শনিবার | সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২১ | ১০ আশ্বিন ১৪২৮

শেষ পাতা

কভিড-১৯

জাপান থেকে এল অক্সফোর্ডের আরো ৬ লাখ টিকা

নিজস্ব প্রতিবেদক

নভেল করোনাভাইরাস প্রতিরোধী অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা তৃতীয় দফায় জাপান থেকে ঢাকা এসে পৌঁছেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) নেতৃত্বে গড়ে ওঠা করোনার টিকা বিতরণের জোট কোভ্যাক্স ফ্যাসিলিটির মাধ্যমে টিকা পেয়েছে বাংলাদেশ। চালানে রয়েছে সোয়া ছয় লাখ ডোজ টিকা। গতকাল বেলা ৩টা ১৫ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে টিকা বহনকারী বিমান অবতরণ করে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা।

কোভ্যাক্সের মাধ্যমে বাংলাদেশকে ৩০ লাখ ডোজ অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা দিচ্ছে জাপান। দেশটি থেকে এর আগে দুই চালানে ১০ লাখের বেশি টিকা ঢাকায় পৌঁছেছে। বিশ্বজুড়ে ন্যায্যতার ভিত্তিতে করোনার টিকাপ্রাপ্তি নিশ্চিতের লক্ষ্যে কোভ্যাক্সের আওতায় বাংলাদেশকে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা দিচ্ছে জাপান। গতকাল তৃতীয় চালানে লাখ ১৬ হাজার ৭৮০ ডোজ অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা এসেছে। ক্যাথে প্যাসিফিক এয়ারলাইনসের কার্গো বিমানে চালানটি আসে। সব মিলিয়ে জাপান থেকে আসা অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার সংখ্যা দাঁড়াচ্ছে ১৬ লাখ ৪৩ হাজার ৩০০ ডোজ।

গত ফেব্রুয়ারিতে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার কোভিশিল্ড টিকা দিয়ে গণটিকা কার্যক্রম শুরু করেছিল সরকার। প্রতিষ্ঠানটি থেকে তিন কোটি ডোজ টিকা কেনার জন্য একটি ত্রিপক্ষীয় চুক্তি করে বাংলাদেশ। তবে দুই চালানে ৭০ লাখ ডোজ দেয়ার পর টিকা পাঠানো বন্ধ করে প্রতিষ্ঠানটি। পরে সংকটে পড়লে বিভিন্ন দেশ উৎস থেকে টিকা কেনার জন্য পদক্ষেপ নেয় সরকার।

সরবরাহ সংকটের প্রথম ডোজ গ্রহণকারীদের মধ্যে অক্সফোর্ডের দ্বিতীয় ডোজ যারা পাননি, তাদের গত সোমবার থেকে দেয়া শুরু করেছে সরকার। সোমবার থেকে ঢাকা বিভাগের সব জেলায় শুরু হলেও আগস্ট থেকে সারা দেশে টিকা প্রয়োগ শুরু হচ্ছে। টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেয়ার অপেক্ষায় ছিলেন ১৫ লাখ ২১ হাজার ৯৪৭ জন।

এদিকে বাংলাদেশ চীন থেকে টিকা কেনা শুরু করেছে। কোভ্যাক্সের আওতায় ফাইজার, মডার্নার টিকাও এসেছে। দেশে এখন অক্সফোর্ড ছাড়াও ফাইজার, মডার্না সিনোফার্মের টিকার প্রয়োগ চলছে। তবে জরুরি প্রয়োগের জন্য আটটি টিকা অনুমোদন দিয়েছে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন