শনিবার | নভেম্বর ২৭, ২০২১ | ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

শেষ পাতা

বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের গুঁড়িয়ে ইংল্যান্ডের প্রতিশোধ

ক্রীড়া প্রতিবেদক

চার উইকেট নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে বিধ্বস্ত করা ইংল্যান্ড দলের খেলোয়াড় আদিল রশিদকে অভিনন্দন জানান সতীর্থরা ছবি: আইসিসি

আইসিসি টি২০ বিশ্বকাপের মূল পর্বে গতকাল প্রথম দিনই পরাজয়ের স্বাদ পেল বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আগে ব্যাটিং করে মাত্র ৫৫ রানে গুটিয়ে যায় তারকাবহুল ক্যারিবীয় দল। জবাবে উইকেট হারিয়ে মাত্র . ওভারেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে বিধ্বস্ত করে ২০১৬ আসরের ফাইনালে হারের প্রতিশোধ নিল ইংলিশরা।

২০১৬ সালের বিশ্বকাপ ফাইনালে বেন স্টোকসের করা শেষ ওভারে পরপর চারটি ছক্কা মেরে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে জিতিয়েছিলেন কার্লোস ব্র্যাথওয়েট। তীরে এসে তরী ডোবার সেই কষ্ট আজও পোড়ায় ইংলিশদের। গতকাল দুবাইয়ে ক্যারিবীয়দের ডুবিয়ে অন্তত সেই হারের জ্বালা খানিকটা হলেও জুড়াতে পারল ইয়োন মর্গানের দল।

আদিল রশিদ (/), মঈন আলী (/১৭) টাইমাল মিলসের (/১৭) দুর্দান্ত বোলিংয়ে ক্যারিবীয়রা ১৪. ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ৫৫ রান তুলতে সমর্থ হয়। ৪২ বছর বয়সী ক্রিকেটার ক্রিস গেইল সর্বোচ্চ ১৩ রান করেন। জবাব দিতে নেমে ইংলিশরা ৩৯ রানে চার উইকেট হারালেও জয় তাতে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনি।

দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটাররা বিশ্বব্যাপী ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক লিগগুলোতে আধিপত্য করে। এবারে তারকায় ঠাসা দল নিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতে খেলতে এসেছে ক্যারিবীয়রা। যদিও নিজেদের প্রথম ম্যাচেই লজ্জাজনক পরাজয় বরণ করতে হলো দলটিকে।

এমন পরাজয় মেনে নিতে পারছেন না ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলনায়ক কাইরন পোলার্ড। তবে ভেঙে পড়ছেন না তিনি। হার শেষে পোলার্ড বলেন, এটা অগ্রহণযোগ্য, আমরা তা মানছি। এখানে এখন পর্যন্ত তিন ম্যাচে (প্রস্তুতি ম্যাচসহ) আমরা ভালো ব্যাটিং করিনি। আজ আমরা খেলতে চেয়েছি, ছেলেরা শট খেলতে চেয়েছে, যদিও সবার পরিকল্পনা কাজে আসেনি। তবে হ্যাঁ, হারে আমাদের শিবিরে কোনো আতঙ্ক সৃষ্টি হবে না। একে স্বাভাবিকভাবে মেনে নিয়ে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে, এটা আন্তর্জাতিক খেলা। আর আমরা বিশ্বব্যাপী ক্রিকেট খেলি এবং এমনটি কিন্তু প্রথম ঘটল না।

ম্যাচসেরা মঈন আলী দুর্দান্ত এক ক্যাচ নিয়ে ইংল্যান্ডকে জিততে সাহায্য করেছেন। তিনি তাত্ক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, এমন একটা ক্যাচ আপনার আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দেবে। তাদের বেশ কজন বাঁহাতি ব্যাটার রয়েছে, কাজেই আমি মনে করেছি, আমাকে শুরু থেকেই বল করতে হবে। চেন্নাই সুপার কিংসের ভূমিকাটা আমাকে এখানে সাহায্য করেছে। আমি সব সময় ব্যাট, বল ফিল্ডিংয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকতে ভালোবাসি।

গতকাল দিনের প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে উইকেটে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। আবুধাবির শেখ জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে লো-স্কোরিং ম্যাচেও দারুণ রোমাঞ্চ ছড়ায় অস্ট্রেলিয়া দক্ষিণ আফ্রিকার লড়াই। বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ রাউন্ডের প্রথম ম্যাচে মাত্র ১১৮ রান তুলেও দুর্দান্ত লড়াই করে দক্ষিণ আফ্রিকা। যদিও স্নায়ু ধরে রেখে শেষ পর্যন্ত জয় তুলে নেয় অস্ট্রেলিয়াই। মাত্র বল বাকি থাকতে লক্ষ্যটা ছুঁয়েছে অসিরা।

জস হ্যাজেলউড (/১৯), মিচেল স্টার্ক (/৩২) প্যাট কামিন্সের (/১৭) গতিতে বিধ্বস্ত হয় প্রোটিয়া ব্যাটিং লাইনআপ। যদিও দলীয় ১৩ রানের সময় প্রোটিয়া দলনায়ক তেম্বা বাভুমাকে বোল্ড করে অজিদের রাজত্বের সূচনাটা করেছিলেন স্পিনার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। আর মাঝের দিকে দুটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট শিকার করেন দলের বিশেষজ্ঞ স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা। অজি বোলারদের সাঁড়াশি আক্রমণের মধ্যে শুধু লড়াই করতে পেরেছেন এইডেন মার্করাম। তিনি ৩৬ বলে ৪০ রান করে প্রোটিয়াদের মান বাঁচিয়েছেন। এছাড়া কাগিসো রাবাদা ১৯ ডেভিড মিলার ১৬ রান করেন।

জবাবে ৩৮ রানের মধ্যে অজিদের তিন উইকেট তুলে নিয়ে লড়াই জমিয়ে দেয় প্রোটিয়ারা। অ্যারন ফিঞ্চ, ডেভিড ওয়ার্নার আর মিচেল মার্শকে হারানোর পর অজি শিবিরেও চাপ তৈরি হয়। স্টিভেন স্মিথ (৩৫) ম্যাক্সওয়েল (১৮) হাল ধরে দলকে লক্ষ্যের দিকে নিয়ে ছুটছিলেন, যদিও ১৫ ১৬তম ওভারে দুজনের বিদায়ে আবার নাটকীয়তা তৈরি হয়। অবশ্য শেষ রক্ষা হয়নি প্রোটিয়াদের। মার্কাস স্টয়নিস (২৪*) ম্যাথু ওয়েডের (১৫*) দৃঢ়তায় শেষ ওভারের চতুর্থ বলে জয় নিশ্চিত করে অসিরা।

মঙ্গলবার নিজেদের পরের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হবে দক্ষিণ আফ্রিকা। আর বৃহস্পতিবার শ্রীলংকার বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামবে অস্ট্রেলিয়া।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন