শনিবার | জানুয়ারি ২২, ২০২২ | ৯ মাঘ ১৪২৮

দেশের খবর

যশোরে যুবলীগের বর্ধিত সভা নিয়ে সংঘর্ষ, ছুরিকাহত ১০

বণিক বার্তা প্রতিনিধি, যশোর

যশোর জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের বিরোধ-সংঘর্ষে অন্তত ১০ কর্মী ছুরিকাহত হয়েছেন। গতকাল দুপুরে শহরের ঝালাইপট্টি, পোস্ট অফিসপাড়া টাউন হল ময়দানে এসব হামলার ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন যশোর সদর উপজেলার বিরামপুর এলাকার খাইরুল ইসলাম (২০), চুড়ামণকাঠি গ্রামের আকিবুল ইসলাম (১৭), শহরের মুড়লি এলাকার রাব্বি (১৮), রুপদিয়া এলাকার শামীম হোসেন (২২), ঝুমঝুমপুর এলাকার রাসেল (১৭), চাঁচড়ার জয় আহম্মেদ (১৭), ধর্মতলা এলাকার গোষ্ঠ গোপাল (২০), স্বপন সরদারের ছেলে সোহাগ সরদার (২১), আরএন রোড এলাকার হ্যাপি (১৭), হামিদপুর এলাকার টিটো (১৮) আহতদের মধ্যে রাসেল হোসেনহ্যাপি, খায়রুল, টিটু আকিবুলকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সূত্রে জানা গিয়েছে, দীর্ঘদিন পর গতকাল যশোর জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে যশোর শহরের সিটিটিএস মিলনায়তনে যশোর জেলা আট উপজেলার নেতাকর্মীরা এতে অংশ নেন।

বর্ধিত সভায় অংশ নিতে জেলা আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় চত্বরে জড়ো হন যুবলীগের পদপ্রত্যাশী দুই সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শফিকুল ইসলাম জুয়েল আনোয়ার হোসেন বিপুলের কর্মী-সমর্থকরা। এরপর স্লোগান দেয়া নিয়ে শহরের গাড়িখানা সড়কে দুই গ্রুপ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে শহরের বিভিন্ন স্থানে দুই গ্রুপের কর্মীদের মধ্যে ছুরিকাঘাতে ১০ জন আহত হন।

যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত রাসেল বলেন, সকালে যুবলীগের বর্ধিত সভায় মিছিল নিয়ে শহরের চিত্রার মোড়ে আওয়ামী লীগের অফিসের সামনে আসছিলাম। মিছিল শেষে বাড়ি ফেরার পথে ঝালাইপট্টি পৌঁছালে হ্যাপি তার লোকজন নিয়ে আমাকে ছুরিকাঘাত করে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় হাসপাতালে আসি। আহত হ্যাপি জানান, রাসেলকে কে ছুরি মেরেছে আমার জানা নেই। যুবলীগের মিছিল শেষে রাসেল লোকজন নিয়ে আমাকে ছুরি মেরে আহত করেছেন। স্থানীয়রা আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। একই ঘটনায় খায়রুলকে টাউন হল ময়দানে ছুরিকাঘাত করে আহত করা হয়। তারা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার এম আব্দুর রশিদ বলেন, ছুরিকাঘাতে আহত তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

বিষয়ে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি তাইজুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, সংঘর্ষে দুই গ্রুপের মধ্যে ছুরিকাঘাতে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। তবে এরা ছিনতাইকারী। এর সঙ্গে যুুবলীগের কোনো সম্পর্ক নেই।

আট মাস পর আজ থেকে চলবে বেনাপোল এক্সপ্রেস ট্রেন: নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কমে আসায় আট মাস পর আজ থেকে ঢাকা-বেনাপোল রুটে আবারো বেনাপোল এক্সপ্রেস ট্রেন চালু হতে যাচ্ছে। করোনা মহামারীর কারণে রুটে এপ্রিল থেকে বেনাপোল এক্সপ্রেস চলাচল বন্ধ করা হয়।

ভারত-বাংলাদেশ ল্যান্ড পোর্ট ইমপোর্ট-এক্সপোর্ট কমিটির চেয়ারমান মতিয়ার রহমান বলেন, বেনাপোল বন্দর দিয়ে প্রতিদিন ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে - হাজার পাসপোর্টধারী যাত্রী ভারতে যাতায়াত করে থাকেন। করোনাকালীন পরিস্থিতির কারণে দেশের সব ট্রেন বন্ধ হলে বেনাপোল-ঢাকাগামী আন্তঃনগর ট্রেন সরকার বন্ধ করে দেয়। এতে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছিল ভারত যাতায়াতকারী পাসপোর্ট যাত্রীদের। ব্যবসায়ীসহ সর্বস্তরের মানুষ বেনাপোল এক্সপ্রেস চালুর দাবি তোলেন।

বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশনমাস্টার সাইদুর রহমান জানান, আজ থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বেনাপোল এক্সপ্রেস চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল বিভাগ।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন