বুধবার | জানুয়ারি ২৬, ২০২২ | ১২ মাঘ ১৪২৮

খবর

নো ভ্যাকসিন নো সার্ভিসের দিকে যাচ্ছে সরকার

ষাটোর্ধ্বদের টিকার বুস্টার ডোজ দেয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশের ষাটোর্ধ্ব নাগরিক এবং যাদের কো-মর্বিডিটি বা দীর্ঘমেয়াদি রোগ রয়েছে তাদের করোনা টিকার বুস্টার ডোজ দেয়া হবে। বুস্টার ডোজের কার্যক্রম শুরুর জন্য এরই মধ্যে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি জানান, নো ভ্যাকসিন নো সার্ভিসের দিকে যাচ্ছে সরকার।

গতকাল দুপুরে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকায় উদ্ভূত নভেল করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন মোকাবেলায় করণীয় নির্ধারণে আন্তঃমন্ত্রণালয়ের বৈঠক শেষে বিফ্রিংয়ে একথা বলেন তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমেরিকা, ইউরোপ, থাইল্যান্ডসহ অনেক দেশই বুস্টার ডোজ দিয়েছে। আমাদের দেশের ষাটোর্ধ্ব কো-মর্বিডিটি যাদের আছে সেসব ব্যক্তিদের বুস্টার ডোজ দিলে করোনায় মৃত্যুর হার আরো কমে আসবে। আফ্রিকার সাতটি দেশ থেকে আসা যাত্রীদের কঠোর প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে। দেশে প্রথম করোনা চলে আসার ঘটনা আমাদের সবারই জানা আছে। ইতালি থেকে আসা যাত্রীদের মাধ্যমে দেশে যেভাবে করোনা চলে এসেছিল, এবার আর সেই ঝুঁকিতে যাওয়া যাবে না। এজন্য আফ্রিকা অঞ্চলের আক্রান্ত দেশগুলো থেকে যারাই দেশে আসবে তাদের সেনাসদস্যদের সহায়তায় বাধ্যতামূলক ১৪ দিন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। আক্রান্ত অন্যান্য দেশের ক্ষেত্রে সেই দেশে কী রকম আক্রান্ত হয়েছে তা দেখে একই রকম ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ব্রিফিংয়ের আগে মন্ত্রণালয়ের সভায় সব ধরনের সামাজিক, ধর্মীয় অনুষ্ঠানের পাশাপাশি সব কার্যক্রম পালনে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি নির্দেশনা দেয়া হয়।

ওমিক্রনের সম্ভাব্য সংক্রমণ প্রতিরোধের প্রস্তুতি হিসেবে ভ্রমণ নিয়ন্ত্রণ করা, রোগ শনাক্তকরণ পরীক্ষা জোরদার, জনস্বাস্থ্য উদ্যোগ গ্রহণ প্রচার-প্রচারণা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

২৬ নভেম্বর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ওমিক্রনকে ভ্যারিয়েন্ট অব কনসার্ন বা উদ্বেগজনক ধরন বলে ঘোষণা করে। গত রোববার একে বিশ্বের জন্য অতি উচ্চঝুঁকির বলে উল্লেখ করে সংস্থাটি। ধরনের কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ আন্তর্জাতিক ভ্রমণের ক্ষেত্রে নানা বিধিনিষেধ আরোপ করছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন