শনিবার | অক্টোবর ২৩, ২০২১ | ৭ কার্তিক ১৪২৮

শিল্প বাণিজ্য

কর্মী ছাঁটাই বিষয়ে গণমাধ্যমের সংবাদের প্রতিবাদ এবিবির

১৩ সেপ্টেম্বর ব্যাংক নির্বাহীদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশের (এবিবি) একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবিরের সাক্ষাৎ বিষয়ে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে বিভ্রান্তিকর শিরোনামের কিছু মনগড়া সংবাদ এবিবির নজরে এসেছে। শিরোনামগুলোর মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে ক্ষমা চাইলেন ছয় ব্যাংকের এমডি, কারণ ছাড়া ব্যাংকে কর্মী ছাঁটাই হয়নিবৈঠকে এবিবির দাবি, ব্যাংকের কর্মী ছাঁটাই না করার নির্দেশ ইত্যাদি।

ব্যাংকে কর্মীদের স্বেচ্ছায় পদত্যাগ, খারাপ পারফরম্যান্সের কারণে পদত্যাগ এবং ব্যাংকের শৃঙ্খলা ভঙ্গজনিত কারণে পদত্যাগ বিষয়ে দেশের কয়েকটি ব্যাংকে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের চলমান নিরীক্ষা কার্যক্রম নিয়ে সম্প্রতি কিছু প্রধান পত্রিকায় অসত্য বিভ্রান্তিকর সংবাদ ছাপা হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে এবিবি নেতারা ওইদিন গভর্নরের সঙ্গে দেখা করে প্রসঙ্গে ব্যাংকগুলোর অবস্থান ব্যাখ্যা করেন।

এবিবি নেতাদের সব তথ্য-উপাত্ত পরিসংখ্যান শোনার পর কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ কিছু ব্যাংকে নিরীক্ষা চলমান থাকার এবং তার শেষে বস্তুগত তথ্যের ভিত্তিতেই যে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে, সেটি ব্যাংক এমডিদের নিশ্চিত করেন। গভর্নর তার বক্তব্যে করোনা মহামারী চলাকালীন কর্মীদের পদত্যাগ ছাঁটাই বিষয়টির সংবেদনশীলতার দিকে দৃষ্টি রেখে ব্যাংক এমডিদের মানবিক আচরণ প্রদর্শন করার আহ্বান জানান। তিনি ব্যাংকের প্রাথমিক স্তরের কর্মীদের কম বেতন প্রসঙ্গে ব্যাংক এমডিদের উদারতা প্রদর্শন করারও পরামর্শ দেন।

পুরো সাক্ষািট একটি পরিপূর্ণ সৌহার্দসুলভ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়। সাক্ষাতে ব্যাংক এমডিদের ক্ষমা চাওয়ার মতো কোনো পরিস্থিতি, অবস্থা কারণ তৈরিই হয়নি। প্রকাশিত সংবাদের অংশটুকু যেমন সর্বৈব মনগড়া, তেমন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মিটিংয়ে উপস্থিত ব্যাংকারদের ব্যাংকে অবৈধভাবে নিয়োগ বাণিজ্য চলে, এমন কথা বলা হয়েছে দাবি করাটাও অপসাংবাদিকতা। সভায় ছয় ব্যাংক এমডির উপস্থিত থাকার কথাটিও একটি ভুল তথ্য। এবিবি কেন্দ্রীয় ব্যাংক গভর্নরের সঙ্গে রকম সুন্দর ইতিবাচক একটি আলোচনার সংবাদকে বিকৃত করে সংবাদপত্রে ভুল তথ্যসহ উপস্থাপনের নিন্দা জানাচ্ছে। বিজ্ঞপ্তি

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন