শনিবার | আগস্ট ১৩, ২০২২ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯  

পণ্যবাজার

জ্বালানি চাহিদা মেটাতে রাশিয়ামুখী শ্রীলংকা

বণিক বার্তা ডেস্ক

শ্রীলংকায় বর্তমানে ইতিহাসের সবচেয়ে খারাপ অর্থনৈতিক মন্দা চলছে। স্বাধীনতার পর থেকে দেশটি এমন বিপর্যয়ে আর কখনো পড়েনি। জ্বালানি অন্যান্য জরুরি পণ্যের সংকট দেশটির কোটি ২০ লাখ মানুষের জীবনকে দুঃসহ করে তুলেছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় দেশটি রাশিয়া থেকে জ্বালানি তেল আমদানি করছে। এর মধ্য দিয়ে দেশটি একমাত্র রিফাইনারিটির কার্যক্রম পুনরায় চালুর পরিকল্পনা করছে। সম্প্রতি শ্রীলংকার জ্বালানিমন্ত্রী এসব কথা জানিয়েছেন।

শ্রীলংকার রাষ্ট্রায়ত্ত রিফাইনারি সিলন পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (সিপিসি) গত মার্চে বন্ধ হয়ে যায়। বৈদেশিক মুদ্রা সংকটে প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ করে দিতে বাধ্য হন সংশ্লিষ্টরা। বৈদেশিক মুদ্রার অভাবে ওই সময় দেশটি অপরিশোধিত জ্বালানি তেল আমদানি করতে পারেনি।

জ্বালানিমন্ত্রী কাঞ্চনা বিজেসেকারা বলেন, শ্রীলংকা তেলের মূল্য পরিশোধে কোটি ৫০ লাখ ডলার জোগাড় করতে পারেনি। ফলে কলম্বোর সমুদ্রবন্দরে এক মাসেরও বেশি সময় ধরে রাশিয়ান অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের ডেলিভারি আটকে ছিল। অবশেষে গত শনিবার এসব তেল মূল্য পরিশোধের মাধ্যমে খালাস করা হয়েছে।

পাশাপাশি সরাসরি অপরিশোধিত জ্বালানি তেল, কয়লা, ডিজেল পেট্রল সরবরাহ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে মস্কোর সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে কলম্বো।

বর্তমানে রাশিয়া পশ্চিমা দেশগুলোর কয়েক দফা নিষেধাজ্ঞার মধ্যে রয়েছে। দেশটির ব্যাংক অর্থ ব্যবস্থার ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ইউরোপীয় ইউনিয়ন। সর্বশেষ ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো রাশিয়া থেকে জ্বালানি তেল আমদানির ওপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপে একমত হয়েছে। পরিস্থিতির মধ্যেও দেশটি থেকে জ্বালানি তেল সরবরাহের সম্ভাবনা দেখছে শ্রীলংকা।

জ্বালানিমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, সরাসরি রুশ জ্বালানি তেল সরবরাহের জন্য আমদানি রাশিয়ান অ্যাম্বাসেডরকে দাপ্তরিকভাবে অনুরোধ জানিয়েছি। শুধু অপরিশোধিত জ্বালানি তেলই আমাদের চাহিদা পূরণ করবে না। আমাদের পেট্রোলিয়ামসহ অন্যান্য পরিশোধিত পণ্যও দরকার। জানা গিয়েছে, প্রায় ৯০ হাজার টন সাইবেরিয়ান লাইট ক্রুড শ্রীলংকায় পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

জ্বালানিমন্ত্রী বলেন, সিলন পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের কাছে সরবরাহকারীদের ৭৩ কোটি ৫০ লাখ ডলার পাওনা। মূল্য পরিশোধে অনিশ্চয়তার আশঙ্কায় দেশটির জ্বালানি তেল আমদানি দরপত্রেও কেউ অংশ নিতে এগিয়ে আসছে না। সাইবেরিয়ান ক্রুড রাষ্ট্রায়ত্ত রিফাইনারির জন্য আদর্শ নয়। এক্ষেত্রে রিফাইনারিটি ইরানিয়ান ক্রুড নিয়ে বেশ আশাবাদী।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন