শনিবার | জানুয়ারি ২২, ২০২২ | ৯ মাঘ ১৪২৮

আন্তর্জাতিক খবর

বিনামূল্যে কভিড পরীক্ষা কিট বাড়ি পৌঁছে দেবে যুক্তরাষ্ট্র

বণিক বার্তা অনলাইন

করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। দেশটিতে এক সপ্তাহের ব্যবধানে কভিড পজেটিভ হয়ে হাসপাতালে ভর্তির হার ৩৩ শতাংশ ও মৃত্যু বেড়েছে ৪০ শতাংশ। এমন পরিস্থিতিতে বিনামূল্যে কভিড টেস্টের ব্যবস্থা করছে বাইডেন সরকার। আগামী বুধবার থেকে এ প্রক্রিয়া শুরু করবে ফেডারেল সরকার। শুক্রবার বাইডন প্রশাসনের এক সিনিয়র কর্মকর্তা এ তথ্য জানান। খবর দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস।

দেশটিতে প্রতিদিন নতুন করে করোনা শনাক্ত হচ্ছে লাখো মানুষের শরীরে। মারা যাচ্ছেন হাজার হাজার মানুষ। দেশটির রোগ নিয়ন্ত্রণ, গবেষণা ও প্রতিরোধ সংস্থা সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) জানিয়েছে, ওমক্রিন ও ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের কারণে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু বাড়ছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে বিনামূল্যের কভিড পরীক্ষার ব্যবস্থা করছে বাইডেন প্রশাসন। তবে বুধবার থেকে বিনামূল্যে সরবরাহকৃত এ কিট বাড়িতে পৌঁছে দিতে সময় লাগবে ৭ থেকে ১২ দিন। ফলে চলতি মাসের শেষ কিংবা আগামী মাসের শুরুতে বিনামূল্যে বাসায় কভিড টেস্ট করতে পারবেন মার্কিনিরা।

শুক্রবার বাইডেন প্রশাসন জানায়, কভিডটেস্ট.গভ এ ওয়েবসাইটে গিয়ে একজন মার্কিন নাগরিক তার নাম ও বাসার ঠিকানা দিয়ে ফ্রি কভিড টেস্ট কিটের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আবেদনের পর ৭ থেকে ১২ দিনের মধ্যে প্রথম শ্রেনীর ডাক পরিষেবার মধ্যমে আবেদনকারীর কাছে র‌্যাপিড টেস্ট কিট পৌঁছে দেয়া হবে। এছাড়া কমিউনিটি হেলথ সেন্টার, গ্রামীণ ক্লিনিকসহ ২০ হাজার পরীক্ষা কেন্দ্রে বিনামূল্যে টেস্ট করা যাবে।

হোয়াইট হাউস জানায়, প্রত্যেক বাড়িতে বিনামূল্যে চারটি করে কিট সরবরাহ করা হবে। তিন ধরনের মানুষদের বিনামূল্যে কিটের জন্য আবেদন করতে পারবেন। এরা হলেন কভিডের লক্ষণ আছে এমন কেউ বা করোনা পজেটিভ থাকা এমন কারো সংম্পর্শে আসা ব্যাক্তিরা। এছাড়া কভিড-১৯ এর ঝুঁকিতে থাকা কারো সঙ্গে কোথাও যাওয়ার পরিকল্পনাকারী ও যারা নিশ্চিত হতে চান তিনি কভিড আক্রান্ত কিনা তারা কিট পাবেন।

নিউ ইয়র্ক টাইমস জানায়, সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখীর হওয়ায় বাইডেন প্রশাসন বিনামূল্যে ৫০ কোটি র্যাপিড টেস্ট কিট বিতরণের ঘোষণা দেয়। এরপর থেকে মার্কিনদের মধ্যে এ প্রক্রিয়া নিয়ে নানা আলোচনা শুরু হয়। এছাড়া কারা এ বিনামূল্যে সরবরাহকৃত কিটের জন্য আবেদন করতে পারবেন এ নিয়ে নানা বিভ্রান্তি দেখা দেয়। শুক্রবার হোয়াইট হাউসের এ ঘোষণার মাধ্যমে তার অবসান হয়েছে।

 

 

 

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন