শনিবার | আগস্ট ১৩, ২০২২ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯  

পণ্যবাজার

ভারতে শুল্কমুক্ত ভোজ্যতেল আমদানিতে কোটা নির্ধারণ

বণিক বার্তা ডেস্ক

শুল্কমুক্ত ভোজ্যতেল আমদানিতে ব্যবসায়ীদের জন্য কোটা নির্ধারণ করে দিয়েছে ভারত সরকার। এসঅ্যান্ডপি গ্লোবাল কমোডিটি ইনসাইটের এক প্রতিবেদনে জানা যায়, সুবিধার আওতায় দেশটির সরকার প্রতিটি ব্যবসায়ীকে সর্বোচ্চ দুই লাখ টন পর্যন্ত সয়াবিন সূর্যমুখী তেল আমদানির অনুমতি দেবে। মূলত অভ্যন্তরীণ বাজারে মূল্য নিয়ন্ত্রণের উদ্দেশ্যে শুল্কমুক্ত আমদানি সুবিধা প্রদান করা হবে।

আগামী বছরের ৩০ জুন অথবা ইস্যুর তারিখ থেকে এক বছর পর্যন্ত শুল্কমুক্ত কোটা সুবিধা বহাল থাকবে। জানা যায়, শুল্কমুক্ত অপরিশোধিত সয়াবিন তেল আমদানির জন্য ৯৯ জন আবেদনকারীকে কোটা সুবিধা ইস্যু করা হয়েছে। অন্যদিকে অপরিশোধিত সূর্যমুখী তেল আমদানির জন্য ৮৫টি ফার্মকে কোটা ইস্যু করা হয়েছে।

ফার্মগুলোর সার্টিফায়েড তেল পরিশোধনাগারের উৎপাদন সক্ষমতার আলোকে কোটা সুবিধা ইস্যু করেছে ভারতের বৈদেশিক বাণিজ্য বিভাগের মহাপরিচালকের দপ্তর। ব্যবসায়ীরা জানান, শুল্কমুক্ত সুবিধায় আমদানীকৃত এসব ভোজ্যতেল আগস্টের মধ্যে ভারতের বাজারে প্রবেশ করবে।

তবে করমুক্ত সুবিধার কথা ঘোষণা দেয়ার এক মাস পর কোটা বরাদ্দ প্রদান করায় অনেক ব্যবসায়ীই স্বল্পকালীন চাহিদা পূরণে তাদের মজুদ পূর্ণ করেছেন। ফলে বিদ্যমান মজুদ শেষ হওয়ার আগে শুল্কমুক্ত সুবিধায় ভোজ্যতেল আমদানির সম্ভাবনা অনেকটা কম। অন্যদিকে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের ফলে ইউক্রেন থেকে ভারতে সূর্যমুখী তেলের চালান একেবারেই বন্ধ হয়ে গেছে। এর মধ্যে দুই লাখ টন অপরিশোধিত সূর্যমুখী তেল আমদানির কোটা ব্যবসায়ীরা পূরণ করতে পারবেন কিনা তা নিয়ে সন্দেহ। ফলে ভারতের বাজারে সয়াবিন পাম অয়েলের বিকল্প তেলটির দাম কমার সম্ভাবনা অনেকটাই কম।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন