শনিবার | আগস্ট ১৩, ২০২২ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯  

দেশের খবর

শেরপুরে স্ত্রী, শাশুড়ি ও চাচা শ্বশুরকে কুপিয়ে হত্যা

বণিক বার্তা প্রতিনিধি, শেরপুর

শেরপুরের শ্রীবর্দীতে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রী, শাশুড়ি চাচাশ্বশুরকে কুপিয়ে হত্যা করেছেন মন্টু মিয়া নামে এক ব্যক্তি। বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার কাকিলাকুঁড়া ইউনিয়নের খোশালপুর পুটল গ্রামে হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে। হামলায় আহত শ্বশুরসহ আরো তিনজন আশঙ্কাজনক অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। ঘটনায় গতকাল ভোররাতে পুলিশ মন্টু মিয়াকে গ্রেফতার করেছে।

নিহতরা হলেন মন্টু মিয়ার স্ত্রী মনিরা বেগম (৪০), শাশুড়ি শেফালী বেগম (৬০) চাচাশ্বশুর মাহমুদ হাজি (৬৫) আহতরা হলেন শ্বশুর মনু মিয়া (৭৫), মনু মিয়ার ছেলে শাহাদাৎ হোসেন বাচ্চুনী বেগম (৫২) স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ১৭ বছর আগে জলার শ্রীবর্দী উপজেলার কাকিলাকুঁড়া ইউনিয়নের খোশালপুর পুটল গ্রামের মনু মিয়ার কন্যা মনিরা বেগমের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী তাঁতিহাটি ইউনিয়নের গেরামারা গ্রামের হাইম উদ্দিনের ছেলে মন্টু মিয়ার বিয়ে হয়। কিন্তু বিয়ের পর থেকেই তাদের দাম্পত্য জীবনে নানা কলহের শুরু হয়েছিল।

কলহ নিয়ে দফায় দফায় মনিরা তার বাবার বাড়ি ফিরে গেলেও মন্টু মিয়া তাকে সালিশ-বৈঠক করে ফিরিয়ে নিয়ে যেতেন। সর্বশেষ কয়েক দিন আগে ফের দাম্পত্য কলহের জের ধরে মনিরা তার দুই ছেলেমেয়ে নিয়ে বাবার বাড়ি চলে আসেন। এবারও মন্টু নানা বাহানা করলেও মনিরার মন গলেনি। সাফ জানিয়ে দেন, তিনি আর স্বামীর বাড়ি ফিরে যাবেন না। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মন্টু বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে তার শ্বশুরবাড়িতে বোরকা পরে ছদ্মবেশ ধারণ করে ধারালো দা-ছুরি নিয়ে হামলা চালায়। প্রথমে তার স্ত্রীকে রান্নাঘরে ঢুকে দা দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে। সময় তার ডাক-চিত্কারে শ্বশুর-শাশুড়িসহ পরিবারের সদস্যরা ছুটে এলে একে একে ছয়জনকে কুপিয়ে পালিয়ে যায় মন্টু।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন