শনিবার | মে ২১, ২০২২ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ 

আন্তর্জাতিক খবর

ইউক্রেনে প্রথম যুদ্ধাপরাধের বিচার শুরু

বণিক বার্তা অনলাইন

ছবি এপি

ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন শুরু হওয়ার পর এই প্রথম যুদ্ধাপরাধের বিচার শুরু হয়েছে দেশটিতে। গতকাল শুক্রবার রুশ সেনা ভাদিম শাইশিমারিনকে কাঠগোড়ায় তোলার মধ্য দিয়ে এ বিচার শুরু হলো। খবর এপি।

রুশ বাহিনীর ট্যাংক ইউনিটের সদস্য শাইশিমারিনের বিরুদ্ধে ইউক্রেনের একজন বৃদ্ধ বেসামরিক নাগরিককে গুলি করে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে। অভিযোগ অনুযায়ী, দেশটির উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় শহর সুমির ছুপাখিভকা গ্রামের ৬২ বছর বয়সী এক বৃদ্ধকে গাড়ির খোলা জানালা দিয়ে গুলি করে হত্যা করেন তিনি।

বিচার চলাকালীন শাইশিমারিনের কাছে তার অধিকারগুলো বুঝতে পেরেছেন কিনা এবং তিনি জুরি ট্রায়াল চান কিনা- তা জানতে চাওয়া হয়েছিল। প্রায় ১৫ মিনিট ধরে তাকে আরো বিভিন্ন প্রশ্ন করে বিচারকাজ মুলতবি ঘোষণা করা হয়। আগামী বুধবার এ বিচার কার্যক্রম পুনরায় শুরু হবে। বিচারের সুষ্ঠুতা নিশ্চিত করার জন্য বিচারটি নিবিড়ভাবে তদারকি করবেন আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকগণ।

এদিকে শাইশিমারিনের বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো বেশ শক্ত বলে স্বীকার করেছেন তার আইনজীবী ভিক্টর অভসিনিকভ। তবে কোন কোন প্রমাণের ভিত্তিতে বিচারের সিদ্ধান্ত নেয়া হবে তা আদালত ঠিক করবেন বলে জানান তিনি। অভিযোগ প্রমাণিত হলে ইউক্রেনের আইন অনুযায়ী যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সম্মুখীন হতে পারেন শাইশিমারিন। 

ইউক্রেনের প্রসিকিউটর জেনারেল ইরিনা ভেনেডিকটোভা জানান, বেসামরিক অবকাঠামোতে বোমা হামলা, বেসামরিক মানুষ হত্যা, ধর্ষণ এবং লুটপাটসহ বিভিন্ন অপরাধের জন্য ৪১ জন রুশ সেনার বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের মামলা প্রস্তুত করছেন তিনি। অভিযুক্তদের মধ্যে দুজন ইউক্রেনের হাতে রয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। তবে সন্দেহভাজনদের মধ্যে কতজনের অনুপস্থিতিতে বিচার করা হবে তা পরিষ্কার করে বলেননি তিনি।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন