শুক্রবার | আগস্ট ১৯, ২০২২ | ৪ ভাদ্র ১৪২৯  

পণ্যবাজার

আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি অব্যাহত

বণিক বার্তা ডেস্ক

আন্তর্জাতিক বাজারে টানা তিনদিনের মতো বেড়েছে অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম। শীর্ষ উত্তোলক দেশ সৌদি আরব সংযুক্ত আরব আমিরাত লক্ষণীয় মাত্রায় উত্তোলন বাড়াতে সক্ষম হবে না বলে ধারণা করা হচ্ছে। অন্যদিকে লিবিয়া একুয়েডরে রাজনৈতিক অস্থিরতার প্রভাবে সরবরাহ সংকট আরো তীব্র হওয়ার আশঙ্কা। মূলত এসব কারণেই ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা তৈরি হয়েছে পণ্যটির বাজারে। খবর রয়টার্স।

তথ্য বলছে, গতকাল নিউইয়র্ক মার্কেন্টাইল এক্সচেঞ্জে (নিমেক্স) অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের মার্কিন বাজার আদর্শ ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েটের (ডব্লিউটিআই) ভবিষ্যৎ সরবরাহ মূল্য ডলার ৬৫ সেন্ট বা দশমিক ৫০ শতাংশ বেড়েছে। প্রতি ব্যারেলের মূল্য স্থির হয়েছে ১১১ ডলার ২২ সেন্টে। এর আগের কার্যদিবসে পণ্যটির দাম দশমিক ৮০ শতাংশ বেড়েছিল।

অন্যদিকে আন্তর্জাতিক বাজার আদর্শ ব্রেন্টের দাম ডলার ৮৩ সেন্ট বা দশমিক ৫০ শতাংশ বেড়েছে। প্রতি ব্যারেলের মূল্য স্থির হয়েছে ১১৬ ডলার ৯২ সেন্টে। এর আগের কার্যদিবসে বাজার আদর্শটির দাম দশমিক শতাংশ বেড়েছিল।

জ্বালানি তেল রফতানিকারক দেশগুলোর জোট ওপেকর সদস্যদের মধ্যে শুধু সৌদি আরব সংযুক্ত আরব আমিরাতেই বর্তমানে অতিরিক্ত উত্তোলন সক্ষমতা রয়েছে। দেশ দুটি রাশিয়ার সরবরাহ ঘাটতি অন্যান্য দেশের দুর্বল উত্তোলন সামাল দিতে সক্ষম হবে বলে প্রত্যাশা করছিলেন বিশ্লেষকরা। কিন্তু এখন বলা হচ্ছে, দেশ দুটি মধ্যমেয়াদি সক্ষমতা সীমার একবারে কাছাকাছি অবস্থান করছে। এতে বাজার আরো সংকুচিত হয়ে উঠতে পারে।

এদিকে একুয়েডরে সরকারবিরোধী আন্দোলনের জেরে দুদিনের মধ্যেই অপরিশোধিত জ্বালানি তেল উত্তোলন বন্ধ হয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করেছে দেশটির জ্বালানি মন্ত্রণালয়। ওপেকের সাবেক সদস্য দেশটি আন্দোলনের আগে দৈনিক লাখ ২০ হাজার ব্যারেল করে জ্বালানি তেল উত্তোলন করছিল। অন্যদিকে লিবিয়ার ন্যাশনাল অয়েল করপোরেশন তিনদিনের মধ্যে গালফ অব সিরত অঞ্চলে ফোর্স মেজার আরোপ করতে পারে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন