রবিবার | অক্টোবর ২৪, ২০২১ | ৯ কার্তিক ১৪২৮

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

উড়োজাহাজ নির্মাতাদের সহায়তা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

বণিক বার্তা ডেস্ক

মহামারীকালীন সংকট এড়াতে উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোকে ৪৮ কোটি ২০ লাখ ডলার সহায়তা দেবে বাইডেন প্রশাসন। কর্মী ছাঁটাই অথবা বেতন কমিয়ে আনার মতো সিদ্ধান্ত থেকে বিরত থাকতে এ সহায়তা দেবে করবে মার্কিন প্রশাসন।খবর এপি।

সম্প্রতি মার্কিন পরিবহন বিভাগ জানায়, করদাতাদের অর্থ থেকে সংগৃহীত এ তহবিলের মাধ্যমে ৩১৩টি কোম্পানির মোট বেতনের প্রায় অর্ধেক পরিশোধ করা সম্ভব হবে। ফলে এ খাতে ২২ হাজার ৫০০ কর্মীকে ছাঁটাই থেকে রক্ষা করবে বলেও জানায় পরিবহন বিভাগ।

কভিড-১৯-এর সংক্রমণের কারণে দীর্ঘদিন ধরে আকাশ ভ্রমণ অনেকটাই নিমজ্জিত অবস্থায় রয়েছে। এর মধ্যে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ বৃদ্ধির ফলে সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন বাণিজ্যিক ফ্লাইট বাতিল ও হ্রাসের হার আগের তুলনায় আরো বেড়েছে। কভিডকালীন সময়ে আকাশ পরিবহন খাতে এক লাখের বেশি কর্মসংস্থান হ্রাস পেয়েছে। মার্কিন আকাশ পরিবহন খাতের বিভিন্ন পদে প্রায় ২২ লাখ কর্মী কাজ করতেন বলে জানায় মার্কিন পরিবহন বিভাগ।

সম্প্রতি ঘোষিত এ তহবিলের একটি বড় অংশের প্রাপক হতে যাচ্ছে স্প্রিট অ্যারোসিস্টেমস। কানসাসভিত্তিক এ প্রতিষ্ঠান মূলত মার্কিন উড়োজাহাজ নির্মাতা সংস্থা বোয়িংয়ের উল্লেখযোগ্য সরবরাহকারী হিসেবে পরিচিত। জানা যায়, আকাশ পরিবহন খাতসংক্রান্ত তহবিল থেকে ৭ কোটি ৫৫ লাখ ডলার সহায়তা পাবে স্প্রিট অ্যারোসিস্টেমস। মার্কিন সরকার জানায়, এ সরকারি সহায়তা প্রতিষ্ঠানটির ৩ হাজার ২১৪টি কর্মসংস্থান রক্ষায় সাহায্য করবে।

পার্কার-হানিফিন করপোরেশন অব ওহাইও এ তহবিল থেকে ৩ কোটি ৯৭ লাখ ডলার সহায়তা পাবে। প্রতিষ্ঠানটি সাধারণত উড়োজাহাজের হাইড্রোলিক সিস্টেম তৈরি করে থাকে। ক্যালিফোর্নিয়াভিত্তিক জাপানের প্যানাসনিকের এভিওনিক্স ইউনিট পাবে ২ কোটি ৫৮ লাখ ডলার। ফ্রান্সের এফরান এস.-এর মার্কিন সহযোগী প্রতিষ্ঠানগুলো মোট ২ কোটি ৪৮ লাখ ডলার সহায়তা পাবে বলে জানানো হয়।

উড়োজাহাজ নির্মাণ খাতে দেয়া এসব সহায়তা মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ঘোষিত ১ লাখ ৯০ হাজার কোটি ডলারের প্রণোদনা প্যাকেজের অন্তর্ভুক্ত বলে জানানো হয়। মার্চে কংগ্রেস কর্তৃক এ প্রণোদনা বিল পাস করা হয়।

তহবিলটি যুক্তরাষ্ট্রের এয়ারলাইনসগুলোর জন্য ঘোষিত বৃহৎ আকারের সহায়তা কার্যক্রমের অনুরূপ। গত দেড় বছরে এ খাতে ৫ হাজার ৪০০ কোটি ডলার সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। এর ফলে এয়ারলাইনসগুলো তাদের কোনো কর্মীকে বাধ্যতামূলক ছুটিতে না পাঠানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণে সম্মত হয়েছে। তবে এসব প্রতিষ্ঠান প্রণোদনা প্রস্তাবের মাধ্যমে হাজার হাজার কর্মীকে পদত্যাগ বা দ্রুত অবসরের সিদ্ধান্ত গ্রহণে প্রভাবিত করেছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন