শুক্রবার | আগস্ট ১২, ২০২২ | ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯  

শিল্প বাণিজ্য

ডব্লিউটিও এমসি ১২ নিয়ে বাণিজ্য সচিবের প্রেস ব্রিফিং

এলডিসি গ্র্যাজুয়েশনের পরও কয়েক বছর বাজার সুবিধাপ্রাপ্তির আশা

নিজস্ব প্রতিবেদক

এলডিসি গ্র্যাজুয়েশনের পরও কয়েক বছর বাজার সুবিধাপ্রাপ্তির আশা রয়েছে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ। গতকাল সচিবালয়ে ডব্লিউটিও মিনিস্টারিয়াল কনফারেন্স (এমসি ১২) উপলক্ষে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন তিনি। সময় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এবং ডব্লিউটিও সেলের মহাপরিচালক মো. হাফিজুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

প্রেস ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, ১২-১৬ জুন সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় অনুষ্ঠিত মিনিস্টারিয়াল কনফারেন্সে (এমসি ১২) এলডিসি গ্র্যাজুয়েশনের পর আরো কয়েক বছর বাজার সুবিধা অব্যাহত রাখার বিষয়ে প্রস্তাব গ্রহণের দাবি তোলে বাংলাদেশে। এলডিসি গ্র্যাজুয়েশনের পর ১২ বছর বাজার সুবিধা পাওয়ার সময় বাড়ানোর প্রস্তাব থাকলেও তা পরবর্তী সময়ে ছয়-নয় বছর বাড়ানোর দাবি জোরালো হয়। সম্মেলনে বিশ্ববাণিজ্য সংস্থার আওতায় প্রাপ্ত সুবিধাগুলো আরো কিছু সময় পর্যন্ত বাড়ানোর যৌক্তিকতা আছে বলে সম্মেলনে অভিমত প্রকাশ করা হয়। এর ফলে পরবর্তী সময়ে বিষয়ে আলোচনার পথ আরো সুগম হলো। আশা করা হচ্ছে, ২০২৩ সালের ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য এমসি ১৩ সম্মেলনে ভালো কিছু ফল পাওয়া যাবে। সম্মেলনে বাংলাদেশের দেয়া প্রস্তাবগুলো জোরালোভাবে সমর্থন করা হয়।

বাণিজ্য সচিব বলেন, এমসি ১২ সম্মেলনে মৎস্য খাতে ভর্তুকির বিষয়ে একটি চুক্তি অনুমোদিত হয়েছে। এত অবৈধ ফিশিং ভেসেলে কোনো ভর্তুকি দেয়া যাবে না প্রয়োজনের অতিরিক্ত মৎস্য আহরণ করা যাবে না। তবে এলডিসিভুক্ত কোনো দেশ সিদ্ধান্ত অমান্য করলে সেক্ষেত্রে কোনো মামলা করা যাবে না। এছাড়া, কভিড-১৯ ভবিষ্যৎ মহামারী মোকাবেলা করার জন্য সংশ্লিষ্ট সেক্টরের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে প্রযুক্তি হস্তান্তরের বিষয়ে গুরুত্ব দিয়ে ট্রিপস চুক্তি অনুযায়ী বাণিজ্য সহজ করার ওপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। সম্মেলনে বাংলাদেশের প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে, খাদ্যদ্রব্য রফতানির ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা আরোপ না করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

সচিব আরো বলেন, মিনিস্ট্রিয়াল কনফারেন্স চলাকালে বাণিজ্যমন্ত্রী সিঙ্গাপুর, নেপাল, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ইউরোপিয়ান পার্লামেন্ট সদস্যদের সঙ্গে পৃথক পৃথক সভা করেন। এতে দেশগুলোতে রফতানি বাণিজ্য বৃদ্ধির ওপর গুরুত্ব আরোপ করা হয় এবং এলডিসি গ্র্যাজুয়েশনের পরও বাংলাদেশের জন্য বাজার সুবিধা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানানো হয়। সময় নেপালের সঙ্গে পিটিএ স্বাক্ষর নিয়ে আলোচনা করা হয় সিঙ্গাপুর বাংলাদেশের সঙ্গে এফটিএ স্বাক্ষরের আগ্রহ প্রকাশ করে বলে জানান বাণিজ্য সচিব।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন