শনিবার | জানুয়ারি ২৯, ২০২২ | ১৬ মাঘ ১৪২৮

খবর

করোনার আফ্রিকান ধরণের প্রবেশ ঠেকাতে সতর্ক অবস্থানে সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক

চলতি মাসে আফ্রিকাসহ ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের নতুন ধরণ ‘ওমিক্রন’ এর সংক্রমণ ঠেকাতে দেশের প্রবেশদ্বারসমূহে কড়াকড়ি করছে সরকার। বাংলাদেশে করোনার এ ধরনটির প্রবেশ ঠেকাতে ইতোমধ্যে আকাশপথের পাশাপাশি দেশের সব সীমান্তে কড়াকড়ি ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

আজ শনিবার দুপুরে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম প্রধান স্বাস্থ্যমন্ত্রীর বরাতে এমন নির্দেশণার কথা জানান। 

সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় অনুষ্ঠিতব্য ‘ওয়াল্ড হেল্থ অ্যাসেম্বলি সেকেন্ড স্পেশাল সেশন’ এ অংশ নিতে শনিবার সকালে যাত্রা করেছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক। যাত্রাকালে তিনি এক অডিও বার্তায় জানান, দক্ষিণ আফ্রিকান ভ্যারিয়েন্ট (ধরন) সম্পর্কে আমরা অবহিত হয়েছি। এটি খুবই এগ্রেসিভ (মারাত্মক)। সে কারণে দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে যোগাযোগ স্থগিত করা হচ্ছে। সব বিমানবন্দর, স্থলবন্দরে স্ক্রিনিং (শনাক্তকরণ) প্রক্রিয়া আরও জোরদার করা হয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে সংশ্লিষ্টদের এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সারাদেশে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা ও মাস্ক পরার বিষয়েও তাগিদ দেওয়া হচ্ছে। এ বিষয়ে জেলা পর্যায়েও নির্দেশনা দেওয়া হচ্ছে। অন্যান্য জায়গা থেকেও যারা আসবে, সে বিষয়ে যথেষ্ট সতর্কতা অবলম্বন করা হবে। এ ক্ষেত্রে তাদের টিকা নেওয়া ও আরটিপিসিআর টেস্টের (পরীক্ষা) বিষয়টি দেখতে হবে। 

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বিশ্বের আক্রান্ত অন্যান্য জায়গা থেকেও যারা আসবে তাদের বিষয়েও সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। কোনভাবেই স্ক্রীনিং ছাড়া যেনো আক্রান্ত দেশের কোন ব্যক্তি দেশে প্রবেশ করতে না পারে সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট শাখাগুলিকেও নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকায় ভয়াবহ রূপ নিয়েছে করোনা। যার পেছনে করোনার নতুন ধরনকে দায়ী করছেন ভাইরাস বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছেন, বর্তমানে বিশ্বব্যাপী সংক্রমণ ছড়ানো  ডেলটা ধরণের চেয়েও এটি মারাত্মক হতে পারে। এরই মধ্যে যুক্তরাজ্যের পাশাপাশি কড়াকড়ি ব্যবস্থা নিয়েছে সিঙ্গাপুর ও ভারতের মতো এশিয়ার দেশগুলোও।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন