শনিবার | আগস্ট ১৩, ২০২২ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯  

টকিজ

মহেশ ভাটের আক্রোশের শিকার হয়েছিলেন সুস্মিতা সেন

ফিচার ডেস্ক

বলিউড কিংবা হলিউড পর্দায় বিনোদন দুনিয়ার যে স্বরূপ দেখা যায় বাস্তবে কিন্তু এটা জটিল। টিকে থাকার জন্য প্রতিনিয়ত নিজেকে প্রমাণ দিতে হয় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের। মিস ইউনিভার্সের মুকুট জিতেও বলিউডে পা দিয়েই পরিচালকের আক্রোশের শিকার হয়েছে অনেকেই। তালিকায় রয়েছেন সাবেক মিস ইউনিভার্স সুস্মিতা সেনও। তার প্রথম সিনেমার পরিচালক মহেশ ভাটের আক্রোশের মুখোমুখি হতে হয়েছিল।

দস্তকসিনেমা দিয়ে বলিউডে যাত্রা করেছিলেন সুস্মিতা সেন। সিনেমাটির পরিচালক ছিলেন মহেশ ভাট। সম্প্রতি অভিনেতা লেখক টুইঙ্কল খান্নার সঙ্গে একটি চ্যাটে সুস্মিতা সেন নিয়ে কথা বলেন। সুম্মিতা বলেন, ‘দস্তকের শুটিং সেটে মহেশ ভাট সবার সামনেই আমাকে অভিনয়ের জন্য অপমান করেছিলেন। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে চলে যায় যে, পরে বাধ্য হয়ে শুটিং সেট থেকে বের হয়ে গিয়েছিলাম।

নিয়ে সুস্মিতা সেন বলেন, সিনেমার জন্য মহেশ ভাট আমাকে ডেকেছিলেন। আমি যাওয়ার পর তিনি আমাকে চরিত্রটি শুটিং করতে বলেন। যেহেতু আমার আগে অভিনয় করার অভিজ্ঞতা নেই, তাই এতে ঘাবড়ে গেলে তিনি আমাকে সাহস দিয়ে বলেন, ‘আমি তো বলছি না তুমি একজন সেরা অভিনেত্রী, তবে আমি একজন ভালো পরিচালক। কথা শোনার পর আত্মবিশ্বাস নিয়ে প্রথম শট দিই, যেখানে আমাকে রাগ করে কানের দুল খুলে ছুড়ে ফেলতে হবে। সত্যি খুব বাজে অভিনয় করেছিলাম। তিনি একজন দুর্দান্ত পরিচালক আর আমি তার সামনে এত খারাপ অভিনয় করেছিলাম। তাই আমাকে ৪০ জন মিডিয়ার লোক ২০ জন প্রযোজনা সহকারীর সামনে প্রকাশ্যে আক্রমণ করেছিলেন।

মহেশ ভাট আমাকে বলেছিলেন, ‘তুমি কী নিয়ে মিস ইউনিভার্সের মতো জায়গা থেকে এসেছো। অভিনয় করে তুমি কখনো জীবন চালাতে পারবে না।এটা শুনে আমি কান্না করে সবার সামনে বের হয়ে আসতে গেলে তিনি আমাকে থামাতে আসেন। আমি তখন চিত্কার করে মহেশ ভাটকে বলেছিলাম, ‘আপনি আমার সঙ্গে এভাবে কথা বলতে পারেন না।জবাবে মহেশ ভাট আমার হাত ধরে বলেছিলেন, ‘এবার ক্যামেরার সামনে তোমার রাগ প্রকাশ করো।

সুস্মিতা সেন নিয়ে আরো বলেন, এরপর আমি আবার শুটিং শুরু করি। সে সময়ে আমার এতটাই রাগ হচ্ছিল যে কান থেকে দুল খোলার সময়ে আমার কান কিছুটা কেটে গিয়েছিল, সেদিকে নজর না দিয়ে নিজের সেরাটা দিয়ে ঠিকভাবে অভিনয় করে যাচ্ছিলাম। মহেশ ভাট একজন অসাধারণ পরিচালক। তবে ভালো অভিনয় আদায় করে নেয়ার জন্য এমনটা করেছিলেন কিনা মহেশ ভাট নিয়ে কিছু বলেননি সুস্মিতা সেন।

বিনোদন দুনিয়ার পরিবেশ নিয়ে প্রায়ই কথা বলেন একসময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী টুইঙ্কল খান্না। বর্তমানে লেখালেখিতে ব্যস্ত থাকা তারকা বলেন, ‘বছরের পর বছর ধরে কিছু পরিচালক শিল্পের নামে কর্মক্ষেত্রে অস্বস্তিকর পরিবেশ তৈরি করেছেন। বিশেষ করে নব্বইয়ের দশকে পরিচালকরা সেটে নারী অভিনেত্রীদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করলেও পুরুষ অভিনেতাদের সঙ্গে এমনটা করতেন না।

১৯৯৪ সালে মিস ইউনিভার্সের মুকুট জয় করেন সুস্মিতা সেন। এর পর ১৯৯৬ সালে দস্তকের পর একাধিক বক্স অফিস হিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন তিনি। এর মধ্য উল্লেখযোগ্যবিবি নাম্বার ওয়ান’, ‘ফিজা’, ‘ম্যায় হুঁ নাম্যায়নে পেয়ার কিউ কিয়া মতো সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। ২০২০ সালে আরিয়া ওয়েব সিরিজের মধ্য দিয়ে ওটিটি প্লাটফর্মে কাজ শুরু করেন বলিউড ডিভা। আরিয়ার কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করে সবার প্রশংসা কুড়িয়েছেন সুস্মিতা সেন। এছড়া নিয়মিত মডেলিং নিয়ে ব্যস্ত আছেন সফল অভিনেত্রী।

 

সূত্র: দি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন