বৃহস্পতিবার | ডিসেম্বর ০২, ২০২১ | ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

টেলিকম ও প্রযুক্তি

চীনা প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোর চিপ নির্মাণ

বিদেশী প্রযুক্তি ও উপকরণ নির্ভরতা কমেনি

বণিক বার্তা ডেস্ক

দীর্ঘদিন ধরেই নিজস্ব সেমিকন্ডাক্টর বা চিপ নির্মাণের ওপর জোর দিয়ে যাচ্ছে চীনা প্রযুক্তি জায়ান্টগুলো। কিন্তু চিপ নির্মাণের উপকরণের ক্ষেত্রে এখনো বিদেশী কোম্পানিগুলোর ওপর নির্ভরশীল তারা। খাতে স্বয়ংসম্পূর্ণ হতে চীনা প্রযুক্তি জায়ান্টগুলোর প্রয়াস বড় আকারে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। খবর সিএনবিসি।

স্মার্টফোন থেকে শুরু করে আধুনিক রেফ্রিজারেটর গাড়ি নির্মাণে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ উপকরণ চিপ। যুক্তরাষ্ট্র চীনের ক্রমবর্ধমান প্রযুক্তি লড়াইয়েও গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ এটি। স্থানীয় চিপ শিল্পকে শক্তিশালী করতে দীর্ঘদিন ধরেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতিটি। যুক্তরাষ্ট্র থেকে শুরু করে এশিয়ার অন্যান্য চিপ নির্মাতা জায়ান্টের চেয়ে অনেক পিছিয়ে আছে বৃহত্তম বাজার। চিপ নির্মাণে স্বয়ংসম্পূর্ণ হওয়াকে জাতীয় নিরাপত্তার জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিবেচনা করছে যুক্তরাষ্ট্র, ইইউ, জাপান চীনের মতো দেশগুলো। দেশেই চিপ নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছে বেশ কয়েকটি চীনা প্রযুক্তি জায়ান্ট।

গত আগস্টে দ্বিতীয় প্রজন্মের কুনলুন এআই চিপ উন্মোচন করে বাইদু। চলতি সপ্তাহে সার্ভার ক্লাউড কম্পিউটিংয়ের জন্য চিপের নকশা প্রকাশ করেছে আলিবাবা। গত বুধবার নিক্কেই এশিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, নিজস্ব হ্যান্ডসেটের জন্য হাইএন্ড প্রসেসর নিয়ে কাজ করেছে চীনা স্মার্টফোন নির্মাতা কোম্পানি অপো। সেমিকন্ডাক্টর খাতে স্বয়ংসম্পূর্ণ হওয়ার ক্ষেত্রে এটা গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ কিন্তু এটা ছোট অগ্রগতি।

চীনা প্রযুক্তি কোম্পানিগুলো যদিও নিজস্ব সেমিকন্ডাক্টরের নকশা করছে তবে তা নির্মাণে বিদেশী বিভিন্ন উপকরণের ওপর নির্ভরশীল। ম্যানুফ্যাকচারিং বিস্তৃত সাপ্লাই চেইনের ক্ষেত্রে চীনা ইন্টারনেট জায়ান্টদের এখনো বিদেশী কোম্পানির ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে। বেইন অ্যান্ড কোম্পানির পার্টনার পিটার হ্যানবারি সিএনবিসিকে এক -মেইল বার্তায় লেখেন, চীনা কোম্পানিগুলোর নিজস্ব চিপ ডিজাইনের প্রয়াস সেমিকন্ডাক্টর খাতে আত্মনির্ভরশীল হওয়ার পথে গুরুত্বপূর্ণ একটি পদক্ষেপ। কিন্তু অধিকাংশ আইপি (মেধাস্বত্ব), ম্যানুফ্যাকচারিং, উপকরণ এবং যন্ত্রপাতি সব বৈশ্বিক বাজার থেকে সংগ্রহ করা।

চীনা কোম্পানিগুলো নিজস্ব চিপ নির্মাণে ঝুঁকছে শুধু যে আত্মনির্ভরশীল হতে এমন নয়, বরং প্রতিদ্বন্দ্বী কোম্পানিগুলোর চেয়ে ভিন্নভাবে উপস্থাপনের জন্যও। চীনা কোম্পানিগুলোর নির্মিত সিলিকনের দিকে দৃষ্টি দিলে দেখা যাবে কীভাবে বিদেশী কোম্পানির ওপর নির্ভরশীল চীন। আলিবাবার ইটিয়ান ৭১০ চিপের দিকে দৃষ্টি দেয়া যাক। ব্রিটিশ সেমিকন্ডাক্টর নির্মাতা প্রতিষ্ঠান আর্মের প্রযুক্তিতে তৈরি হয়েছে ইটিয়ান ৭১০। এটি বর্তমানের সর্বাধুনিক ন্যানোমিটার চিপ প্রযুক্তি ব্যবহার করেছে। বাইদুর কুনলুন চিপে ন্যানোমিটার প্রযুক্তি ব্যবহূত হয়েছে। অন্যদিকে ন্যানোমিটারের চিপ নিয়ে কাজ করার কথা জানিয়ে অপো। সর্বাধুনিক চিপ নির্মাণের সক্ষমতা নেই চীনা প্রযুক্তি জায়ান্টগুলোর। তাদের তিনটি বড় কোম্পানির ওপর নির্ভর করতে হচ্ছেযুক্তরাষ্ট্রের ইন্টেল, তাইওয়ানের টিএসএমসি এবং দক্ষিণ কোরিয়ার স্যামসাং। ম্যানুফ্যাকচারিং প্রযুক্তিতে কোম্পানিগুলোর চেয়ে অনেক পিছিয়ে আছে চীনের বৃহত্তম চিপ নির্মাতা কোম্পানি এসএমআইসি। শুধু ম্যানুফ্যাকচারিং নয়, বিভিন্ন উপকরণ টুলসের ক্ষেত্রে অন্যান্য কোম্পানির ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে টিএসএমসি ইন্টেলকে। যেমন অত্যাধুনিক চিপ নির্মাণে বিভিন্ন উপকরণের জন্য নেদারল্যান্ডসভিত্তিক এএসএমএলের ওপর নির্ভর করছে অনেক সেমিকন্ডাক্টর নির্মাতা জায়ান্ট।

বিদেশী কোম্পানিগুলোর ওপর নির্ভরশীলতার কারণে ভূরাজনৈতিক সংকটে অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে পড়ছে চীনা কোম্পানিগুলো। যেমনটা ঘটেছে হুয়াওয়ে এসএমআইসির ক্ষেত্রে। কিরিন নামে নিজস্ব স্মার্টফোন প্রসেসর তৈরি করেছিল হুয়াওয়ে। কিন্তু ২০১৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রের কালো তালিকাভুক্ত হওয়ায় বেশকিছু প্রযুক্তি উপকরণ সংগ্রহে বিপাকে পড়ে চীনা প্রযুক্তি জায়ান্টটি। হুয়াওয়ের চিপ নির্মাণ করে আসছিল টিএসএমসি। কিন্তু মার্কিন নীতিমালা কার্যকরের পর হুয়াওয়ের জন্য চিপ নির্মাণ করতে পারছে না তাইওয়ানভিত্তিক চিপ জায়ান্টটি। এতে বৈশ্বিকভাবে হুয়াওয়ের স্মার্টফোন ব্যবসায় ধস নামে। কালো তালিকায় আরো রয়েছে এসএমআইসি, যাতে মার্কিন প্রযুক্তি ব্যবহারের সুযোগ পাচ্ছে না চীনা সেমিকন্ডাক্টর নির্মাতা কোম্পানিটি।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন