বুধবার | জানুয়ারি ২৬, ২০২২ | ১২ মাঘ ১৪২৮

খেলা

কাতার বিশ্বকাপে ইতালি না পর্তুগাল যাচ্ছে?

ক্রীড়া ডেস্ক

২০১৮ সালের ফুটবল বিশ্বকাপ খেলা হয়নি চার বারের বিশ্ব চ্যাইম্পয়ন ইতালির। এবারো কঠিন সমীকরণের মধ্যে পড়েছে ইউরো চ্যাম্পিয়নরা। বিশ্বকাপ বাছাই উতরাতে না পেরে গতবার বিশ্বকাপ খেলা হয়নি তাদের। ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ বাছাইয়েও একই পরিস্থিতির সামনে আজ্জুরিরা। তাদের সাথে সমান কাতারে অবস্থান করছে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর পর্তুগালও। 

বাছাই পর্বে ব্যর্থ দুটি দেশ। অপেক্ষায় ছিল মার্চে অনুষ্ঠেয় প্লে-অফের। শুক্রবার নিশ্চিত হয়ে গেছে প্লে অফের ড্র। যেখানে ইতালি ও পর্তুগাল একই গ্রুপে পড়েছে। কিন্তু প্লে অফের আগে দুই হেভিওয়েট জেনে গেলো, যে কোনো একটি দলের বিদায় নিশ্চিত হবে এখানে। সুযোগ থাকবে যেকোনো একটি দেশের বিশ্বকাপে খেলার।

প্লে-অপে ১২টি দলকে তিনটি গ্রুপে ভাগ করা হয়েছে। তিনটি গ্রুপ থেকে তিন দল খেলবে বিশ্বকাপে। প্রতিটি গ্রুপে চারটি করে দল। নিজেদের গ্রুপে চারটি দলের মধ্যে সেমিফাইনাল হবে। যে দুদল সেমিতে জিতবে তারা খেলবে ফাইনালে। যে দল ফাইনালে জিতবে তারা কাতার বিশ্বকাপের টিকিট কাটবে।

সেই ভাগে ‘এ’ পাথের সেমিফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে স্কটল্যান্ড-ইউক্রেন ও ওয়েলস-অস্ট্রিয়া। ‘বি’ পাথের সেমিতে রাশিয়া-পোল্যান্ড ও সুইডেন-চেক প্রজান্ত্র। সবশেষ ‘সি’ পাথের সেমিতে ইতালি মুখোমুখি হবে নর্থ মেসিডোনিয়ার এবং তুরস্কের মুখোমুখি হবে পর্তুগাল। এই গতি পথ ধরেই ফাইনালে বাদ পড়ে যাচ্ছে ইতালি অথবা পর্তুগালের যে কোনো একটি দল। তার আগে অবশ্য সেমিতে যার যার ম্যাচ জিততে হবে। নর্থ মেসিডোনিয়া ও তুরস্করে সামনেও একই সুযোগ থাকবে। মেসিডোনিয়া ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে দুর্দান্ত খেলেছিল। তারাও ছেড়ে কথা বলেবে না ইতালি-পর্তুগালকে।

প্লে-অফের সেমিফাইনাল হবে আগামী ২৪ ও ২৫ মার্চ। ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে ২৮ ও ২৯ মার্চ।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন