শনিবার | জানুয়ারি ২৯, ২০২২ | ১৬ মাঘ ১৪২৮

খবর

সিপিডির জরিপ

চাকরিপ্রার্থীরা যোগাযোগ ও ইংরেজি ভাষায় পিছিয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশের ১৮ থেকে ৩৫ বছরের মধ্যে চাকরিপ্রার্থী শিক্ষার্থীদের মধ্যে যোগাযোগ ইংরেজি ভাষা দক্ষতায় বড় ধরনের ঘাটতি রয়েছে। ফলে চাকরির বাজারে দেশীয় প্রার্থীদের তুলনায় বিদেশীরা বেশি জায়গা পাচ্ছেন। সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিডিপি) এক জরিপে তথ্য উঠে আসে। গতকাল রাজধানীর ব্র্যাক সেন্টারে আয়োজিত স্কিল গ্যাপ অ্যান্ড ইয়ুথ এমপ্লয়মেন্ট ইন বাংলাদেশ: অ্যান এক্সপ্লোরারি অ্যানালাইসিস শীর্ষক এক ডায়ালগে জরিপের ফল উপস্থাপন করা হয়।

সিপিডির নির্বাহী পরিচালক ফাহমিদা খাতুনের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান, বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সাধারণ সম্পাদক সংসদ সদস্য শিরীন আখতার এবং মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এমসিসিআই) সভাপতি ব্যারিস্টার নাহিদ কবির। জরিপের ফল উপস্থাপন করেন সিপিডির জ্যেষ্ঠ গবেষণা সহকারী সৈয়দ ইউসুফ সাদাত।

জরিপে ৪১টি সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০০ জন খণ্ডকালীন চাকরিজীবী চাকরিপ্রার্থী শিক্ষার্থী এবং ১০০ জন চাকরিদাতা অংশ নেন। অনলাইনে চালানো জরিপে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের কাছে নয়টি বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়। এতে ইংরেজি ভাষা যোগাযোগ দক্ষতায় ৩০ শতাংশ, সৃজনশীলতায় সবচেয়ে বেশি ৬৪, সংখ্যা গাণিতিক দক্ষতায় সবচেয়ে কম ২৩, দলগত কার্যক্রম নেতৃত্বে ৫৪, সময় ব্যবস্থাপনায় ৫২, জটিল বিষয়ে চিন্তায় ৪৮, সমস্যা সমাধানে ৪৫, কম্পিউটার অক্ষর জ্ঞানে ৪২ এবং ব্যবসায়িক দক্ষতায় ৪১ শতাংশ নম্বর পেয়েছেন জরিপে অংশগ্রহণকারীরা। জরিপে চাকরিপ্রার্থী শিক্ষার্থীদের ৪১ শতাংশ দক্ষতা ঘাটতি উল্লেখ করা হয়।

পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান বলেন, আমরা চাচ্ছি শুধু কৃষি থেকে শিল্পে আসা নয়, মানসিকভাবে, সামাজিকভাবে আধুনিকায়নের দিকে যাওয়ার। অনেকে মান নিয়ে প্রশ্ন করেন, একটু সময় লাগে। আমরা ক্ষমতায় আসার পরই দক্ষতা বৃদ্ধিতে কাজ করছি। সরকারের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান নানা জায়গায় প্রশিক্ষণও দিচ্ছে। এটি আমরা আরো বাড়াব।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন