রবিবার | ডিসেম্বর ০৫, ২০২১ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

শেষ পাতা

আঠারো মাসে সর্বনিম্ন শনাক্ত, আরো ১০ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনায় দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বশেষ আরো ২৪৩ জন আক্রান্ত হয়েছে। একই সঙ্গে আরো ১০ জন কভিড-১৯ পজিটিভ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। গত ১৮ মাসে সংক্রমণ শনাক্তের সংখ্যা সর্বনিম্ন। দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে গতকাল বিকালে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তথ্য জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

সরকারের করোনাবিষয়ক তথ্য বলছে, সর্বশেষ গত বছরের ১৪ এপ্রিল গতকালের চেয়েও কম রোগী শনাক্ত হয়েছিল। সেদিন ২০৯ জনের মধ্যে সংক্রমণ ধরা পড়েছিল। গতকাল শনাক্ত করোনা রোগী নিয়ে দেশে মোট কভিড পজিটিভ রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৬৬ হাজার ৯০৭ জনে। আর মারা গেছে ২৭ হাজার ৮০১ জন করোনা রোগী।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে মোট ১৬ হাজার ৮৮টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। পর্যন্ত পরীক্ষা হয়েছে কোটি লাখ ৭১ হাজার ৫২৩টি নমুনা। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা অনুযায়ী শনাক্তের হার দশমিক ৫১ শতাংশ, যা আগের দিন দশমিক ৮০ শতাংশ ছিল। পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার দাঁড়িয়েছে ১৫ দশমিক ৪০ শতাংশ; মৃত্যুর হার দশমিক ৭৭ শতাংশ। সর্বশেষ ৫৩৪ জন করোনা রোগী সুস্থ হওয়ায় মোট সুস্থতার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৩০ হাজার ৮৩ জনে। গতকাল আক্রান্তদের ১৬৩ জনই ঢাকা বিভাগের বাসিন্দা। আর মৃতদের মধ্যে সাতজনই ঢাকা চট্টগ্রাম বিভাগের বাসিন্দা ছিল।

গত ৩১ আগস্ট দেশে করোনা রোগী শনাক্তের সংখ্যা ১৫ লাখ অতিক্রম করে। এর আগে ২৮ জুলাই দেশে একদিনে সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ২৩০ জন রোগী শনাক্ত হয়। আর গত ১৪ সেপ্টেম্বর মৃত্যুর সংখ্যা ২৭ হাজার অতিক্রম করে। এর মধ্যে ১০ আগস্ট দুইদিনই সর্বোচ্চ ২৬৪ জন করে করোনা রোগীর মৃত্যু হয়।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহানে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ শনাক্ত হয়। এরপর মাত্র দুই মাসের ব্যবধানে শতাধিক দেশে ভাইরাসটির সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়লে গেল বছরের ১১ মার্চ করোনাকে বৈশ্বিক মহামারী ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন