শুক্রবার | আগস্ট ১৯, ২০২২ | ৪ ভাদ্র ১৪২৯  

শেয়ারবাজার

কারণ ছাড়াই বাড়ছে শাইনপুকুর সিরামিকসের শেয়ারদর

নিজস্ব প্রতিবেদক

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত শাইনপুকুর সিরামিকস লিমিটেডের শেয়ারদর লেনদেন অস্বাভাকিভাবে বাড়ার পেছনে অপ্রকাশিত কোনো ধরনের মূল্যসংবেদনশীল তথ্য নেই। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) চিঠির জবাবে গতকাল তথ্য জানিয়েছে সিরামিক খাতের কোম্পানিটি।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, বছরের জুন থেকেই ডিএসইতে ঊর্ধ্বমুখী শাইনপুকুর সিরামিকসের শেয়ারদর। এদিন কোম্পানিটির শেয়ারদর ছিল ৩৫ টাকা ২০ পয়সা। সর্বশেষ গতকাল লেনদেন শেষে কোম্পানিটির শেয়ারের সমাপনী দর বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫১ টাকা ৮০ পয়সায়। অন্যদিকে সাম্প্রতিক সময়ের মধ্যে গত ১৪ জুন কোম্পানিটির শেয়ার সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে। এদিন শেয়ারটির লেনদেন ছিল কোটি ৫২ লাখ ৭৭ হাজার ৮৩৭টি। সর্বশেষ গতকাল শাইনপুকুর সিরামিকসের ৫৫ লাখ ৬৮ হাজার ৩৭৩টি শেয়ার হাতবদল হয়েছে।

সর্বশেষ অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, চলতি ২০২১-২২ হিসাব বছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে (জুলাই-মার্চ) শাইনপুকুর সিরামিকসের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৭ পয়সা। আগের হিসাব বছরের এসই সময়ে যা ছিল ১৪ পয়সা। আর তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ) ইপিএস হয়েছে ১৭ পয়সা। আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল পয়সা। ৩১ মার্চ ২০২২ শেষে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৩১ টাকা ৮৪ পয়সা। আগের হিসাব বছরের একই সময় শেষে যা দাঁড়িয়েছিল ৩০ টাকা ১০ পয়সা।

৩০ জুন সমাপ্ত ২০২০-২১ হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের দশমিক শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে শাইনপুকুর সিরামিকস। সময়ে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী নিট মুনাফা হয়েছে কোটি ৬৩ লাখ টাকা, যা আগের বছরে ছিল কোটি ১৫ লাখ টাকা। সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৩২ পয়সা। যেখানে আগের বছরে ইপিএস ছিল ২১ পয়সা।

২০০৮ সালে পুঁজিবাজারে আসা শাইনপুকুর সিরামিকসের অনুমোদিত মূলধন ৫০০ কোটি টাকা। পরিশোধিত মূলধন ১৪৬ কোটি ৯৬ লাখ ৬০ হাজার টাকা। রিজার্ভে রয়েছে ৩০৩ কোটি ২৬ লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট শেয়ার সংখ্যা ১৪ কোটি ৬৯ লাখ ৬৬ হাজার ৫৫। এর মধ্যে উদ্যোক্তা পরিচালকদের কাছে ৫০ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে শতাংশ সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে বাকি ৪৪ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

ডিএসইতে গতকাল শাইনপুকুর সিরামিকস শেয়ারের সর্বশেষ সমাপনী দর ছিল ৫১ টাকা ৮০ পয়সা। গত এক বছরে শেয়ারটির দর ২৪ টাকা ৫০ পয়সা থেকে ৫৩ টাকা ৬০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন