শুক্রবার | আগস্ট ১২, ২০২২ | ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯  

খবর

এপিএ চুক্তি সই অনুষ্ঠানে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী

কাজে দায়িত্বহীনতার প্রমাণ পেলেই কঠোর শাস্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক

পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেছেন, বর্তমান সরকারের ২০৪১ সালের উন্নত বাংলাদেশের লক্ষ্য অর্জনের জন্য আমরা দৃঢপ্রতিজ্ঞ। প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের দক্ষতা এবং দায়বদ্ধতা বৃদ্ধির মাধ্যমে অভীষ্ট লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি প্রবর্তন করা হয়েছে। মাসিক সভার অপেক্ষা না করে নিজ নিজ উদ্যোগে মাঠ পর্যায়ের কাজ তদারকি করে জানাবেন। কাজে দায়িত্বহীনতার প্রমাণ পেলে তার জন্য কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা রয়েছে। যার যার দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে হবে। সব কিছুই ঊর্ধ্বতন পর্যায়ে তদারকি সম্ভব না। দেশের উন্নয়নে আপনিও একজন অংশীদার, মনোভাব নিয়ে কাজ করতে হবে।

গতকাল পানি ভবনের কনফারেন্স রুমে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি ২০২২-২৩ সই বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি ২০২০-২১-এর পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম বলেন, ভালো কাজের যেমন পুরস্কার রয়েছে তেমনি খারাপ কাজের জন্য শাস্তি থাকতে হবে। আমাদের কর্মকালীন কাজ যথাযথভাবে সম্পন্ন করে যেতে চাই। যেখানে যার গাফিলতি পাওয়া যাবে সেখানেই তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংস্থা পর্যায়ে ৯৪ দশমিক শূন্য পয়েন্ট পেয়ে প্রথম স্থান অর্জন করেছে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড; জোন পর্যায় ৯৩ দশমিক ৪৭ পয়েন্ট পেয়ে প্রথম স্থান অর্জন করেছে দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চল, বাপাউবো, চট্টগ্রাম; সার্কেল পর্যায়ে ৯১ দশমিক ৯৫ পয়েন্ট পেয়ে প্রথম স্থান অর্জন করেছে কক্সবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ড; পওর বিভাগ পর্যায়ের অফিসের মধ্যে ৯১ দশমিক ৮২ পয়েন্ট পেয়ে প্রথম স্থান অর্জন করেছে কক্সবাজার পওর বিভাগ; বিশেষ ক্যাটাগরিতে (প্রকল্প) ৭৬ দশমিক ৮১ পয়েন্ট পেয়ে প্রথম স্থান অর্জন করেছে হাওর ফ্লাড ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড লাইভলিহুড ইমপ্রুভমেন্ট প্রজেক্ট।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন