শনিবার | জুন ২৫, ২০২২ | ১১ আষাঢ় ১৪২৯  

আন্তর্জাতিক খবর

ভিডিও বার্তায় জেলেনস্কি

দনবাসের ভাগ্য নির্ধারণ করবে সিভিয়েরোদোনেৎস্কের যুদ্ধ

বণিক বার্তা অনলাইন

রাশিয়ার আক্রমণের মুখে দোনেৎস্ক অঞ্চল থেকে পিছু হটছে ইউক্রেইনীয় বাহিনী। ছবি: রয়টার্স

ইউক্রেনীয় শহর সিভিয়েরোদোনেৎস্ক দখলের যুদ্ধ দনবাস অঞ্চলের ভাগ্য নির্ধারণ করবে বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। তিনি জানান, রাশিয়ান সেনারা পূর্ব ইউক্রেনের নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে শহরটিকে বর্জ্যে পরিণত করে ফেলেছে। স্থানীয় সময় বুধবার এক ভিডিও বার্তায় তিনি এসব কথা বলেন। খবর রয়টার্স। 

রাজধানী কিয়েভের নিয়ন্ত্রণ নিতে ব্যর্থ হওয়ার পর ক্রেমলিন জানায়, এখন তারা ইউক্রেনের বিচ্ছিন্নতাবাদী দনবাস অঞ্চলকে সম্পূর্ণ ‘স্বাধীন’ করতে চায়। ২০১৪ সাল থেকে এ অঞ্চলের রুশপন্থী বিচ্ছিন্নতাবাদীরা ইউক্রেনীয় নিয়ন্ত্রণ থেকে বেরিয়ে যেতে চাইছে। ভিডিও বার্তায় জেলেনস্কি বলেন, দনবাস অঞ্চলের যুদ্ধের কেন্দ্রস্থলে রয়েছে সিভিয়েরোদোনেৎস্ক। বৃহত্তর অর্থে দনবাস অঞ্চলের ভাগ্য এখন নির্ধারিত হবে।

সিয়েভিয়ারোদোনেৎস্কে লড়াইরত ইউক্রেইনীয় যোদ্ধারা স্থানীয় সময় বুধবার রাশিয়ার আক্রমণে পিছু হটে শহরটির প্রান্তে চলে যেতে বাধ্য হয়। কিন্তু তারপরও যতক্ষণ সম্ভব লড়াই চালিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় জানিয়েছে তারা।

এদিক, ইউক্রেনের লুহানস্ক প্রদেশের শহরটি গোলা বর্ষণে বর্জ্যভূমিতে পরিণত হয়েছে। লুহানস্কের আঞ্চলিক গভর্নর সেরহাই গাইদাই বলেছেন, শহরটি ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। বুধবার রাতে গাইদাই ইউক্রেনের এক টেলিভিশন চ্যানেলে বলেন, আমাদের যোদ্ধারা সিয়েভিয়ারোদোনেৎস্ক শিল্প অঞ্চলে অবস্থান করছে। কিন্তু যুদ্ধ শুধু শিল্পাঞ্চলেই নয়, পুরো সিয়েভিয়ারোদোনেৎস্ক শহরে চলছে।

ইউক্রেনীয় যোদ্ধারা সিয়েভিয়ারোদোনেৎস্কের অপেক্ষাকৃত ছোট শহর লিসিচানস্ক নিয়ন্ত্রণ করছে। দনেতস নদীর পশ্চিম তীরের এ শহরের আবাসিক ভবনগুলো রুশ সেনারা গুড়িয়ে দিয়েছে বলে জানান গাইদাই। তবে কোনো শহরের পরিস্থিতি স্বাধীনভাবে যাচাই করে দেখা সম্ভব হয়নি বলে জানায় রয়টার্স।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন


×