শনিবার | জানুয়ারি ২২, ২০২২ | ৯ মাঘ ১৪২৮

পণ্যবাজার

হিলি স্থলবন্দর

পেঁয়াজের দাম কেজিতে ৩-৫ টাকা বেড়েছে

বণিক বার্তা প্রতিনিধি, হিলি

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে দুইদিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে প্রতি কেজিতে - টাকা। সাম্প্রতিক সময়ে লোকসানের দরুন পেঁয়াজ আমাদনি কমিয়ে আনেন আমদানিকারকরা। ফলে কয়েকদিন নিম্নমুখী থাকার পর বর্তমানে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। ফলে বিপাকে পড়েছে বন্দরে পেঁয়াজ কিনতে আসা পাইকারসহ নিম্ন আয়ের মানুষজন।

হিলি স্থলবন্দর কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বন্দর দিয়ে বর্তমানে দুই জাতের পেঁয়াজ আমদানি হচ্ছে। এর মধ্যে একটি ইন্দোর অন্যটি নগর জাতের পেঁয়াজ। দুইদিন আগে ইন্দোর জাতের পেঁয়াজের ট্রাকসেল ছিল প্রতি কেজিতে ২০-২২ টাকা। বর্তমানে তা বেড়ে ২৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। তবে নগর জাতের পেঁয়াজের দাম অপরিবর্তিত অবস্থায় রয়েছে। জাতের পেঁয়াজ ট্রাকসেলে বিক্রি হচ্ছে ৩০-৩১ টাকা কেজি দরে।

হিলি স্থলবন্দরে পেঁয়াজ কিনতে আসা পাইকার সাইফুল ইসলাম বলেন, দুই সপ্তাহ আগের তুলনায় চলতি সপ্তাহে পেঁয়াজের দাম ১০-১৫ টাকা কমে ২০-২২ টাকায় নেমে এসেছিল। ফলে সাধারণ ক্রেতারা কম দামে পেঁয়াজ কিনতে পারছিলেন। কিন্তু আবারো পেঁয়াজের দাম বাড়তে শুরু করেছে। দুইদিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম - টাকা করে বেড়েছে এতে করে আমাদের পেঁয়াজ কিনতে সমস্যায় পড়তে হচ্ছে।

হিলি স্থলবন্দরের পেঁয়াজ ব্যবসায়ী স্বপন হোসেন বলেন, গত সপ্তাহ থেকে হিলিসহ দেশের সব বন্দর দিয়ে পেঁয়াজের আমদানি আগের তুলনায় বেড়ে যায়। একই সঙ্গে বার্মা থেকে প্রচুর পরিমাণ পেঁয়াজ আমদানির কারণে সরবরাহ বাড়লে দাম কমতির দিকে ছিল। ভারতীয় পেঁয়াজের তুলনায় বার্মিজ পেঁয়াজের দাম কম মান ভালো হওয়ায় ওই পেঁয়াজ বাজারে বেশি চলছে। কারণে মোকামগুলোতে ভারতীয় পেঁয়াজের চাহিদা কমে যায়। ফলে ভারত থেকে পেঁয়াজের আমদানি কমিয়ে দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। এতে করে সরবরাহ কমায় দাম বাড়তির দিকে রয়েছে।

হিলি স্থলবন্দরের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন বলেন, হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি অব্যাহত রয়েছে তবে আমদানি আগের তুলনায় কিছুটা কমেছে। আগে বন্দর দিয়ে ২৫-৩০ ট্রাক পেঁয়াজ আমদানি হলেও বর্তমানে ১৫-২০ ট্রাক আমদানি হচ্ছে। বৃহস্পতিবার বন্দর দিয়ে ১৯ ট্রাকে ৫৭২ টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন