শনিবার | অক্টোবর ২৩, ২০২১ | ৮ কার্তিক ১৪২৮

শেয়ারবাজার

পুনর্মূল্যায়নের পর ডেসকোর সম্পদ বেড়েছে ৭১৭ কোটি টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক

সব ধরনের স্থায়ী সম্পদ পুনর্মূল্যায়নের পর পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত জ্বালানি বিদ্যুৎ খাতের প্রতিষ্ঠান ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি (ডেসকো) লিমিটেডের সম্পদ বেড়েছে। পুনর্মূল্যায়নের পর ৩০ জুন সমাপ্ত ২০১৯ হিসাব বছরে কোম্পানিটির স্থায়ী সম্পদ বেড়ে দাঁড়িয়েছে হাজার ৮০৯ কোটি ৩১ লাখ ৩৩  হাজার ৬১৬ টাকায়। পুনর্মূল্যায়নের আগে যা ছিল হাজার ৯১ কোটি ৪৫ লাখ ৩০ হাজার ৯৬২ টাকা। সেই হিসাবে প্রতিষ্ঠানটির স্থায়ী সম্পদ বেড়েছে ৭১৭ কোটি ৮৬ লাখ হাজার ৬৫৪ টাকা। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে তথ্য জানা গেছে।

এদিকে পুনর্মূল্যায়ন করা আর্থিক প্রতিবেদন কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ অনুমোদন দিয়েছে। এতে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) বেড়েছে ১৮ টাকা পয়সা।

ডেসকোর আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে, ৩০ জুন সমাপ্ত ২০২১ হিসাব বছরের নয় মাসে (জুলাই-মার্চ) কোম্পানিটির আয় হয়েছে হাজার ১৪৪ কোটি ৯৪ লাখ ৫১ হাজার ৭৭৫ টাকা, যা আগের বছর একই সময় ছিল হাজার ৩৭ কোটি ৫৫ লাখ ৯৩ হাজার ১৫৭ টাকা। সে হিসাবে কোম্পানিটির আয় বেড়েছে ১০৭ কোটি ৩৮ লাখ ৫৮ হাজার ৬১৮ টাকা বা সাড়ে শতাংশ। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী নিট মুনাফা হয়েছে ১৭ কোটি লাখ হাজার ৩৫৫ টাকা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ৫৪ কোটি ৫০ লাখ হাজার ৩৪৯ টাকা। সে হিসাবে কোম্পানিটির মুনাফা কমেছে ৩৭ কোটি ৪৪ লাখ ৯৪ হাজার ৯৯৪ টাকা বা ৬৮ দশমিক ৭১ শতাংশ। আলোচ্য সময়ে ডেসকোর শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৩ পয়সা, আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল টাকা ৩৭ পয়সা।

আলোচ্য হিসাব বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ) কোম্পানিটি আয় হয়েছে ৯১০ কোটি লাখ ১১ হাজার ৯৯ টাকা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ৭৫২ কোটি ৭৩ লাখ ৫৬ হাজার ৮৪৭ টাকা। সে হিসাবে কোম্পানিটির আয় বেড়েছে ১৫৭ কোটি ৩১ লাখ ৫৪ হাজার ২৫২ টাকা বা ২১ শতাংশ। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী নিট মুনাফা হয়েছে কোটি ৭৭ লাখ ৯২ হাজার ১৩৯ টাকা, যা আগের বছর একই সময় ছিল কোটি ৩৩ লাখ ১৯ হাজার ৪৭৪ টাকা। সে হিসাবে কোম্পানিটির মুনাফা কমেছে কোটি ৫৫ লাখ ২৭ হাজার ৩৩৫ টাকা বা ৪৮ দশমিক ৭৮ শতাংশ।

আলোচ্য সময়ে ইপিএস হয়েছে ১২ পয়সা। যেখানে আগের হিসাব বছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি লোকসান ছিল ৭০ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০২১ শেষে কোম্পানিটির এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ৪৬ টাকা ৪২ পয়সা।

৩০ জুন ২০২০ হিসাব বছরে কোম্পানিটি শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয়। আলোচ্য হিসাব বছরে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল টাকা ১৫ পয়সা। এনএভিপিএস ছিল ৪৬ টাকা ৭৬ পয়সা। আগের বছরে ১২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয় কোম্পানিটি। তার আগের দুই বছরে ১০ শতাংশ করে নগদ লভ্যাংশ পেয়েছিলেন কোম্পানিটির শেয়ারহোল্ডারার।

২০০৬ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির অনুমোদিত মূলধন ৫০০ কোটি টাকা। পরিশোধিত মূলধন ৩৯৭ কোটি ৫৭ লাখ টাকা। রিজার্ভে রয়েছে ১৪৬ কোটি ১৩ লাখ ৬০ হাজার টাকা। মোট শেয়ার সংখ্যা ৩৯ কোটি ৭৫ লাখ ৬৯ হাজার ৮০৪টি। এর মধ্যে সরকারের হাতে রয়েছে ৬৭ দশমিক ৬৬ শতাংশ শেয়ার। প্রাতিষ্ঠানিক ২৩ দশমিক ৭৬ শতাংশ, বিদেশী দশমিক শূন্য শতাংশ বাকি দশমিক ৫২ শতাংশ শেয়ার সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে রয়েছে।

ডিএসইতে গতকাল ডেসকো শেয়ারের সর্বশেষ দর ছিল ৪০ টাকা। সমাপনী দর ছিল ৩৯ টাকা ৮০ পয়সা। গতকাল শেয়ারটি ৩৯ টাকা ৭০ পয়সা থেকে ৪১ টাকায় লেনদেন হয়। গত এক বছরে শেয়ারটির সর্বনিম্ন সর্বোচ্চ দর ছিল যথাক্রমে ৩১ টাকা ২০ পয়সা ৪৫ টাকা ৪০ পয়সা।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন