রবিবার | নভেম্বর ২৮, ২০২১ | ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

পণ্যবাজার

রাশিয়ার গম রফতানি ১২ শতাংশ কমেছে

বণিক বার্তা ডেস্ক

রাশিয়ায় চলতি বছরের জুলাইয়ে গমের ২০২১-২২ বিপণন মৌসুম শুরু হয়েছে। আগামী বছরের জুনে মৌসুম শেষ হবে। মৌসুমের প্রথম তিন মাসে ( অক্টোবর পর্যন্ত) দেশটি বিশ্ববাজারে কোটি ২৮ লাখ টন গম রফতানি করতে সক্ষম হয়েছে। সেই হিসাবে রফতানি আগের মৌসুমের একই সময়ের তুলনায় ১২ শতাংশ কমেছে। রাশিয়ান ফেডারেল সার্ভিস ফর ভেটেরিনারি অ্যান্ড ফাইটোসেনেটারি সার্ভিল্যান্স তথ্য জানিয়েছে।

চলতি মৌসুমে রুশ গমের সবচেয়ে বড় আমদানিকারক ছিল প্রতিবেশী দেশ তুরস্ক। মৌসুমে এখন পর্যন্ত দেশটি রাশিয়া থেকে ২৯ লাখ টন গম কিনেছে। তুরস্কের পরই রয়েছে মিসরের অবস্থান। দেশটি ক্রয় করেছে ১৫ লাখ টন গম। এছাড়া সৌদি আরব রাশিয়া থেকে এখন পর্যন্ত সাত লাখ টন গম আমদানি করেছে।

এসঅ্যান্ডপি গ্লোবাল প্ল্যাটসের বিশ্লেষকরা চলতি বিপণন মৌসুমে রাশিয়ার গম রফতানি পূর্বাভাস কমিয়ে এনেছেন। নতুন পূর্বাভাস অনুযায়ী, ২০২১-২২ মৌসুমে রাশিয়া সব মিলিয়ে কোটি ৬৫ লাখ টন গম রফতানিতে সক্ষম হবে। এর আগে কোটি ৮৬ লাখ টন রফতানির পূর্বাভাস দিয়েছিল প্ল্যাটস। মার্কিন কৃষি বিভাগ বলছে, ২০২০-২১ বিপণন মৌসুমে রাশিয়া কোটি ৮৫ লাখ টন গম রফতানি করেছিল। অর্থাৎ এক বছরের ব্যবধানে রফতানি ২০ লাখ টন কমবে।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, গম রফতানিতে দেশটির সরকার শুল্ক বাড়িয়ে দেয়ায় বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরেই কমছে রফতানি। অতিমাত্রার শুল্কের কারণে আগস্টে গমের মূল্য লাফিয়ে বেড়েছে। উচ্চমূল্যের কারণে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন ক্রেতারা।

উচ্চ শুল্কের পাশাপাশি দেশটিতে সংকুচিত সরবরাহ মূল্যবৃদ্ধিতে প্রভাব ফেলেছে। গত দুই সপ্তাহের ব্যবধানে রাশিয়ান গমের দাম দশমিক শতাংশেরও বেশি বেড়েছে।

রাশিয়ার কৃষি মন্ত্রণালয় জানায়, ১৩-১৯ অক্টোবর গমের রফতানি শুল্ক ৫৮ ডলার ৭০ সেন্ট নির্ধারণ করা হয়েছে। ওই সপ্তাহের জন্য শুল্ক বেড়েছে ৯০ সেন্ট।

মন্ত্রণালয়ের তথ্য বলছে, অক্টোবর পর্যন্ত রাশিয়া আবাদি জমি থেকে কোটি ৫৮ লাখ টন গম সংগ্রহ করেছে। গত বছরের একই সময় সংগ্রহ করা হয় কোটি ৬৭ লাখ টন। অর্থাৎ এক বছরের ব্যবধানে উৎপাদন প্রায় ১৩ শতাংশ কমেছে। মূলত উরাল পর্বত ভলগা নদী এলাকায় শুষ্ক আবহাওয়ার কারণে উৎপাদনে নিম্নমুখী প্রবণতা দেখা দিয়েছে।

গ্লোবাল প্ল্যাটসের বিশ্লেষকরা বলছেন, ২০২১-২২ বিপণন মৌসুমে রাশিয়ায় কোটি ৭৬ লাখ টন গম উৎপাদন হতে পারে। এর আগে কোটি লাখ টন উৎপাদনের পূর্বাভাস দিয়েছিল প্রতিষ্ঠানটি।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন

×