণ করেন বাংলাদেশের প্রথম স্পোর্টস-ফিল্ম জাগো সিনেমাটি সে সময়ে দর্শকদের হলে টেনেছিল।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন