রবিবার | ডিসেম্বর ০৫, ২০২১ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

টকিজ

ট্যাক্সিচালকরা পাত্তা দেননি আমির ও জুহিকে

ফিচার ডেস্ক

‘কেয়ামত সে কেয়ামত তাক’ ছবিতে আমির খান ও জুহি চাওলা

সম্প্রতি কেয়ামত সে কেয়ামত তাক সিনেমার একটি স্মৃতি কপিল শর্মার কমেডি চ্যাট শোতে শুনিয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী জুহি চাওলা। ১৯৮৮ সালের ওই ব্লকবাস্টার সিনেমার প্রচারণা চালিয়েছিলেন তিনি আমির খান। তারা দুজনই তখন নতুন শিল্পী।

জুহি জানিয়েছেন, ওই সময়ে মুম্বাইয়ের অনেক ট্যাক্সিতে সিনেমার পোস্টার লাগানো থাকত। নিজেদের ছবির মুক্তির আগে আমির খান এবং জুহি একের পর এক ট্যাক্সিচালকদের কাছে অনুরোধ করেন ট্যাক্সিতে তাদের সিনেমার পোস্টার লাগানোর জন্য। কিন্তু কাজ তাদের জন্য সহজ ছিল না। কারণ মানুষ তখন তাদের তেমন চিনত না। তাদের মতো নতুন জুটিকে ট্যাক্সিতে জায়গা দিতে প্রস্তুত ছিল না বেশির ভাগ চালক। সে সময় অনেকে প্রশ্ন করেছিলেন এটা কোন ধরনের সিনেমা, এতে কারা অভিনয় করেছেন। অনেকে আবার পাত্তা না দিয়ে ট্যাক্সি নিয়ে চলে যান।

জুহি আরো জানিয়েছেন, দর্শকরা তাদের সিনেমা কীভাবে গ্রহণ করেন সেটা দেখার জন্য আমির হলের বাইরে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এর পরই তারা বুঝতে পারে আসলে মানুষ তাদের সিনেমাকে পছন্দ করেছে। 

এর আগে ইকোনমিক টাইমসকে দেয়া এক সাক্ষাত্কারে আমির খানকে নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন জুহি। তিনি জানান, কিয়ামত সে কিয়ামত তাক সিনেমার শুটিং সেটে যাওয়ার আগেই আমির খানের সঙ্গে সাক্ষাৎ হয়েছিল তার। তিনি বলেন, আমি সেটেই আমিরকে প্রথমবার দেখেছি এমনটা নয়। আসলে বলতে গেলে আমাকে অডিশনের জন্য শেখাতেই তাকে নিয়োগ দেয়া হয়েছিল। সোজাসুজি বলতে গেলে স্ক্রিন টেস্টে আমার কি করা উচিত সেটা শেখাতে তাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল। প্রযোজক নাসির হুসাইনের বাসার বাগানে আমাদের একটি পরীক্ষা হয়েছিল। নাসির হুসাইন তার আগের একটি সিনেমার কয়েকটি দৃশ্যে আমাদের অভিনয় করতে দিয়েছিলেন। আমি সেখানেই আমিরকে প্রথম দেখি। এবং তখনও আমি জানতাম না যে আমিরই সিনেমার নায়ক। এটাও জানতাম না যে আমি নায়িকা।

এদিকে সামনে শার্মাজি নামকিন সিনেমাতে দেখা যাবে জুহি চাওলাকে। ঋষি কাপুরের মৃত্যুর আগে তার সঙ্গে শুটিং করেছেন জুহি।

কিয়ামত সে কেয়ামত তাক জুহির প্রথম সিনেমা নয়। ১৯৮৬ সালে সালতানাত সিনেমাতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে বলিউডে পা রাখেন জুহি চাওলা। তবে সিনেমাটি  বাণিজ্যিকভাবে সফল হয়নি।

 

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন