বুধবার | জুন ২৯, ২০২২ | ১৫ আষাঢ় ১৪২৯  

আন্তর্জাতিক খবর

প্রতারণার অভিযোগে

স্যামসাংকে সাড়ে ৯৬ লাখ মার্কিন ডলার জরিমানা

বণিক বার্তা অনলাইন

প্রতারণার অভিযোগে স্মার্টফোন প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান স্যামসাংকে এক কোটি ৪০ লাখ অস্ট্রেলীয় ডলার (৯৬ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার) জরিমানা করেছে আদালত। প্রতিষ্ঠানটি তাদের প্রস্তুতকৃত স্মার্টফোন নিয়ে প্রতারণামূলক বিজ্ঞাপনের কারণে এ জরিমানার মুখোমুখি হয়েছে। ওই বিজ্ঞাপনে স্যামসাং দাবি করেছিল তাদের স্মার্টফোনগুলো সুইমিং পুল অথবা সমুদ্রের পানির মধ্যে ব্যবহার করা যেতে পারে। খবর রয়টার্স।

অস্ট্রেলিয়ার প্রতিযোগিতা নিয়ন্ত্রক সংস্থা স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার বলেছে, স্যামসাং ইকেট্রনিক্সের স্থানীয় একটি ইউনিটকে এক কোটি ৪০ লাখ অস্ট্রেলীয় ডলার (৯৬ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার) জরিমানা করেছে অস্ট্রেলিয়ার একটি আদালত। মূলত স্যামসাংয়ের কিছু স্মার্টফোনে পানি-প্রতিরোধক বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে প্রতারণার অভিযোগে জরিমানার নির্দেশ দেয় ওই আদালত।

অস্ট্রেলিয়ান কম্পিটিশন অ্যান্ড কনজিউমার কমিশন (এসিসিসি) জানিয়েছে, স্যামসাং অস্ট্রেলিয়া তার কিছু ‘গ্যালাক্সি’ ফোনের ক্রেতাদের পানি-প্রতিরোধের (ওয়াটার রেসিস্ট্যান্স) মাত্রা সম্পর্কে বিভ্রান্ত করার কথা স্বীকার করেছে। এর আগে ২০১৯ সালের জুলাইয়ে কোম্পানিটির বিরুদ্ধে মামলা করেছিল অস্ট্রেলিয়ার এই নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

অস্ট্রেলীয় এই নিয়ন্ত্রক সংস্থা জানিয়েছে, ২০১৬ সালের মার্চ মাস থেকে ২০১৮ সালের অক্টোবর মাসের মধ্যে নিজেদের স্মার্টফোনের পানি প্রতিরোধক ক্ষমতা সম্পর্কে দোকানে এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজ্ঞাপন চালায় কোম্পানিটি। প্রচারিত সেসব বিজ্ঞাপনে সেসময় স্যামসাং দাবি করেছিল, তাদের স্মার্টফোনগুলো সুইমিং পুল অথবা সমুদ্রের পানির মধ্যে ব্যবহার করা যেতে পারে। বিজ্ঞাপনটি প্রচারের পর থেকেই ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে শত শত অভিযোগ পায় এসিসিসি। সেসব অভিযোগে জানানো হয়, স্মার্টফোনগুলো সঠিকভাবে কাজ করে না বা এমনকি পানির সংস্পর্শে আসার পরে এসব স্মার্টফোন সম্পূর্ণরূপে কাজ করা বন্ধ করে দেয়।

অস্ট্রেলিয়ান কম্পিটিশন অ্যান্ড কনজিউমার কমিশনের প্রধান জিনা ক্যাস-গটলিয়েব বলেছেন, সুইমিং পুল অথবা সমুদ্রের পানির মধ্যে স্মার্টফোন ব্যবহারের এই দাবিগুলো মূলত গ্যালাক্সি ফোনগুলোর বিক্রির পেছনে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট হিসেবে কাজ করেছে। গ্যালাক্সি ফোন কেনা অনেক গ্রাহক নতুন একটি ফোন কেনার সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে বিভ্রান্তিকর বিজ্ঞাপনের মুখোমুখি হয়ে থাকতে পারেন। অবশ্য স্যামসাং তাৎক্ষণিকভাবে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন


×