রবিবার | অক্টোবর ২৪, ২০২১ | ৯ কার্তিক ১৪২৮

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

শূন্য বর্জ্য কেনাকাটার ব্যবস্থা চালু করেছে টেসকো

বণিক বার্তা ডেস্ক

যুক্তরাজ্যের পূর্বাঞ্চলের ১০টি দোকানে শূন্য বর্জ্য কেনাকাটা চালু করেছে টেসকো ছবি: টেসকো

সাধারণত সুপারশপগুলোয় ভোক্তারা কেনাকাটা করে বাড়ি ফেরার পর প্লাস্টিকের ব্যাগ, কৌটাসহ তৈরি হয় বর্জ্য। এর মধ্যে বেশির ভাগই একবার ব্যবহার্য প্লাস্টিক, যা আদতে পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর। এ কারণে ব্রিটিশ সুপারশপ চেইন টেসকো এ বর্জ্যের পরিমাণ শূন্যে নামিয়ে আনতে চায়। এ লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠানটি দেশের পূর্বাঞ্চলের ১০টি দোকানে পরীক্ষামূলকভাবে শূন্য বর্জ্য কেনাকাটার ব্যবস্থা চালু করেছে। খবর বিবিসি।

নতুন নিয়ম অনুযায়ী, ভোক্তারা কিছু সাধারণ গৃহস্থালি সামগ্রী কিনলে সেগুলো           পাবেন পুনর্ব্যবহারযোগ্য প্যাকেটে। যেগুলো ব্যবহারের পর আবার দোকানে ফেরত দেয়া যাবে। এর আগে প্রায় এক বছর অনলাইনে পণ্য কেনাকাটার সুযোগের পর ব্যবহার্য মোড়কগুলো গ্রাহকদের বাড়ি থেকেই ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করেছিল টেসকো। সেটাই ছিল এ প্রকল্পের সূত্রপাত। সেক্ষেত্রে সফলতার পর এবার দোকানে সরাসরি কেনাকাটার পর এ সুযোগের ব্যবহার করতে চায় টেসকো।

সুপারশপটির লক্ষ্য হলো প্লাস্টিকের মোড়কের ব্যবহার কমিয়ে আনা। প্রতিষ্ঠানটি বলছে, যদি এ ১০টি দোকান থেকে গ্রাহকরা তাদের সাপ্তাহিক বাজারের সময় টমেটো ক্যাচাপ, বোতলজাত কোমলপানীয় ও তরল পরিষ্কারকের বোতল কেনেন এবং সেগুলো ফেরত দেন, তাহলে এক বছরে সেগুলো ২৫ লাখ বার পুনর্ব্যবহার করা যাবে।

এ রকম অন্তত ৮৮টি পণ্য কেনা যাবে যেগুলোয় পুনর্ব্যবহারযোগ্য প্যাকেজিং ব্যবহার করা হয়েছে। এর মধ্যে আছে পারসিল ওয়াশিং পাউডার, কেয়ারেক্স হ্যান্ডওয়াশ, টেটলি চা ও ব্রিউডগ বিয়ারের মতো ব্র্যান্ডের পণ্যও। পাশাপাশি নিজেদের ব্র্যান্ডের পাস্তা, চাল, তেল, চিনির মতো পণ্যও নতুনভাবে মোড়কজাত করেছে টেসকো। পুনর্ব্যবহারযোগ্য এসব পণ্যের ব্যবহার বাড়ানোর মধ্য দিয়ে তারা পুনর্ব্যবহারযোগ্য প্লাটফর্মের সঙ্গে একযোগে কাজ করবে।

যুক্তরাজ্যের মিল্টন কেনস কিংস্টন, নর্থহ্যাম্পটন সাউথ, কেমব্রিজ নিউমার্কেট রোড, ওয়েলিংবরো, মিল্টন কেনস উলভারটন, ইভশাম, লেস্টার হ্যামিল্টন, স্ট্র্যাটফোর্ড আপওন এভন, অ্যাশবি ডে দা ও লবরো রাশেস এলাকার টেসকোতে এ পরিষেবা পাওয়া যাবে। ফলে যে গ্রাহকরা শূন্যবর্জ্য শপিংয়ের অভিজ্ঞতা নিতে চান বা যারা চান পরিবেশ দূষণ কমাতে কিছুটা ভূমিকা রাখতে, তাদের এসব শাখায় কেনাকাটা করতে আহ্বান জানিয়েছে টেসকো।

পুনর্ব্যবহারযোগ্য মোড়কের পণ্যগুলোর দাম বেশি রাখা হয়নি। এসব পণ্য স্বাভাবিক মোড়কজাত অবস্থায় যে দামে বিক্রি হয়, এখনো সে দামেই বিক্রি করা হচ্ছে। উল্টো পণ্যগুলো ব্যবহারের পর নির্দিষ্ট কাউন্টারে জমা দেয়ার পর অ্যাপের মাধ্যমে কিছু অর্থ ফেরতও পাবেন ভোক্তারা। আর এটিই শূন্যবর্জ্য পরিষেবা দেয়া অন্য ছোট ব্যবসাগুলোর সঙ্গে টেসকোর পার্থক্য।

সাধারণত অন্য যেসব ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান শূন্যবর্জ্য নিয়ে কাজ করে তারা ভোক্তাদের কাছ থেকে ফেরত পাওয়া কনটেইনার যেমন কাচের পাত্র, টাপারওয়্যার বাক্স, পুরনো বিস্কুটের টিনসহ নানা জিনিস স্থানীয় জনগণের ব্যবহারের জন্য দান করে দেয়।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন