শনিবার | আগস্ট ১৩, ২০২২ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯  

টকিজ

শিশুতোষ সিনেমায় মিথিলা

ফিচার প্রতিবেদক

প্রথমবারের মতো একটি শিশুতোষ সিনেমায় অভিনয় করছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। শাহরিয়ার কবিরের লেখানুলিয়াছড়ির সোনার পাহাড়উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত হচ্ছে এটি। ২০২০-২১ অর্থবছরে অনুদান পাওয়া সিনেমাটি পরিচালনা করছেন লুবনা শারমিন। এতে আরো অভিনয় করছেন স্বপ্নিল, হিয়া, রাহিন, ইশরাত প্রমুখ।

২০ জুলাই চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে সিনেমাটির শুটিং শুরু হবে বলে জানা গেছে। যদিও সময় শুটিংয়ে অংশ নিতে পারছেন না মিথিলা। কারণ সময়ে অফিসের কাজে তানজানিয়া, উগান্ডা আর সিয়েরা লিওনে থাকতে হবে তাকে। ব্র্যাক ইন্টারন্যাশনালের হেড অব আরলি চাইল্ডহুড ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামার হিসেবে এসব দেশের শিশুর স্বাভাবিক বিকাশে কাজ করছেন তিনি। ফলে দেশে ফিরে অক্টোবরে সিনেমাটির শুটিং করবেন।

প্রসঙ্গে মিথিলা বলেন, ‘সিনেমাটির জন্য সম্প্রতি চুক্তিবদ্ধ হয়েছি। তবে জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আমাকে উগান্ডা, তানজানিয়া আর সিয়েরা লিওনে থাকতে হবে। যার কারণে সময় সিনেমাটির শুটিং করতে পারব না। আমার অংশের কাজ হবে অক্টোবরের পরে। আমার সঙ্গে সেভাবেই তাদের কথা হয়েছে।

সিনেমাটিতে যুক্ত হওয়া প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেন, ‘আমার জীবনের প্রায় পুরোটাই কাটছে শিশুদের সঙ্গে। প্রায় এক বছর ধরে লুবনা আপার সঙ্গে কথা বলছি সিনেমাটি নিয়ে। এর মধ্যেই অনুদানও পেল। সব মিলিয়ে এটা আমার জন্য অনেক ভালো লাগার একটা প্রজেক্ট হতে চলেছে।

দিন আগেই বড় পর্দায় অভিষেক ঘটেছে জনপ্রিয় টিভি অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলার। গত ১৭ জুন প্রথমবারের মতো প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় তার সিনেমা। এদিন বিরল এক রেকর্ডও গড়েন অভিনেত্রী। বড় পর্দায় অভিষেকের দিনেই ঢাকা কলকাতায় আলাদা দুটি সিনেমা মুক্তি পায় তার। ঢাকায়অমানুষআর কলকাতায়আয় খুকু আয়সিনেমা দুটি মুক্তির পর প্রশংসা আর ভালোবাসায় ভাসছেন অভিনেত্রী।

বাংলাদেশে মিথিলার বড় কাজ হতে যাচ্ছে কাজলরেখা। নির্মাতা গিয়াস উদ্দিন সেলিম এক দশকের বেশি সময় ধরে নির্মাণের চেষ্টা করছিলেন সিনেমাটি। এটি মৈমনসিংহ গীতিকা অবলম্বনে নির্মিত হবে। সিনেমার শুটিং শুরু হবে শিগগিরই। কাজলরেখা মূলত রূপকথার গল্প। প্রায় ৪০০ বছর আগের কাহিনী। সে লক্ষ্যে লক্ষ্মীপুর এলাকায় এখন চলছে সিনেমার সেট নির্মাণকাজ। ২০১৯-২০ অর্থবছরে সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত চিত্রনাট্যের রূপ প্রদান সংলাপ বিন্যাস করেছেন পরিচালক নিজেই। কাজলরেখা সিনেমার একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন মিথিলা। সিনেমায় যুক্ত হওয়া প্রসঙ্গে মিথিলা বলেন, ‘কাজলরেখা সিনেমার গল্প পরিচালক গিয়াস উদ্দিন সেলিম আমাকে শুনিয়েছিলেন দুই বছর আগে। তিনি বলেছিলেন, কোন চরিত্রটি আমার পছন্দ। আমি গল্প শুনে বলেছিলাম কঙ্কন দাসীর চরিত্রটি। তারপর পছন্দের চরিত্রটি করছি। কাজলরেখায় কঙ্কন দাসী হয়ে আসছি আমি।

খুব মনোযোগ দিয়ে কাজটা করতে চান জানিয়ে বলেন, ‘ভালো কাজে চ্যালেঞ্জ সবসময়ই থাকবে। মৈমনসিংহ গীতিকা অবলম্বনে সিনেমার কাহিনী। একটা সময়ে মানুষের মুখে মুখে কাহিনী শোনা যেত। বহু বছরের গল্প হলেও বাঙালিরা কাজলরেখার সঙ্গে অনেক পরিচিত। সেজন্য সিনেমাটির প্রতি দর্শকদের বাড়তি আগ্রহ যেমন থাকবে, একজন অভিনয়শিল্পী হিসেবে আমারও অভিনয়ের প্রতি বাড়তি মনোযোগ থাকবে।কঙ্কন দাসী চরিত্র নিয়ে বলেন, ‘কঙ্কনের বিনিময়ে কেনা হয় বলে নাম হয়ে যায় কঙ্কন দাসী। কঙ্কন দাসী অনেক উচ্চাকাঙ্ক্ষী একজন নারী, ভীষণ বুদ্ধিমতীও। চরিত্রে অভিনয়ের অনেক সুযোগ রয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন