শনিবার | নভেম্বর ২৭, ২০২১ | ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

আন্তর্জাতিক খবর

ইথিওপিয়ায় অবিলম্বে যুদ্ধ বিরতির আহ্বান জাতিসংঘ মহাসচিবের

বণিক বার্তা অনলাইন

তীব্র হচ্ছে ইথিওপিয়ার গৃহযুদ্ধ। দেশটির সরকারি বাহিনী ও তাইগ্রে পিপলস লিবারেশন ফ্রন্টের (টিপিএলএফ) মধ্যে চলা গৃহযুদ্ধ অবিলম্বে বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস। কলম্বিয়ায় এক বক্তৃতায় তিনি এ আহ্বান জানান। এদিকে আফ্রিকান দেশটিতে চলা এ যুদ্ধের কোন সামরিক সমাধান নেই বলে সতর্ক করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। 

সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, কলম্বিয়ায় এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য দানকালে উভয়পক্ষকে সতর্ক করেন জাতিসংঘ মহাসচিব। এসময় তিনি বলেন, দুপক্ষকেই অনতিবিলম্বে ও শর্তহীন যুদ্ধ বিরতিতে সম্মত হতে হবে। অন্যথায় ভয়াবহ মানবিক বিপর্যয় নেমে আসবে। 

যুদ্ধ শুরুর পর থেকে হাজার হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন। ২০ লাখেরও বেশি মানুষকে বাড়িঘর ছাড়তে হয়েছে। এ যুদ্ধের ফলে তাইগ্রেতে ৪ লাখ মানুষ দুর্ভিক্ষের সম্মুখীন হয়েছেন।

মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের একজন মুখপাত্র বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ইথিওপিয়ায় সংঘাতের কোনো সামরিক সমাধান নেই, কূটনীতিই হচ্ছে প্রথম, শেষ ও একমাত্র বিকল্প সমাধান। বিবৃতিতে বলা হয়, উভয়পক্ষের উচিত সহিংসতা পরিহার করা। মানবাধিকার ও বেসামরিক নাগরিকদের রক্ষা করা।

ইথিওপিয়ার গণমাধ্যম বলছে, দেশটির প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ বছরব্যাপী এই যুদ্ধে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। এই যুদ্ধে ইথিওপিয়া বাহিনীতে দেশটির অলিম্পিক স্বর্ণপদক বিজয়ী এবং জাতীয় নায়ক হেইলে গেব্রসেলাসিসহ  ইথিওপিয়ান ক্রীড়াবিদ, সংসদ সদস্য, তার দল ও আঞ্চলিক নেতারাও যোগ দিতে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। 

গত বছরের নভেম্বরে দেশটির তাইগ্রে অঞ্চলে ইথিওপিয়ার সেনাবাহিনী এবং তাইগ্রে পিপলস লিবারেশন ফ্রন্ট (টিপিএলএফ) এর মধ্যে যুদ্ধ শুরু হয়। চলতি বছরের জুলাই মাসে এ সংঘাত উত্তর ইথিওপিয়ার দুটি প্রতিবেশী অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে। বর্তমানে বিদ্রোহীরা রাজধানী আদ্দিস আবাবার দিকে অগ্রসর হচ্ছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন