বৃহস্পতিবার | ডিসেম্বর ০২, ২০২১ | ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

টেলিকম ও প্রযুক্তি

এক দশক

সিআইএস অঞ্চলে ইলেকট্রনিক বর্জ্য বেড়েছে ৫০%

বণিক বার্তা ডেস্ক

জর্জিয়া কমনওয়েলথ অব ইনডিপেনডেন্ট স্টেটসভুক্ত (সিআইএস-সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নভুক্ত স্বাধীন দেশগুলোর আঞ্চলিক সংস্থা) দেশগুলোয় উৎপাদিত ইলেকট্রনিক বর্জ্যের পরিমাণ ৫০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে। খবর আইএএনএস।

২০১০-১৯ সালের মধ্যে বিশ্বব্যাপী উৎপাদিত ইলেকট্রনিক বর্জ্যের তুলনায় দেশগুলোয় বৃদ্ধির পরিমাণ লক্ষ করা যায়। বিশ্বব্যাপী উৎপাদিত ইলেকট্রনিক বর্জ্যের ১৭ দশমিক শতাংশ সংগ্রহ নিরাপদ সংস্থান করা হয়। অন্যদিকে জর্জিয়া সিআইএসভুক্ত দেশগুলোয় উৎপাদিত এসব ইলেকট্রনিক বর্জ্যের মাত্র দশমিক শতাংশ সংগ্রহ নিরাপদ সংস্থান করা হয়, যা বৈশ্বিক গড়ের তুলনায় যথেষ্ট কম।

সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নভুক্ত ১২টি দেশে উৎপাদিত ইলেকট্রনিক বর্জ্যের ওপর তৈরীকৃত জাতিসংঘের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা যায়। সম্প্রতি প্রথমবার প্রতিবেদন প্রকাশ করে জাতিসংঘ। সময়ের মধ্যে জর্জিয়া সিআইএসভুক্ত দেশগুলোয় উৎপাদিত বার্ষিক ইলেকট্রনিক বর্জ্যের পরিমাণ ১৭ লাখ থেকে বেড়ে ২৫ লাখ টনে দাঁড়ায়। এতে মাথাপিছু ইলেকট্রনিক বর্জ্যের পরিমাণ দাঁড়ায় কেজি ৭০০ গ্রাম। এর মধ্যে সামগ্রিক মাথাপিছু উভয় পরিমাপেই সবচেয়ে বেশি ইলেকট্রনিক বর্জ্য উৎপাদন হয় রাশিয়ায়।

ইউএন বিশ্ববিদ্যালয় (ইউএনইউ) ইউএন ইনস্টিটিউট ফর ট্রেনিং অ্যান্ড রিসার্চের (ইউএনআইটিএআর) সহযোগিতায় প্রথমবার রিজিওনাল -ওয়েস্ট মনিটর, সিআইএন প্লাস জর্জিয়া শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশ করে সাস্টেইনেবল সাইকেলস (এসসিওয়াইসিএলই) প্রোগ্রাম। প্রতিবেদন তৈরিতে আরো সংযুক্ত ছিল ইউএন এনভায়রনমেন্ট প্রোগ্রাম (ইউএনইপি)

প্রতিবেদন অনুসারে সিআইএসভুক্ত দেশগুলো জর্জিয়ার বিভিন্ন পণ্য থেকে ইলেকট্রনিক বর্জ্য তৈরি হয়। তবে প্রধানত তিনটি ভাগে এগুলোকে ভাগ করা যায়। এগুলো হলো তাপমাত্রা পরিবর্তন যন্ত্র থেকে উৎপাদিত বর্জ্যযেমন হিটার, শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ রেফ্রিজারেশন ইউনিট; বৃহদাকারের যন্ত্রযেমন ওয়াশিং মেশিন অথবা ওভেন এবং ক্ষুদ্র যন্ত্রযেমন রান্নাঘরের সামগ্রী অথবা ভ্যাকুয়াম ক্লিনার। প্রধানত তিন ধরনের ইলেকট্রনিক বর্জ্যের পরিমাণ মোট উৎপাদিত বর্জ্যের ৭৭ শতাংশ।

অঞ্চলের ইলেকট্রনিক বর্জ্য উৎপাদনের বার্ষিক হার কিছুটা মন্থরগতি ধারণ করলেও বর্তমানে তা ইতিবাচক বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। সময়ে স্ক্রিন মনিটরসহ ক্ষুদ্র প্রযুক্তি যন্ত্রাংশ থেকে বর্জ্য উৎপাদনের হার নিম্নমুখী বলে প্রতিবেদনে উঠে এসেছে।

দ্য কমনওয়েলথ অব ইনডিপেনডেন্ট স্টেটস প্লাস রিজিওয়নের মোট বাসিন্দা ২৮ কোটি ৯২ লাখ। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি মানুষ বাস করে রাশিয়ায়। ২০১৯ সালের হিসাব অনুযায়ী দেশটিতে ১৪ কোটি ৩৯ লাখ মানুষের বসবাস। অন্যদিকে ইউক্রেনে কোটি ১৮ লাখ উজবেকিস্তানে কোটি ৩২ লাখ মানুষ বাস করেন।

অঞ্চলটিতে পণ্য ক্রয় সক্ষমতার সমতায় (পিপিপি) ব্যাপক পরিবর্তন হয়। তাজিকিস্তানে প্রতি বছর হাজার ডলারের পণ্য ক্রয় করা হয়। অন্যদিকে রাশিয়ায় এর পরিমাণ ২৬ হাজার ডলারের কাছাকাছি। মাথাপিছু ইলেকট্রনিক বর্জ্য উৎপাদনেও সর্বোচ্চে অবস্থানে রাশিয়া। দেশটিতে মাথাপিছু উৎপাদিত ইলেকট্রনিক বর্জ্যের পরিমাণ ১১ কেজি ৩০০ গ্রাম। অন্যদিকে তাজিকিস্তানে সর্বনিম্ন ইলেকট্রনিক বর্জ্য উৎপাদন হয়। দেশটিতে মাথাপিছু উৎপাদিত বর্জ্যের পরিমাণ কেজি ৪০০ গ্রাম, যা পিপিপির সঙ্গে গভীরভাবে সম্পর্কযুক্ত।

সাস্টেইনেবল সাইকেলস প্রোগ্রামের পরিচালক রুডিগার কুয়ের জানান, বর্তমান পৃথিবীতে উৎপাদিত বর্জ্যপ্রবাহের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বর্ধমান বর্জ্য হলো ইলেকট্রনিক বর্জ্য। এসব বর্জ্য স্বাস্থ্যসহ স্থায়ী উন্নয়নের জন্য মারাত্মক হুমকিস্বরূপ।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন