রবিবার | অক্টোবর ২৪, ২০২১ | ৯ কার্তিক ১৪২৮

খবর

কভিড-১৯ টিকাদান

গ্রামে নারীদের উৎসাহিত করছে ইউএন উইমেন

নিজস্ব প্রতিবেদক

জাতিসংঘের লিঙ্গসমতা নারীর ক্ষমতায়ন বিষয়ক সংস্থা ইউএন উইমেন সম্প্রতি দেশের গ্রাম এবং মফস্বল অঞ্চলে বসবাসকারী নারীদের জন্য কভিড-১৯ টিকাদান প্রসঙ্গে সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন চালু করেছে। টিকার ব্যাপারে বিভ্রান্তি দূর এবং তাদের টিকা নিতে উৎসাহিত করাই আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য।

গ্রাম মফস্বল শহরে অনেকে, বিশেষ করে নারীরা এখনো টিকা নিতে দ্বিধা বোধ করেন। টিকার ব্যাপারে প্রচলিত বিভিন্ন ভ্রান্ত ধারণা, সচেতনতার অভাব, ইন্টারনেট বা স্মার্টফোনের সীমিত সুযোগের কারণে অনেকেই টিকা নেয়া থেকে নিজেকে বিরত রাখছেন। অবস্থা থেকে উত্তরণ ঘটিয়ে সবাইকে, বিশেষত নারীদের টিকা কর্মসূচিতে অংশগ্রহণে অনুপ্রাণিত করা এবং তাদের টিকার আওতায় আনার লক্ষ্যে ইউএন উইমেন তাদের টিকাবিষয়ক সচেতনতামূলক কার্যক্রম শুরু করেছে।

ইউএন উইমেনের ন্যাশনাল ইয়ুথ জেন্ডার অ্যাক্টিভিস্ট সাদিয়া আফসানা নিনির নেতৃত্বে ২৫ জন তরুণ স্বেচ্ছাসেবী চাঁদপুর কুমিল্লা জেলায় এই ক্যাম্পেইন পরিচালনা করবে। স্থানীয় প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতা এবং সমন্বয়ের মাধ্যমে, কুমিল্লা চাঁদপুর জেলার দুটি নির্বাচিত উপজেলায় পাঁচটি গ্রাম এবং একটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এরই মধ্যে ক্যাম্পেইন শুরু হয়েছে। ক্যাম্পেইনের কার্যক্রমের আওতায়, তরুণ স্বেচ্ছাসেবীরা ট্যাব ইন্টারনেট ব্যবহার করে উল্লিখিত এলাকাগুলোর বাসিন্দাদের সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধনে সাহায্য করবে।

ইউএন উইমেনকে ধন্যবাদ জানিয়ে আফসানা নিনি বলেন, আমার কমিউনিটির অনেক নারীরই ইন্টারনেট বা স্মার্টফোনের অ্যাকসেস নেই। স্থানীয় সাইবার ক্যাফে বা মোবাইল/কম্পিটারেরে দোকানে জনপ্রতি মানুষের ভ্যাকসিন নিবন্ধন ২০ টাকা করে। পাঁচজনের পরিবারের নিবন্ধনে খরচ হয়ে যায় ১০০ টাকা। কারণেও অনেকে নিবন্ধন করেননি। আমরা যদি বিনা মূল্যে মানুষগুলোকে নিবন্ধন করে দিতে পারি, তারা অন্তত ভ্যাকসিন নিতে পারবেন।

২১ সেপ্টেম্বর থেকে চাঁদপুর জেলায় ক্যাম্পেইনটি চালু হয়। শাহরাস্তি উপজেলার বারনাইয়া শিবপুর গ্রামে যথাক্রমে ২১ ২২ সেপ্টেম্বর সচেতনতামূলক সেশন অনুষ্ঠিত হয়। একই উপজেলার লাকসাম লক্ষ্মীপুর গ্রামে প্রচারণা চালানো হয় গতকাল।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন