শুক্রবার | আগস্ট ১৯, ২০২২ | ৪ ভাদ্র ১৪২৯  

টেলিকম ও প্রযুক্তি

অপোর বিরুদ্ধে ৫৫ কোটি ডলার কর ফাঁকির অভিযোগ ভারতের

বণিক বার্তা ডেস্ক

চীনা স্মার্টফোন নির্মাতা কোম্পানি শাওমি, অপো ভিভোর বিরুদ্ধে আর্থিক লেনদেনসংক্রান্ত অনিয়মের অভিযোগ এনে একাধিকবার কঠোর ব্যবস্থা নিয়েছে ভারত সরকার। এবার অপোর বিরুদ্ধে কর ফাঁকির অভিযোগ তুলেছে তারা। ভারতীয় তদারকি সংস্থার তদন্তে উঠে এসেছে, চীনা কোম্পানিটি ৫৫ কোটি ১০ লাখ ডলার কর ফাঁকি দিয়েছে। খবর নিক্কেই এশিয়া।

ভারতীয় রাজস্ব বিভাগ অপোর বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর কিছু তথ্য পেয়েছে। যেখানে অপোর বিরুদ্ধে বড়সড়ো দুর্নীতির প্রমাণ পাওয়া গেছে। সবকিছু ছাপিয়ে বিপুল পরিমাণ কর ফাঁকির বিষয়টি সামনে এসেছে। বিষয়ে গতকাল বুধবার ভারত সরকারের পক্ষ থেকে একটি বিবৃতি দেয়া হয়, যেখানে বলা হচ্ছে অপোর বিরুদ্ধে হাজার ৩৯০ কোটি রুপির কর ফাঁকির প্রমাণ পেয়েছে রাজস্ব বিভাগ। ধারণা করা হচ্ছে, এজন্য চীনা সংস্থাটিকে কঠিন শাস্তির মুখে পড়তে হতে পারে।

সরকারের পক্ষ থেকে আরো জানানো হয়েছে, স্মার্টফোন উৎপাদনের জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রাংশ আমদানির ক্ষেত্রে অপো করের অর্থ পরিশোধ থেকে বিরত থেকেছে। চীনা সংস্থাটি বিরাট অংকের রয়্যালটি মূল্য পরিশোধ করেছে, অথচ এজন্য যে কর প্রদান করতে হয় তা করেনি। বলা হচ্ছে, কর ফাঁকি দেয়ার অপরাধে অপো ইন্ডিয়া অপো চীন ভারত সরকারের বিরাট জরিমানার মুখে পড়তে পারে।

পুরো বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের পক্ষ থেকে অপোর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি অপো ইন্ডিয়া।

এদিকে ফোরজি ফাইভজি পেটেন্ট নিয়ে জার্মান আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে ফিনল্যান্ডের স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান নকিয়া চীনের অপো। জার্মানির ম্যানহাইম আঞ্চলিক আদালত অপোর দায়ের করা মামলা খারিজ করে দেয় এবং কোম্পানিটির লাইসেন্সের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তোলে। এর দরুন অপো ওয়ানপ্লাসের ফোন জার্মানির বাজারে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন