শনিবার | জানুয়ারি ২২, ২০২২ | ৯ মাঘ ১৪২৮

টকিজ

বিটিএস তারকার দাবি

কোরিয়ান শিল্পীরা বৈষম্যের শিকার

ফিচার ডেস্ক

বিটিএস তারকা আরএম

যাত্রার পর একের পর এক চমক দেখিয়েছে কোরীয় গানের দল বিটিএস। ভি, জাংকুক, জিমিন, সাগা, জিন, জে-হোপ আরএম সাত তরুণকে নিয়ে গঠিত দলটি নতুন গান ডিনামাইট দিয়ে বিশ্বের সংগীত অনুরাগীদের মন জয় করেছে। পেয়েছে অনেক স্বীকৃতি সাফল্য।

তবে বিশ্বব্যাপী সাফল্য সত্ত্বেও কোরিয়ান শিল্পীদের জন্য প্রতিবন্ধকতা হিসেবে এক অদৃশ্য প্রাচীর রয়েছে বলে মনে করেন বহুল আলোচিত বাটার দলের প্রধান আরএম।

কোরিয়ান কে-পপ ব্যান্ডের প্রথম ইংরেজি গান ডিনামাইট। বিলবোর্ড হট ১০০ চার্টের শীর্ষে ছিল গানটি। এছাড়া দলটির রয়েছে আমেরিকান মিউজিক অ্যাওয়ার্ডে সর্বোচ্চ সম্মান জেতার মতো সাফল্য।

এর পরও গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডের শীর্ষ চারের মনোনয়ন না পাওয়ার ব্যর্থতার কারণে তিনি এমন মন্তব্য করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

রোববার লস অ্যাঞ্জেলেসের সোফি স্টেডিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে আরএম বলেন, আমরা আমেরিকান মিউজিক অ্যাওয়ার্ডে বর্ষসেরা শিল্পী এবং গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডে একটি মনোনয়ন পেয়েছি। এটা একজন শিল্পীর জন্য অনেক কিছু। তার পরও আমি মনে করি, এখানে এক অদৃশ্য প্রাচীর রয়েছে। এর কারণ হিসেবে দক্ষিণ কোরিয়ান শিল্পী হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু এবং ভষাগত সীমাবদ্ধতার কথা উল্লেখ করেন তিনি।

আরএম বলেন, এসব সীমাবদ্ধতা থাকা সত্ত্বেও আমাদের দল সবসময়ই সর্বোচ্চটা দেয়ার চেষ্টা করে। আমার বিশ্বাস আজকের এমন অবিশ্বাস্য অর্জনের পেছনে রয়েছে আমাদের ছোট ছোট মুর্হূত।

শনিবার যুক্তরাষ্ট্রে প্রথবারের মতো একটি কনসার্টে অংশগ্রহণ করে কোরীয় কে-পপ ব্যান্ড। যেখানে প্রায় ৫০ হাজার মার্কিন ভক্ত অংশ নেয়। কনসার্টে এত ভক্ত অংশগ্রহণের জন্য বিটিএস প্রধান মনে করেন এর মধ্য দিয়ে এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা হলো।

তিনি আরো বলেন, করোনা মহামারীর কারণে গত দুই বছর বিটিএস তাদের ভক্তদের জন্য এক কঠিন সময় ছিল। কনসার্টের মাধ্যমে আমরা দেখাতে চাই কীভাবে দুই বছরে বিটিএস বেড়ে উঠেছে।

 

সূত্র: ইয়োনহাপ

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন