শুক্রবার | আগস্ট ১২, ২০২২ | ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯  

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

অস্ট্রেলিয়ায় উড়োজাহাজ ভ্রমণের চাহিদা শক্তিশালী

বণিক বার্তা ডেস্ক

উচ্চমূল্যস্ফীতি ক্রমবর্ধমান সুদের হার অব্যাহত থাকা সত্ত্বেও অস্ট্রেলিয়ায় উড়োজাহাজ ভ্রমণের শক্তিশালী চাহিদা রয়েছে। দেশটির কান্তাস এয়ারওয়েজ ভার্জিন অস্ট্রেলিয়ার অভ্যন্তরীণ ভ্রমণ বুকিং ঊর্ধ্বমুখী রয়েছে। তবে এভিয়েশন ফুয়েলের উচ্চমূল্যের কারণে ভাড়া বাড়ানোর চিন্তা করছে উড়োজাহাজ পরিবহন সংস্থাগুলো। খবর রয়টার্স।

চাহিদা বাড়ায় অস্ট্রেলিয়ার বৃহত্তম দুই এয়ারলাইনসের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট প্রাক-মহামারী পর্যায়কে ছাড়িয়ে গিয়েছে। তবে ভাড়া বাড়িয়ে জ্বালানির উচ্চমূল্যের সঙ্গে ভারসাম্য আনতে কান্তাস এয়ারওয়েজ আগামী জুলাই আগস্টের কিছু ফ্লাইট বাতিল করেছে।

ধরনের আরো পদক্ষেপ নেয়া হতে পারে বলেও জানিয়েছে সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী অ্যালান জয়েস। তিনি বলেন, আমরা আন্তর্জাতিকভাবে ব্যাপক চাহিদা দেখছি। এটি আমাদের জ্বালানির দামের সঙ্গে ভারসাম্য আনতে সহায়তা করছে। তবে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটে ভাড়া বাড়ানোর মাধ্যমে ভারসাম্য আনতে সক্ষমতা কমানোর প্রয়োজন রয়েছে। আমরা এখন পদক্ষেপ নিয়েই কাজ করছি।

অন্যদিকে ভার্জিন অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী জেন হার্ডলিকা বলেন, আমরা দুই ধাপে ভাড়া বাড়ানোর মাধ্যমে খরচের ভারসাম্য নিয়ে আসার চেষ্টা করছি। তবে অভ্যন্তরীণ বাজারের ৩৩ শতাংশ হিস্যার লক্ষ্যে পৌঁছনোর আগে আমাদের সক্ষমতা কমানোর পরিকল্পনা নেই। কারণ বর্তমানে অভ্যন্তরীণ ভ্রমণে শক্তিশালী চাহিদা রয়েছে। এজন্য আমরা সতর্কভাবে সক্ষমতা ব্যবস্থাপনা মূল্যবৃদ্ধির সমন্বয়ে ভারসাম্য বজায় রাখব।

২০২০ সালে মার্কিন বেসরকারি ইক্যুইটি ফার্ম বেজ ক্যাপিটাল ভার্জিন অস্ট্রেলিয়াকে কিনে নিয়েছিল। সংস্থাটি এখন পুঁজিবাজারে সর্বজনীনভাবে তালিকাভুক্ত নয়। জেন হার্ডলিকা বলেন, এপ্রিলে মুনাফায় ফিরেছে এয়ারলাইনসটি। আগামী বছরের প্রথম দিকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের লক্ষ্য নেয়া হয়েছে। তবে সময়টি বাজারের অবস্থার ওপর নির্ভর করবে বলেও জানান তিনি।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন