মঙ্গলবার | জুন ২৮, ২০২২ | ১৪ আষাঢ় ১৪২৯  

শেয়ারবাজার

প্রথমার্ধে আইসিবির মুনাফা বেড়েছে দ্বিগুণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

চলতি হিসাব বছরের প্রথমার্ধে (জুলাই-ডিসেম্বর) কর-পরবর্তী সমন্বিত নিট মুনাফা বেড়েছে পুুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) আগের হিসাব বছরের একই সময়ের তুলনায় প্রথমার্ধে রাষ্ট্রায়ত্ত বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠানটির মুনাফা বেড়েছে দ্বিগুণেরও বেশি। সর্বশেষ অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে তৈরি মূল্যসংবেদনশীল তথ্যে (পিএসআই) চিত্র উঠে এসেছে।

পিএসআই পর্যালোচনায় দেখা যায়, চলতি ২০২১-২২ হিসাব বছরের প্রথমার্ধে আইসিবির কর-পরবর্তী সমন্বিত নিট মুনাফা হয়েছে ১৪০ কোটি লাখ টাকা। যেখানে আগের হিসাব বছরের একই সময়ে মুনাফা ছিল ৬২ কোটি ১০ লাখ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানটির নিট মুনাফা বেড়েছে প্রায় ৭৮ কোটি টাকা বা দশমিক ২৬ গুণ। সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে টাকা ৭৪ পয়সা। যেখানে আগের হিসাব বছরের একই সময়ে আয় ছিল ৭৭ পয়সা।

অন্যদিকে চলতি হিসাব বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে (অক্টোবর-ডিসেম্বর) আইসিবির কর-পরবর্তী সমন্বিত নিট মুনাফা হয়েছে ৮৩ কোটি ২৯ লাখ টাকা। যেখানে আগের হিসাব বছরের একই সময়ে মুনাফা ছিল ৩১ কোটি ৭০ লাখ টাকা। আলোচ্য প্রান্তিকে কোম্পানিটির সমন্বিত ইপিএস হয়েছে টাকা পয়সা। আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল ৩৯ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ শেষে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিত নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ৫৫ টাকা ৫৯ পয়সায়।

৩০ জুন সমাপ্ত ২০২০-২১ হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের ১১ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে আইসিবি। আলোচ্য হিসাব বছরে প্রতিষ্ঠানটির কর-পরবর্তী সমন্বিত নিট মুনাফা হয়েছে ১১৫ কোটি টাকা, যা আগের বছরে ছিল ৫৬ কোটি টাকা। সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির সমন্বিত ইপিএস হয়েছে টাকা ৪৩ পয়সা। যেখানে আগের বছরে সমন্বিত ইপিএস ছিল ৭০ পয়সা। বছরের ৩০ জুন শেষে সমন্বিত এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ৫৪ টাকা ৯৮ পয়সায়।

২০২০ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরে শেয়ারহোল্ডারদের জন্য মোট ১০ শতাংশ লভ্যাংশ দিয়েছিল আইসিবি। এর মধ্যে শতাংশ নগদ বাকি শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ। আলোচ্য হিসাব বছরে কোম্পানিটির সমন্বিত ইপিএস ছিল ৭৪ পয়সা, আগের হিসাব বছরে যা ছিল ৭৮ পয়সা। ৩০ জুন ২০২০ শেষে প্রতিষ্ঠানটির সমন্বিত এনএভিপিএস দাঁড়ায় ৫৬ টাকা ৪৯ পয়সা, আগের হিসাব বছর শেষে যা ছিল ৬০ টাকা ১৩ পয়সা।

সর্বশেষ রেটিং অনুযায়ী, আইসিবির ঋণমান দীর্ঘমেয়াদে ট্রিপল স্বল্পমেয়াদে এসটি-ওয়ান ৩০ জুন ২০২১ সমাপ্ত হিসাব বছরে করপোরেশনের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন ১১ ডিসেম্বর ২০২১ পর্যন্ত হালনাগাদ আনুষঙ্গিক অন্যান্য তথ্যের ভিত্তিতে প্রত্যয়ন করেছে আলফা ক্রেডিট রেটিং লিমিটেড।

প্রতিষ্ঠানটি ১৯৭৭ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। এর অনুমোদিত মূলধন হাজার কোটি টাকা। বর্তমানে পরিশোধিত মূলধন ৮০৫ কোটি ৮১ লাখ ৬০ হাজার টাকা। রিজার্ভে রয়েছে হাজার ৮৮৮ কোটি ৭৭ লাখ টাকা। মোট শেয়ার সংখ্যা ৮০ কোটি ৫৮ লাখ ১৫ হাজার ৫২৭। এর মধ্যে ৬৯ দশমিক ৮১ শতাংশ কোম্পানির উদ্যোক্তা-পরিচালক, ২৭ শতাংশ সরকার, দশমিক ৭০ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী বাকি দশমিক ৪৯ শতাংশ শেয়ার সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে রয়েছে।

ডিএসইতে গত বৃহস্পতিবার আইসিবির শেয়ারের সর্বশেষ সমাপনী দর ছিল ১৪৩ টাকা ১০ পয়সা। গত এক বছরে শেয়ারটির সর্বনিম্ন সর্বোচ্চ দর ছিল যথাক্রমে ৮০ টাকা ১৭৪ টাকা।

সর্বশেষ নিরীক্ষিত ইপিএস বাজারদরের ভিত্তিতে শেয়ারের মূল্য-আয় (পিই) অনুপাত ১০০ দশমিক শূন্য , হালনাগাদ অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে যা ৫১ দশমিক ১১।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন


×